বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > CSK vs RR: একই অজুহাত, অজস্র ভুলের সাফাই ধোনির, পর্যাপ্ত সুযোগ ছাড়াই বলির পাঁঠা তরুণরা
আউট হয়ে ফিরছেন ধোনি। ২৮ বলে অবদান ২৮ রান। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
আউট হয়ে ফিরছেন ধোনি। ২৮ বলে অবদান ২৮ রান। (ছবি সৌজন্য আইপিএল)

CSK vs RR: একই অজুহাত, অজস্র ভুলের সাফাই ধোনির, পর্যাপ্ত সুযোগ ছাড়াই বলির পাঁঠা তরুণরা

আরও চোরাবালিতে তলিয়ে গেল চেন্নাই সুপার কিংস। আপাতত লিগ টেবিলের সবথেকে নীচে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিরা।

দশ ম্যাচ পরে লিগ টেবিলের সবথেকে নীচে চেন্নাই সুপার কিংস? সত্যিই! ২০২০ সালে কতকিছু অভাবনীয় ঘটনার সাক্ষী থাকতে হচ্ছে। আর সেই অভাবনীয় কাজটা সহজ করে দিচ্ছেন চেন্নাইয়ের খেলোয়াড়রা। বিশেষত ক্রমাগত ব্যর্থ হওয়া সত্ত্বেও কয়েকজনকেই খেলিয়ে যাচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। নিজেই বলছেন, স্লো পিচ। অথচ বাইরে বসে আছেন ইমরান তাহির। সঙ্গে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে অজস্র ভুল করলেন। তার সৌজন্যে ১৫ বল বাকি থাকতেই সাত উইকেটে ম্যাচ জিতে গেলেন স্টিভ স্মিথরা। নিটফল হিসেবে চোরাবালিতে আরও তলিয়ে গেল চেন্নাই। আর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দু'পয়েন্ট পেয়ে ভেসে উঠল রাজস্থান। (আইপিএলের যাবতীয় আপডেট, লাইভ স্কোর দেখুন এখানে)

CSK vs RR আপডেটস : 

  • ধোনির রেকর্ড গড়ার ম্যাচে চেন্নাইয়ের হার, রাজস্থানকে জেতালেন বাটলার
  • ১০ ম্যাচে ছ'পয়েন্ট নিয়ে লিগে টেবিলের সবথেকে নীচে আছেন ধোনিরা। চারটি ম্যাচেপ চারটি জিতলেই প্লে-অফে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। অন্যদিকে ১০ ম্যাচে আট পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠে এল রাজস্থান।
  • পরপর হারের পরও কেন দলে পরিবর্তন হচ্ছে না, তরুণরা সুযোগ পাচ্ছেন না, সেই প্রশ্নের জবাবে তরুণ ক্রিকেটারদের বলির পাঁঠা করেন ধোনি। বলেন, 'তাছাড়াও তরুণদের কিছু সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আমরা হয়তো ওঁদের এমন ঝলক দেখিনি, যা তাঁরা আমাদের দেখাতে পারত। সেজন্য অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের পরিবর্তে তাঁদের খেলানো হত।' সম্ভবত কেদার যাদবকে খেলানোর যুক্তি খাড়া করেন ধোনি। তবে  একইসঙ্গে তিনি
