বাংলা নিউজ > ময়দান > ঐতিহাসিক গোলাপি বলের টেস্টে ভারতের পারফরম্যান্স অনুপ্রেরণামূলক, দাবি ঝুলনের
দলকে শুভেচ্ছা জানালেন ঝুলন।
দলকে শুভেচ্ছা জানালেন ঝুলন।

ঐতিহাসিক গোলাপি বলের টেস্টে ভারতের পারফরম্যান্স অনুপ্রেরণামূলক, দাবি ঝুলনের

  • এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে স্মৃতি মন্ধানার ১২৭ রানের সুবাদে বড় রানের পাহাড় গড়ে ভারত। স্মৃতিও একাধিক নজির গড়েছেন। ঐতিহাসিক টেস্ট থেকে স্মৃতি দুরন্ত ছন্দ নিঃসন্দেহে বড় প্রাপ্তি। এই টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ঝুলনও তিনটি উইকেট নিয়েছেন। তবে টেস্টটি না জিততে পারার আক্ষেপটা তীব্র রয়েছে ঝুলনদের।

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে গোলাপি বলের ঐতিহাসিক টেস্টটি ড্র হয়ে গিয়েছে ঠিকই। তার আফসোসও রয়েছে ভারতীয় দলের। তবে এই টেস্টে বহু নজিরও গড়েছে মিতালি রাজের টিম। এর আগে অজিদের বিরুদ্ধে ১০টি টেস্ট খেলেছিল ভারত। কিন্তু প্রথম ইনিংসে এই প্রথম বার লিড পেলেন ভারতের মেয়েরা। প্রথম ইনিংসে ১৩৬ রানে এগিয়ে ছিল ভারত। কারণ অস্ট্রেলিয়া ৯ উইকেটে ২৪১ রানেই ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেয়। ডিক্লেয়ার না করলেও হয়তো দ্রুত ১ উইকেট হারিয়ে ফেলত অস্ট্রেলিয়া। তাতেও লিড পেত ভারতই। সে যাই হোক প্রথম ইনিংসে লিড পেয়ে নতুন নজির গড়ে ফেলেছেন ভারতের মেয়েরা।

এ ছাড়াও এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে স্মৃতি মন্ধানার ১২৭ রানের সুবাদে বড় রানের পাহাড় গড়ে ভারত। স্মৃতিও একাধিক নজির গড়েছেন। ঐতিহাসিক টেস্ট থেকে স্মৃতি দুরন্ত ছন্দ নিঃসন্দেহে বড় প্রাপ্তি। এই টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ঝুলনও তিনটি উইকেট নিয়েছেন। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য তাঁর সতীর্থদের একটি টুইট করে ঝুলন লিখেছেন, ‘গোলাপি বলের টেস্টে দলের অনুপ্রেরণামূলক পারফরম্যান্স। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টির জন্য টিমকে অনেক শুভেচ্ছা।’

তবে টেস্টটি না জিততে পারার আক্ষেপটা তীব্র রয়েছে ঝুলনদের। এই টেস্ট ড্র হওয়ার বড় কারণ হল বৃষ্টি। টেস্টের প্রথম দু'দিনের খেলা বৃষ্টির জন্য পুরো হতে পারেনি। ভেস্তে গিয়েছিল দু'দিনের খেলা। তবু চেষ্টা করেছিল ভারত।

 ৮ উইকেটে ৩৭৭ রান করে ডিক্লেয়ার করেন মিতালিরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪১ রানে ডিক্লেয়ার করে দেয়। ১৩৬ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটে ১৩৫ রান করে ভারত আবার ডিক্লেয়ার করে দেয়।

সব মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সামনে জয়ের জন্য লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ২৭২ রানের। হাতে ছিল ৩২ ওভার। এই পরিস্থিতিতে টি-২০ সুলভ গতিতে রান তুলতে হতে অস্ট্রেলিয়াকে। যেটা অসম্ভব ছিল। অস্ট্রেলিয়ার যখন ১৫ ওভারে ২ উইকেটের হারিয়ে ৩৬ রান, তখন দুই অধিনায়কের সম্মতিতেই ম্যাচটি ড্র ঘোষিত হয়।

বন্ধ করুন