বাংলা নিউজ > ময়দান > হাফ-সেঞ্চুরি শেফালির, দ্বিতীয় ইনিংস ডিক্লেয়ার করে ডে-নাইট টেস্টে উত্তেজনা ফেরাল ভারত
হাফ-সেঞ্চুরি শেফালির। ছবি- আইসিসি।
হাফ-সেঞ্চুরি শেফালির। ছবি- আইসিসি।

হাফ-সেঞ্চুরি শেফালির, দ্বিতীয় ইনিংস ডিক্লেয়ার করে ডে-নাইট টেস্টে উত্তেজনা ফেরাল ভারত

  • অস্ট্রেলিয়ার সামনে টি-২০ সুলভ টার্গেট ঝুলিয়ে দেন মিতালিরা।

সাহসী সিদ্ধান্ত মিতালিদের। ঐতিহাসিক ডে-নাইট টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার সমান নতুন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিল ভারতের মহিলা ক্রিকেট দল।

কারারা ওভালে বৃষ্টিতে ম্যাচের প্রথম দু'দিনে বিস্তর সময় নষ্ট হয়। ফলে টেস্টের ফলাফল নির্ধারণের জন্য পর্যাপ্ত সময় পাওয়া যাবে কিনা, সে বিষয়ে তৈরি হয় সংশয়। ম্যাচ যখন নিশ্চিত ড্রয়ের দিকে এগচ্ছে বলে ধরে নেন সকলে, তখন ভারতীয় দল হঠাৎ করেই সাহসী সিদ্ধান্তে ম্যাচে প্রাণ ফেরানোর চেষ্টা করে।

প্রথম দফায় ভারত ৮ উইকেটে ৩৭৭ রান তুলে ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেয়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়া তাদের প্রথম ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ২৪১ রান তুলে। ভারত প্রথম ইনিংসের নিরিখে ১৩৬ রানের লিড নেয়।|

দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নেমে ভারত যথারীতি ইনিংস শুরু করে দারুণভাবে। তবে তারা ৩ উইকেটে ১৩৫ রান তুলে দ্বিতীয় ইনিংসও ডিক্লেয়ার করে দেয়। ফলে প্রথম ইনিংসের খামতি মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সামনে জয়ের জন্য লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ২৭২ রানের। ভারত শেষ ইনিংসে অজিদের ব্যাট করতে ডাকার সময় শেষ দিনে ৩২ ওভারের খেলা বাকি। সুতরাং, টি-২০ সুলভ গতিতে রান তুলতে পারলে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ম্যাচ জেতা অসম্ভব নয়। যদিও কাজটা কঠিন সন্দেহ নেই।

এক্ষেত্রে ভারতীয় দল অনায়াসে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং চালিয়ে গিয়ে নিজেদের রেকর্ড ভালো করার দিকে নজর দিতে পারত। তবে ম্যাচে ফলাফল নির্ধারণের তাগিদ চোখে পড়ে মিতালিদের মধ্যে।

দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের হয়ে অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরি করেন ওপেনার শেফালি বর্মা। তিনি ৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৯১ বলে ৫২ রান করে আউট হন। কেরিয়ারের দ্বিতীয় টেস্টে শেফালির এটি তৃতীয় অর্ধশতরান। শেফালি প্রথম ইনিংসে ৩১ রান করেছিলেন। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করা স্মৃতি মন্ধনা দ্বিতীয় ইনিংসে ৩১ রান করে আউট হন। এছাড়া পুনম রাউত করেন ৪১ রান।

বন্ধ করুন