  • প্রথমে ব্যাটের পরও হারলেই দ্বিতীয় ইনিংসে পিচ ভালো হয়ে যাচ্ছে। কার্যত প্রতি ম্যাচে সেই যুক্তিই দিয়ে যাচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। সোমবারও সেই অজুহাত পালটাল না। ম্যাচের শেষে ধোনি বলেন, 'জোরে বোলারদের জন্য (পিচে) কিছু (সাহায্য) ছিল। আমি জাদেজাকে এনেছিলাম। কারণ আমি দেখতে চেয়েছিলাম, বল কতটা থেমে যাচ্ছে। কিন্তু প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসে বল থামেনি। তখন বিকল্প হিসেবে সিমারদের দিয়ে বল করিয়েছিলাম এবং বল পুরনো হয়ে যেতে স্পিনারদের নিয়ে আসার সুযোগ ছিল।'
  • দশ ম্যাচ পরে লিগ টেবিলের সবথেকে নীচে চেন্নাই সুপার কিংস? সত্যিই! ২০২০ সালে কতকিছু অভাবনীয় ঘটনার সাক্ষী থাকতে হচ্ছে। আর সেই অভাবনীয় কাজটা সহজ করে দিচ্ছেন চেন্নাইয়ের খেলোয়াড়রা। বিশেষত ক্রমাগত ব্যর্থ হওয়া সত্ত্বেও কয়েকজনকেই খেলিয়ে যাচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। নিজেই বলছেন, স্লো পিচ। অথচ বাইরে বসে আছেন ইমরান তাহির। সঙ্গে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে অজস্র ভুল করলেন। তার সৌজন্যে ১৫ বল বাকি থাকতেই সাত উইকেটে ম্যাচ জিতে গেলেন স্টিভ স্মিথরা। নিটফল হিসেবে চোরাবালিতে আরও তলিয়ে গেল চেন্নাই। আর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দু'পয়েন্ট পেয়ে ভেসে উঠল রাজস্থান।
  • ৪৮ বলে ৭৮ রান করলেন বাটলার। সাতটি চার ও দুটি ছক্কা মারলেন তিনি। ৩৪ বলে ২৮ রানে অপরাজিত থাকলেন স্মিথ।
  • একটা সময় ২৮ রানের মধ্যে তিন উইকেটে হারিয়ে ধুঁকছিল রাজস্থান। সেখান থেকে চাপ বাড়াতে পারলেন না ধোনিরা। তার পরিবর্তে ক্রমশ ম্যাচের রাশ নিজেদের নিতে থাকেন স্টিভ স্মিথ ও জস বাটলার। বিশেষত বাটলার। ইংরেজ ও অজি তারকার অপাজিত ৯৮ রানের জুটিতে অনায়াসে জিতে গেল রাজস্থান। গুরুত্বপূর্ণ  পয়েন্ট পেলেন স্মিথরা।
  • ১৫ বল বাকি থাকতেই চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে জিতল রাজস্থান। সাত উইকেটে জয় এল।
  • অর্ধশতরানের পর আরও হাত খুললেন বাটলার। পরপর ২ বলে ২ টি চার মারলেন। ১৫ তম ওভারে উঠল ১৬ রান। রাজস্থানের স্কোর তিন উইকেটে ১০৮ রান।
  • আবুধাবির পিচে সবাই সমস্যায় পড়েছেন। একমাত্র জস বাটলার যেন অন্য পিচে খেলছেন। পীযূষ চাওলাকে চার মেরে ৩৭ বলে অর্ধশতরান পূরণ করলেন বাটলার।
  • ১৩ তম ওভারে এলেন পীযূষ চাওলা। কলকাতা নাইট রাইডার্সের মতো কৌশল ধোনির মাথায়?
