বাড়ি > ময়দান > IPL 2020: ধোনির সঙ্গে হোটেল রুম নিয়ে 'দ্বন্দ্ব'-এর জেরেই কি ভারতে ফিরলেন রায়না?
ধোনি ও রায়না জুটি (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
ধোনি ও রায়না জুটি (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

IPL 2020: ধোনির সঙ্গে হোটেল রুম নিয়ে 'দ্বন্দ্ব'-এর জেরেই কি ভারতে ফিরলেন রায়না?

  • চেন্নাইয়ের মালিক শ্রীনিবাসনের কটাক্ষের সুরে মন্তব্য করেছেন, আইপিএল শুরু হলে রায়না বুঝতে পারবেন, কত টাকা হারাচ্ছেন তিনি।

কী কারণে দেশে ফিরেছেন সুরেশ রায়না, তার 'প্রকৃত কারণ' নিয়ে বিভিন্ন তত্ত্ব উঠে আসছে। এবার 'আউটলুক'-এর একটি প্রতিবেদনে জানানো হল, রায়নার দেশে ফেরার সিদ্ধান্তে বড় ভূমিকা পালন করেছে হোটেলের রুম নিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে 'দ্বন্দ্ব'।

রবিবার ওই সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় চেন্নাইয়ের মালিক এন শ্রীনিবাসন জানান, রায়না আচমকা দেশে চলে যাওয়ায় কিছুটা হতভম্ব চলে পড়েছে দল। তবে 'পরিস্থিতির উপর ধোনির পুরো নিয়ন্ত্রণ আছে।'

গত শনিবার হঠাৎ করেই দেশে ফিরে আসেন রায়না। দলের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়, 'ব্যক্তিগত কারণ' দর্শিয়ে এবারের আইপিএল থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন চেন্নাইয়ের ঘরের ছেলে। সেই 'ব্যক্তিগত কারণ' নিয়ে সরকারিভাবে কেউ মুখ না খুললেও একটি অংশের তরফে দাবি করা হচ্ছিল, দুই ক্রিকেটার-সহ ১৩ জন সদস্যের করোনাভাইরাস রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিলেন রায়না। সেজন্যই দেশে ফিরে গিয়েছেন তিনি। পরে অবশ্য আরও একটি খবর ছড়িয়ে পড়ে, পাঠানকোটে ডাকাতদের হানায় রায়নার পিসেমশাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। সেই কারণেই ভারতের উড়ান ধরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান।

যদিও 'আউটলুক'-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ২১ অগস্ট দুবাইয়ে পৌঁছানোর পর থেকেই হোটেলের ঘর নিয়ে অখুশি ছিলেন রায়না। বায়ো-বাবলের কড়া নিয়মের কারণে তাঁর দমবন্ধ লাগছিল এবং ধোনির মতো ঘর দেওয়ার দাবি জানান তিনি। তার জেরে প্রথম থেকেই রায়নার ঘরে ‘উপযুক্ত বারান্দা না থাকার’ বিষয়টি টিম হোটেলের মূল বিতর্কের বিষয় হয়ে ওঠে। এমনকী চেন্নাইয়ের অন্যতম মূলস্তম্ভকে শান্ত করতে পারেননি ‘মেন্টর’ ধোনিও। তারইমধ্যে দলের ১৩ জন সদস্যের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে রায়নার উদ্বেগ আরও বৃদ্ধি পায়।

শ্রীনিবাসন বলেন, ‘ক্রিকেটাররা হলেন ওপেরার প্রধান গায়িকার মতো..পুরনো দিনের মেজাজি অভিনেতাদের মতো। চেন্নাই সুপার কিংস বরাবরই একটি পরিবারের মতো এবং সব সিনিয়র খেলোয়াড়রাই একসঙ্গে থাকা শিখে গিয়েছেন। আমার ভাবনাচিন্তা হল, তুমি যদি অনিচ্ছুক বা অখুশি হও, তাহলে ফিরে যাও। কাউকে কোনও কিছু করার জন্য আমি জোর দিইনি…কখনও কখনও সাফল্যে মাথা ঘুরে যায়।’ 

আইপিএল যাত্রার শুরু থেকেই হলুদ জার্সি গায়ে চাপানো (দু'বছর বাদে) রায়নার অনুপস্থিতির বিষয় নিয়ে বেশি মাথা ঘামাতে রাজি নন ভারতীয় বোর্ডের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, ‘আমি এমএস (ধোনির) সঙ্গে কথা বলেছি এবং ও আমায় আশ্বস্ত করেছে যে সংখ্যাটা বাড়লেও চিন্তার কোনও কারণ নেই। জুম কলের মাধ্যমে ও খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলেছে এবং তাদের নিরাপদ থাকার আর্জি জানিয়েছে। আমি একটা দুর্দান্ত অধিনায়ক পেয়েছে। ধোনি সব কিছুতেই অবিচলিত থাকে। যা দলের সবাইকে ভরসা জোগাচ্ছে।’

শ্রীনি জানান, রায়না দেশে ফিরে যাওয়ায় রুতুরাজ গায়কোয়াড়ের সামনে প্রথম একদাশের দরজা খুলে গিয়েছে। তিনি বলেন, 'ও দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান এবং এখন সুযোগ পাবে। রুতুরাজ এবারের তারকাও হতে পারে। সেটা কে বলতে পারে?' 

তবে শ্রীনির এখনও বিশ্বাস, দলে ফিরে আসতে চাইবেন রায়না। সিএসকে প্রধান বলেন, ‘মরশুম এখনও শুরু হয়নি এবং রায়না নিশ্চয়ই বুঝতে পারবে, ও কী সুযোগ হারাচ্ছে এবং অবশ্যই যে পরিমাণ অর্থ ও হারাতে চলেছে।’

বন্ধ করুন