বাড়ি > ময়দান > IPL 2020: সেরা চার বিদেশিকে শুরুতে দলে না পাওয়া শাপে বর হতে পারে রাজস্থানের
স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকস ও জোস বাটলার। ছবি- গেটি ইমেজেস।
স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকস ও জোস বাটলার। ছবি- গেটি ইমেজেস।

IPL 2020: সেরা চার বিদেশিকে শুরুতে দলে না পাওয়া শাপে বর হতে পারে রাজস্থানের

  • BCCI-এর প্রোটোকলের জন্যই আমিরশাহি পৌঁছেও মাঠে নামতে পারবেন না স্মিথরা।

সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া দ্বি-পাক্ষিক সিরিজের জন্য একেবারে শুরু থেকে দু'দেশের ক্রিকেটারদের দলে পাবে না আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা। প্রায় সব দলেই ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার কম-বেশি ক্রিকেটার থাকলেও রাজস্থান রয়্যালসের ক্ষতি সবথেকে বেশি।

রাজস্থান দলে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার এমন চারজন ক্রিকেটার রয়েছেন, যাঁদের প্রথম একাদশে জায়গা করে নেওয়া কার্যত নিশ্চিত। ইংল্যান্ডের মাটিতে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজের জন্য রয়্যালসরা প্রথম ম্যাচে দলে পাবে না ক্যাপ্টেন স্টিভ স্মিথ, অল-রাউন্ডার বেন স্টোকস, উইকেটকিপার জোস বাটলার ও পেসার জোফ্রা আর্চারকে।

রাজস্থান সিওও জ্যাক ম্যাকক্রুম অবশ্য তার জন্য বিন্দুমাত্র হতাশ নন। বরং তিনি বিষয়টার মধ্যে ইতিবাচক দিক দেখছেন। তাঁর দাবি, ওয়ান ডে ও টি-২০ সিরিজ খেলে দু'দেশের ক্রিকেটাররা আইপিএল খেলতে নামতে, তাঁরা সম্পূর্ণ ম্যাচ ফিট হয়ে উঠবেন নিশ্চিত। এমন বড় মাপের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলার ফলে শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রস্তুত হয়েই আইপিএলে নামতে পারবেন স্মিথরা। বিশেষ করে স্মিথের জন্য এটা কার্যকরী হয়ে দাঁড়াতে পারে। কেননা, লকডাউনের পর ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা মাঠে নামলেও অস্ট্রেলিয়ার সেটাই হবে প্রথম টুর্নামেন্ট।

ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শেষ হবে ১৬ সেপ্টেম্বর। আইপিএল শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। সিরিজ শেষ করে সেদিনই লন্ডন থেকে দুবাই পৌঁছতে পারেন ক্রিকেটাররা। তবে বিসিসিআইয়ের প্রোটোকল অনুযায়ী আমিরশাহি পৌঁছে ৬ দিন কোয়ারান্টাইনে থাকতেই হবে ক্রিকেটারদের। সেই সময়ের মধ্যে প্রথম, তৃতীয় ও ষষ্ঠ দিনে করোনা টেস্টে নেগেটিভ হলে তবেই স্কোয়াডের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন ক্রিকেটাররা।

বন্ধ করুন