  • জস বাটলার এবং স্টিভ স্মিথ জুটিতে এগোচ্ছে রাজস্থান। বাটলার অপরাজিত ২০ বলে ৪১ রান করেছেন। স্মিথ করেছেন ২০ বলে আট রান।
  • বাঁ-দিকে ঝাঁপিয়ে এক হাতে ধোনির দুরন্ত ক্যাচ, দেখুন ভিডিও
  • ১২ তম ওভারে উঠল ১৩ রান। রাজস্থানের স্কোর তিন উইকেটে রান ৭৯। ৪৮ বলে চাই ৪৭ রান।
  • সপ্তম ওভারেই দীপক চোহারের কোটা শেষ করিয়ে দিলেন ধোনি। চার ওভারে একটি মেডেন দিয়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন চাহার। দিয়েছেন ১৮ রান।
  • ফিটনেস কম? বয়স হয়েছে? সেসব ধোনির উপর প্রভাব ফেলে না। দীপক চাহারের বলে বাঁ-দিকে ঝাঁপিয়ে সঞ্জু স্যাসন দুরন্ত ক্যাচ নিলেন ধোনি। খুব একটা ভালো বল ছিল না। বাঁ-দিকের বল স্যামসনের ব্যাটে চুমু খেয়ে চলে যায়। উইকেট পাওয়ার মতো বল ছিল না। কিন্তু দু'বল আগেই দুরন্ত বলে উইকেট পাননি চাহার। ৪.৩ ওভারে রাজস্থানের স্কোর তিন উইকেটে ২৮ রান। কাঁপুনি রাজস্থানের।
  • দায়িত্বজ্ঞানহীন শট রবিন উথাপ্পার। এই শটের জন্যই সম্ভবত তাঁকে পরের ম্যাচে বাদ পড়তে হবে।  হেজেলউডের শর্ট বলে স্কুপ মারতে গিয়ে ধোনি পর্যন্ত পৌঁছাতে পারলেন। হঠাৎ করেই কাঁপুনি রাজস্থানের। ৩.২ ওভারে রাজস্থানের স্কোর ২ উইকেটে ২৮ রান।
  • চার মারার পরের বলেই আউট হলেন বেন স্টোকস। এটাই এতক্ষণ দরকার ছিল চেন্নাইয়ের। ৩ ওভারে চেন্নাইয়ের স্কোর এক উইকেট ২৬ রান। ভালো বোলিংয়ের পুরস্কার পেলেন দীপক চাহার। ১১ বলে ১৯ রান করলেন স্টোক।
  • ভালো শুরু করল রাজস্থান। প্রথম ওভারে উঠল ১০ রান।
  • তথৈবচ অবস্থা চেন্নাই সুপার কিংসের। রবীন্দ্র জাদেজা ছাড়া কাউকেই তেমন খেলতে পারলেন না। ৩০ বলে ৩৫ রানে অপরাজিত থাকলেন জাদেজা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান করলেন ধোনি। ২৮ বলে ২৮ রান করলেন। একেবারেই হাত খুলতে পারলেন না। তার সৌজন্য ২০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১২৫ রান তুলল চেন্নাই।
  • ১৮ তম ওভারে সাত রান উটল। চেন্নাইয়ের স্কোর পাঁচ উইকেটে ১০৭ রান।
  • সুনীল গাভাসকর ধারাভাষ্যকার থাকলে নিশ্চয়ই বলতেন, কখনও মিস ফিল্ডিংয়ে রান নিতে নেই। আর সেটা করেই আউট হলেন ধোনি। এক রানের জন্য ঢিমেতালে দৌড়াচ্ছিলেন। কিন্তু আর্চার বল ফস্কাতেই দু'রানের জন্য দৌড়ান। কয়েক সেন্টিমিটারের জন্য রান আউট হয়ে যান। ২৮ বলে ২৮ রান করে আউট হলেন ধোনি।
  • দারুণ বোলিং রাহুল তেওটিয়ার। চার ওভারে ১৮ রান দিয়ে নিলেন এর উইকেট।
  • ১৫ তম ওভারে উঠল মাত্র চার রান। চেন্নাইয়ের রান চার উইকেট ৮৯ রান। চেন্নাইকে এবার রানের গতি বাড়াতে হবে। নাহলে রাজস্থানের জন্য কাজটা বেশ সহজ হয়ে যাবে। ক্রিজে আছেন ধোনি (১৯ বলে ১৬ রান) ও জাদেজা (১৬ বলে ১৮ রান)।
