বাংলা নিউজ > ময়দান > আর্জানের হাত ধরে ২৮ বছর পরে ইতিহাস তৈরি হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটে
ঘরোয়া ক্রিকেটে আর্জান নাগওয়াসওয়ালা (ছবি: গুগল)
ঘরোয়া ক্রিকেটে আর্জান নাগওয়াসওয়ালা (ছবি: গুগল)

আর্জানের হাত ধরে ২৮ বছর পরে ইতিহাস তৈরি হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটে

  • ভারতীয় ক্রিকেটে ইতিহাস তৈরি করলেন আর্জান নাগওয়াসওয়ালা। ২৮ বছর পরে ভারতীয় টেস্ট দলে কোনও পার্সি ক্রিকেটার হিসাবে জায়গা পেলেন। শেষ ১৯৭৫ সালে ফারুক ইঞ্জিনিয়ার দেশের হয়ে নিজের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন। আর তিনিই ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের পুরুষ দলের শেষ পার্সি ক্রিকেটার।

ভারতীয় ক্রিকেটে ইতিহাস তৈরি করলেন আর্জান নাগওয়াসওয়ালা। ২৮ বছর পরে ভারতীয় টেস্ট দলে কোনও পার্সি ক্রিকেটার হিসাবে জায়গা পেলেন। শেষ ১৯৭৫ সালে ফারুক ইঞ্জিনিয়ার দেশের হয়ে নিজের শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন। আর তিনিই ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের পুরুষ দলের শেষ পার্সি ক্রিকেটার। তারপর গঙ্গা দিয়ে বয়ে গেছে অনেক জল। বহু ক্রিকেটার দলে এসেছেন আবার চলেও গেছেন কিন্তু দলে এতোদিন জায়গা পাননি কোনও পার্সি ক্রিকেটার। তবে স্ট্যান্ডবাই হিসাবে দলে রাখা হয়েছে তাঁকে।    

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ইংল্যান্ড সিরিজে যে ৪ জন ক্রিকেটারকে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে দলে রাখা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন আর্জান নাগওয়াসওয়ালা। ২৩ বছরের  আর্জান খেলেন গুজরাটের হয়ে। মূলত বাঁহাতি পেসার। টেলএন্ডার হিসেবে ব্যাটও মন্দ করেননা। 

ভারতীয় দলে জায়গা পেয়ে আর্জান জানিয়েছেন, ‘আমার লক্ষ্যটা একই থাকবে। আমি আমার লক্ষ্যে স্থির থাকতে চাই। আমি আমার দক্ষতার উপর বিশ্বাস রাখি। আমি এটা এভাবেই চালিয়ে যেতে চাই।’

পার্সি হিসাবে ২৮ বছর পরে দলে জায়গা পাওয়ার অনুভূতিকে বেশ উপভোগ করছেন আর্জান নাগওয়াসওয়ালা। নিজের মানুষদের আনন্দ ও খুশি দিতে পেরে বেশ ভাল লাগছে বলে জানান গুজরাতের এই ক্রিকেটার।

আর্জান ছাড়াও স্ট্যান্ডবাই হিসাবে দলে রয়েছেন বাংলার অভিমুণ্য ঈশ্বরন। বাকি ৩ জনের মধ্যে আবেশ খান ও প্রসিধ কৃষ্ণা নজর কেড়েছেন আইপিএলে। চলতি বছর বিজয় হাজারে ট্রফিতে বাঁহাতি আর্জানের বিষাক্ত সুইং নজর কাড়ে ছত্তিশগড়ের বিরুদ্ধে। ম্যাচে ৬ উইকেট পেয়েছিলেন গুজরাটের এই বাঁহাতি পেসার। আর্জানের বোলিং দাপটে ভর করে বিজয় হাজারে ট্রফির সেমিফাইনালে পৌঁছেছিল গুজরাট।

বন্ধ করুন