বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > DC vs KKR: দিল্লি শিবিরে কাঁপুনি ধরিয়েও জিততে পারল না নাইট রাইডার্স
রাসেলকে ফেরানোর পর রাবাদাকে অভিনন্দন সতীর্থদের। ছবি- আইপিএল।
রাসেলকে ফেরানোর পর রাবাদাকে অভিনন্দন সতীর্থদের। ছবি- আইপিএল।

DC vs KKR: দিল্লি শিবিরে কাঁপুনি ধরিয়েও জিততে পারল না নাইট রাইডার্স

  • মর্গ্যান-ত্রিপাঠীর লড়াই ব্যর্থ করে জয় ছিনিয়ে নিল ক্যাপিটালস।

শারজায় কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে হাই স্কোরিং ম্যাচে উত্তেজক জয় দিল্লি ক্যাপিটালসের। আগাগোড়া ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে রাখলেও ইয়ন মর্গ্যান ও রাহুল ত্রিপাঠী শেষ বেলায় খেলার মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন প্রায়। যদিও কেকেআর শেষমেশ ফিনিশিং টাচ দিতে ব্যর্থ হয়।

প্রথমে ব্যাট করে দিল্লি ক্যাপিটালস নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ২২৮ রান তোলে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে কলকাতা নাইট রাইডার্স ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ২১০ রানে আটকে যায়। ১৮ রানের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করে ক্যাপিটালস।

দিল্লির হয়ে পৃথ্বী শ ৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ৪১ বলে ৬৬ রান করে আউট হন। শিখর ধাওয়ান ২টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ১৬ বলে ২৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন। ঋষভ পন্ত ৫টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১৭ বলে ৩৮ রান করে ক্রিজ ছাড়েন। স্টইনিস উইকেট দেন ৩ বলে ১ রান করে।

শ্রেয়স আইয়ার ৭টি চার ও ৬টি ছক্কার সাহায্যে ৩৮ বলে ৮৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। শ্রেয়স ২৬ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। হেটমায়ের নট-আউট থাকেন ৫ বলে ৭ রান করে। আন্দ্রে রাসেল ২টি এবং নাগারকোটি ও বরুণ ১টি করে উইকেট দখল করেন।

(আইপিএলের যাবতীয় আপডেট ও লাইভ স্কোর জানতে ক্লিক করুন এখানে।)

কেকেআরের হয়ে শুভমন গিল ২২ বলে ২৮ রান করে আউট হন। নারিন সাজঘরে ফেরেন ৩ রান করে। নীতিশ রানা ৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ৩৫ বলে ৫৮ রান করে ক্রিজ ছাড়েন। রাসেল ১৩, দীনেশ কার্তিক ৬ ও প্যাট কামিন্স ৫ রান করে প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটা লাগান।

কেকেআর একসময় ১৩.৩ ওভারে ১২২ রান তুলে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে। এমন পরিস্থিতি থেকে যখন দেড়শো রান পেরোনো মুশকিল দেখাচ্ছিল, ঠিক তখনই ক্রিজে ঝড় তোলেন ইয়ন মর্গ্যান ও রাহুল ত্রিপাঠী জুটি। দু'জনের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে কলকাতা জয়ের সম্ভাবনা তৈরি করে।

শেষে মর্গ্যান ১৮ বলে ৪৪ রান করে আউট হয়ে বসেন। তিনি ১টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন। সচরাচর ওপেন করতে নামা ত্রিপাঠী ৮ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৩টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ১৬ বলে ৩৬ রান করে বোল্ড হন। নাগারকোটি ও শিবম মাভির পক্ষে শেষ ওভারে মিরাকল ঘটানো সম্ভব হয়নি।

অ্যানরিচ ৩টি উইকেট নেন। ২টি উইকেট হার্ষাল প্যাটেলের। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন অমিত মিশ্র, কাগিসো রাবাদা ও স্টইনিস। ম্যাচের সেরা হয়েছেন শ্রেয়স। এই জয়ের সুবাদে ৪ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট সংগ্রহ করে দিল্লি ক্যাপিটালস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: দিল্লি: ২২৮/৪ (২০ ওভার), কলকাতা: ১১০/৮ (২০ ওভার), (দিল্লি ১৮ রানে জয়ী)।

বন্ধ করুন