বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > IPL 2020-ফের বিতর্কে আম্পায়ার,এবার অভিযোগ ওয়ার্নারকে 'অনৈতিক' সাহায্যের
ডেভিড ওয়ার্নার (PTI)
ডেভিড ওয়ার্নার (PTI)

IPL 2020-ফের বিতর্কে আম্পায়ার,এবার অভিযোগ ওয়ার্নারকে 'অনৈতিক' সাহায্যের

  • ডাগ আউটে কমেন্ট্রির সময় সতীর্থ ব্রেট লি এবং সঞ্জয় বাঙ্গারকে এই বিষয়টি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন স্কট স্টাইরিস

আইপিএল হবে আর অ্যাম্পারিং নিয়ে বিতর্ক হবে না এমনটা যেন একেবারেই সম্ভব নয়। প্রতি বছর বিভিন্ন আম্পায়ারদের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্কের ঝড় ওঠে।

মঙ্গলবার দিল্লি ক্যাপিটালসকে কার্যত খড়কুটোর মতন উড়িয়ে দিয়ে জয় পেয়েছে ওয়ার্নারের নেতৃত্বাধীন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এই ম্যাচে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। করেছিলেন ঝকঝকে ৮৭ রান। ডেভিড ওয়ার্নারও করেন ব্যাট হাতে ৬৬ রান।তবে এই ম্যাচ আম্পায়ারকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা আম্পায়ার অনিল চৌধুরী হায়দরাবাদ অধিনায়ক ওয়ার্নারকে নাকি প্রত্যক্ষ সাহায্য করেছেন এমনটাই অভিযোগ। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের লেগ বিফোর আবেদন আম্পায়ার খারিজ করে দিলে তাকে রিভিউ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়নি। এই ক্ষেত্রে রিভিউ নিলে নাকি অহেতুক হাতে থাকা আপিল শেষ হয়ে যেত। অনিল চৌধুরী নাকি হায়দরাবাদের ডিআরএস বাঁচিয়ে দিয়ে সহায়তা করেছেন। যা পুরোপুরি আইনবিরুদ্ধ। ডাগ আউটে কমেন্ট্রির সময় সতীর্থ ব্রেট লি এবং সঞ্জয় বাঙ্গারকে এই বিষয়টি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন স্কট স্টাইরিস। তিনি বলেন 'ডিআরএস জমানার আগে নিজের সিদ্ধান্তের কারণ জানাতে আম্পায়াররা এমনটা জানাতেন। তবে এখন রিভিউ সিস্টেম থাকায় সংশ্লিষ্ট দলকে এমনটা জানানো অনৈতিক।

ডিআরএসের নিয়ম অনুযায়ী, অধিনায়ক কখনই কোনো সিদ্ধান্ত রিভিউ করার জন্য আম্পায়ারের সঙ্গে পরামর্শ করতে পারেন না। আইপিএলের নিয়মেও আছে কোনো অবস্থাতেই ডিআরএস নেওয়ার আগে আম্পায়ারের সঙ্গে কোনো ক্রিকেটার পরামর্শ করতে পারবেন না। অনফিল্ড আম্পায়ার যদি মনে করেন, তার কাছে প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষে প্রভাব তৈরি হচ্ছে, তাহলে রিভিউয়ের আবেদন বাতিল করতে পারেন।ড্রেসিংরুম থেকে ও এই ক্ষেত্রে কোন ইঙ্গিত গ্রহণযোগ্য নয়।'

বন্ধ করুন