বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > DC vs KXIP: ৬, ৪, ৪, ৪, ৬- শেষ ওভারে দিল্লিকে ম্যাচে ফেরালেন স্টইনিস

একেবারে শুরু থেকে ম্যাচের রাশ ছিল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হাতে। মহম্মদ শামির দুরন্ত বোলিংয়ে দিল্লি ক্যাপিটালস কোণঠাসা ছিল ইনিংসের ১৭ ওভার পর্যন্ত। শেষ তিন ওভারে হঠাৎই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন মার্কাস স্টইনিস। বিশেষ করে শেষ ওভারে ৩০ রান খচর করে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ম্যাচে ফেরার সুযোগ করে দেয় কিংস ইলেভেন। 

টস-ভাগ্য সঙ্গে দেওয়ায় ঘাসে ঢাকা অচেনা পিচে প্রথমে বোলিং নেওয়ার সুযোগ পেয়ে যায় পঞ্জাব। সামির ১৫ রানে ৩ উইকেট দিল্লির ব্যাটিং লাইনআপে ধস নামায়। ঋষভ পন্তকে নিয়ে শ্রেয়স আইয়ারের লড়াই ধসের মুখে কার্যত বালির বাঁধ দেওয়ার মতো ছিল। যতক্ষণ না অজি অল-রাউন্ডার বিধ্বংসী মেজাজে ধরা দেন, চালকের আসনে ছিলেন লোকেশ রাহুলরা।

(আইপিএলের লাইভ আপডেট ও লাইভ স্কোর জানতে ক্লিক করুন এখানে।)

১৭ ওভারে দিল্লির স্কোর ছিল ৬ উইকেটে ১০০। ১৮ তম ওভারে ১৩ রান ওঠে। ১৯ তম ওভারে শেল্ডন কটরেল অশ্বিনের উইকেট পেলেও খরচ করেন ১৪ রান। অর্থাৎ, ১৯ ওভারে দিল্লি দাঁড়িয়েছিল ৭ উইকেটে ১২৭ রানে। এমন পরিস্থিতি থেকে খুব বেশি হলে ২৪০ পর্যন্ত নিজেদের ইনিংসকে টেনে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবতে পারে যে কোনও দল।

স্টইনিস ভেবেছিলেন অন্য কিছুই। শেষ ওভারের জর্ডনকে ২টি ছক্কা ও ৩টি চার মারেন তিনি। একটি ওয়াইড, একটি নো বলে সিঙ্গল এবং শেষ বলে অ্যানরিচের ৩ রান মিলিয়ে মোট ৩০ রান ওঠে শেষ ওভারে। দিল্লি স্কোর বোর্ডে ৮ উইকেটে ১৫৭ রান তুলে ম্যাচে লড়াই করার রসদ পেয়ে যায়।

স্টইনিস মাত্র ২০ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন। শেষমেশ ৭টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ২১ বলে ৫৩ রান করে ম্যাচে প্রাণ ফিরিয়ে দেন অজি তারকা।

বন্ধ করুন