বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > IPL 2020: ৬ দিন নয়, ৩৬ ঘণ্টার কোয়ারান্টাইনেই মাঠে নামতে পারবেন স্মিথ-মর্গ্যানরা
স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকস ও জোস বাটলার। ছবি- গেটি ইমেজেস।
স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকস ও জোস বাটলার। ছবি- গেটি ইমেজেস।

IPL 2020: ৬ দিন নয়, ৩৬ ঘণ্টার কোয়ারান্টাইনেই মাঠে নামতে পারবেন স্মিথ-মর্গ্যানরা

  • স্থানীয় আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের অনুরোধ রাখলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

শুভব্রত মুখার্জি

রুট-ওয়ার্নারদের রুদ্ধশ্বাস একদিনের সিরিজ শেষের আগেই বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের তরফে বিশেষ অনুরোধ করা হয়েছিল। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদের আমিরশাহি পৌঁছনোর পর কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ কমানোর দাবি জানানো হয়েছিল।

যুক্তি দেখানো হয়েছিল, যেহেতু তাঁরা একটি বায়ো-বাবলে আগেই ছিলেন, তাই তাঁদের ক্ষেত্রে এটা বিবেচনা করা যেতেই পারে।অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে চলেছে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি দলগুলি। তার কারণ, সেই অনুরোধকে মান্যতা দিয়েছে বিসিসিআই।

এর ফলে যে দলগুলিতে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা রয়েছেন, তারা তাদেরকে প্রথম ম্যাচ থেকেই সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারদের মাঠে নামাতে পারবেন। 

ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে কোয়ারান্টাইনের নিয়ম শিথিল করেছে বিসিসিআই। তাঁদের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক ৬ দিনের কোয়ারান্টাইন কমিয়ে মাত্র ৩৬ ঘণ্টার করা হয়েছে। স্থানীয় আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি চূড়ান্ত করার দায়িত্ব পালন করেন স্বয়ং সৌরভ।

উল্লেখ্য, বাধ্যাতামূলক ৬ দিনের কোয়ারান্টাইনে থাকতে হলে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বেশিরভাগ ক্রিকেটার আইপিএলের শুরু থেকে মাঠে নামতে পারতেন না। কেকেআর অবশ্য প্রথম ম্যাচ থেকেই মাঠে নামাতে পারতেন মর্গ্যানদের। কেননা, তাদের প্রথম ম্যাচ ২৩ সেপ্টেম্বর। ৬ দিন কোয়ারান্টাইনে থাকতে হলেও মর্গ্যান-ব্যান্টনরা প্রথম ম্যাচের আগে সেই মেয়াদ পূর্ণ করতেন।

বন্ধ করুন