  • আইপিএলে চেন্নাইয়ের হয়ে ৪,০০০ রান পূর্ণ করলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।
  • ক্রিজে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাঁর সঙ্গে যোগ দিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। ১০ ওভার শেষে ধোনি করেছেন পাঁচ বলে ২ রান।
  • রীতিমতো বিপাকে চেন্নাই। ১০ ওভারে চার উইকেটে তাদের স্কোর ৫৬ রান। দশম ওভারের শেষ বলে প্যাভিলিয়নে ফিরলেন আম্বাতি রায়াডু। খুব যে ভালো বলে আউট হলেন, তা একেবারেই নয়। বরং উইকেট ছুড়ে দিয়ে এলেন। রাহুল তেওটিয়ার লেগ স্টাম্পের বলে সুইপ মারতে গিয়ে ব্যাটের উপরে লাগে। বল উপরে উঠে যায়। তা বেশি কসরত ছাড়াই ধরে ফেলেন সঞ্জু স্যামসন।
  • আবারও ডিআরএস অর্থাৎ ধোনি রিভিউ সিস্টেমের জাদু। কিছুক্ষণ আলোচনার পর নেন ডিআরএস নেন। তাতে দেখা যায় বল স্টাম্প মিস করছে। অনফিল্ড আম্পায়ার আউট দিয়েছিলেন।
  • এবার আউট হলেন শেন ওয়াটসন। একেবারে পরিকল্পনা মাফিক ফিল্ডার রেখেছিলেন স্মিথ। কার্তিক ত্যাগীর বলে ওয়াটসনের শট সোজা রাহুল তেওটিয়ার হাতে গেল। চার ওভারে চেন্নাইয়ের স্কোর ২ উইকেটে ২৬ রান।
  • ক্রমশ চাপ বাড়ছিল চেন্নাই সুপার কিংসের উপর। তার ফসল তুললেন আর্চার। ঘণ্টায় প্রায় ১৪৭ কিলোমিটারের শর্ট বলে কভারের উপর দিয়ে আপার কাট মারতে চেয়েছিলেন ফ্যাফ ডু'প্লেসিস। শর্ট কভারে ভালো ক্যাচ ধরলেন জস বাটলার। কিপিং গ্লাভস না থাকলেও কামাল করলেন। চেন্নাইয়ের স্কোর তিন ওভারে এক উইকেটে ১৩।
  • ভালো শুরু জোফ্রা আর্চার। স্যাম কারানকে প্রথম ওভারেই কী বাউন্সার দিলেন। উফ!
  • শুরু ম্যাচ। ব্যাট হাতে নেমেছেন স্যাম কারান ও ফ্যাফ ডু'প্লেসিস। বল হাতে জোফ্রা আর্চার।
  • ২০০ তম আইপিএল ম্যাচ নিয়েও একেবারে নির্লিপ্ত ধোনি। বললেন, 'আপনি (ধারাভাষ্যকরা) বললেন বলে জানলাম। ভালো লাগে। কিন্তু এটা শুধু একটা সংখ্যা। বেশি চোট ছাড়াই যে আমি এতদিন খেলতে পারছি, সেটার জন্য আমি ভাগ্যবান।'
  • চেন্নাই সুপার কিংসের প্রথম একাদশ : স্যাম কারান, ফ্যাফ ডু'প্লেসিস, শেন ওয়াটসন, আম্বাতি রায়াডু, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, দীপক চাহার, পীযূষ চাওলা, জস হেজেলউড এবং শার্দুল ঠাকুর।
  • মহেন্দ্র সিং ধোনি : আমরা প্রথমে ব্যাট করব। এটা ব্যবহৃত উইকেট। তাই ম্যাচ যত এগোবে পিচ তত স্লো হয়ে যেতে পারে। ডোয়েন ব্র্যাভো আগামী কয়েকটি ম্যাচে খেলতে পারবেন না। শুধু আমাদের নয়, চোট নিয়ে সব ফ্র্যাঞ্চাইজির উদ্বেগ আছে। কারণ খেলোয়াড়রা দীর্ঘদিন খেলার মধ্যে নেই। আমরা দুটি পরিবর্তন করেছি। জস হেজেলউড ও পীযূষ চাওলা দলে এসেছেন।
  • টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিল চেন্নাই সুপার কিংস।

বন্ধ করুন