বাংলা নিউজ > ময়দান > SA-এর বিরুদ্ধে লজ্জার নজির ভারতের, সব ফর্ম্যাট মিলিয়ে টানা ৭ ম্যাচে হার পন্তদের
টি-টোয়েন্টি সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ০-২ পিছিয়ে ভারত।

SA-এর বিরুদ্ধে লজ্জার নজির ভারতের, সব ফর্ম্যাট মিলিয়ে টানা ৭ ম্যাচে হার পন্তদের

  • পরপর দুটি ম্যাচে হারার পর, ভারত সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে বিশাখাপত্তনমে। সেই ম্যাচ জিততে না পারলে ঘরের মাঠে সিরিজ হাতছাড়া করবেন ঋষভ পন্তরা। তাই মঙ্গলবার সিরিজে ফেরার জন্য মরিয়া থাকবে টিম ইন্ডিয়া।

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা- মানেই এখন মেন ইন ব্লু-র কাছে লজ্জার নজির। ক্রিকেটের সব ফর্ম্যাটেই ভারত দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে চলেছে। টেস্ট, একদিনের ক্রিকেট এবং টি-টোয়েন্টি- কোনও কিছুই বাদ নেই, যে ফর্ম্যাটে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হারছে না ভারত। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে ২টি টেস্ট এবং ৩টি ওডিআই হেরেছে ভারত। আর দেশের মাটিতে এ বার পরপর ২টি টি-টোয়েন্টিতে হেরে বসে থাকল টিম ইন্ডিয়া। যা নিঃসন্দেহে মেন ইন ব্লুর কাছে লজ্জার।

ক্রিকেটের ৩ ফর্ম্যাট মিলিয়ে টানা সাত ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরেছ ভারত। আইপিএল শেষ হওয়ার পরেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারত এই প্রথম কোনও আন্তর্জাতিক সিরিজ খেলছে। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে তারা একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে। আর দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে খেলতে নেমে ঘরের মাঠে কার্যত মুখ পোড়ার জোগাড় ভারতের। দিল্লিতে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হারের পর, ফের তারা কটকেও ৪ উইকেটে হারল।

আরও পড়ুন: ‘কেন কার্তিকের আগে অক্ষরকে নামানো হল?’ ঋষভের সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রাক্তনীরা

আরও পড়ুন: ৫ ওভারে ৭৪ রান চাহালদের! তাও ফর্মে থাকা বোলারদের কোটা পূরণ নয়,প্রশ্নের মুখে পন্ত

পরপর দুটি ম্যাচে হারার পর, ভারত সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে বিশাখাপত্তনমে। সেই ম্যাচ জিততে না পারলে ঘরের মাঠে সিরিজ হাতছাড়া করবেন ঋ। মঙ্গলবার সিরিজে ফেরার জন্য মরিয়া থাকবে টিম ইন্ডিয়া। তবে ভারতের ভাঙাচোরা দল পেয়ে একেবারে নাকানিচোবানি খাওয়াচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

টিম ইন্ডিয়ার সবচেয়ে বড় সমস্যা হল তাদের বোলিং লাইন আপ, যা দুর্বল হয়ে পড়েছে। ডেভিড মিলার, রাসি ভ্যান ডার ডুসেন এবং হেনরিখ ক্লাসেন-এর মত তারকারা ভারতীয় বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করছে। কটকেও একা ভুবনেশ্বর কুমার ছাড়া সে ভাবে কেউ দাগ কাটতেই পারেননি। ব্যাটারদের অবস্থাও তথৈবচ। কোনও ধারাবাহিকতা নেই। সেই সঙ্গে পন্তের নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

বন্ধ করুন