বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > IPL 2020: দিল্লির হারে জমজমাট প্লে-অফের লড়াই, আরও সুযোগ বাড়ল KKR-এর
দিল্লির হারে জমজমাট প্লে-অফের লড়াই, আরও সুযোগ বাড়ল KKR-এর (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
দিল্লির হারে জমজমাট প্লে-অফের লড়াই, আরও সুযোগ বাড়ল KKR-এর (ছবি সৌজন্য আইপিএল)

IPL 2020: দিল্লির হারে জমজমাট প্লে-অফের লড়াই, আরও সুযোগ বাড়ল KKR-এর

  • আরও জমে উঠল প্লে-অফের লড়াই।

প্লে-অফের দৌড়ে থাকা দলগুলি সেটাই চাইছিল। আর তাই হল। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে দিল্লি ক্যাপিটালস হেরে যাওয়ায় এখনও প্লে-অফের তিনটি স্থান ফাঁকা থাকল। তার জেরে কলকাতা নাইট রাইডার্স-সহ পাঁচটি দলের সামনে প্লে-অফের দরজা আরও কিছুটা খুলল।

(কেকেআরের যাবতীয় খবর দেখুন এখানে)

এবারের আইপিএলে দুরন্ত শুরুর পর আচমকাই মাঝপথে ফর্ম হারিয়ে ফেলে দিল্লি। শুধু তাই নয়, একটানা তিন ম্যাচ হেরে রীতিমতো ছন্নছাড়া লাগছিল শ্রেয়স আইয়ারদের। সেই অবস্থায় শনিবার দুবাইয়ে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া ছিলেন তাঁরা। তা তো হল না। উলটে টানা চার ম্যাচে হেরে আরও বিপাকে পড়ে গেল দিল্লি। 

(আইপিএলের যাবতীয় আপডেট, লাইভ স্কোর দেখুন এখানে)

আপাতত ১৩ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন রিকি পন্টিংয়ের ছেলেরা। এক ম্যাচ কম খেলে সমসংখ্যক পয়েন্ট পেয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। তাছাড়াও আরও চারটি দলের সামনে ১৪ পয়েন্টে পৌঁছানোর সুযোগ আছে। সেক্ষেত্রে দিল্লি শেষ ম্যাচে হেরে গেলে নেট রানরেটের উপর শ্রেয়সদের নির্ভর করতে হবে। অন্যদিকে, সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে হেরে দিল্লির বিরুদ্ধে জিতলেও ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় হয়ে প্লে-অফে পৌঁছে যাবেন বিরাট কোহলিরা।

কেকেআরের প্লে-অফ ভাগ্য কেমন হতে পারে, দেখে নিন -

১) শেষ ম্যাচে কোহলিদের বিরুদ্ধে নামবে দিল্লি। সেই ম্যাচে হেরে গেলে দিল্লির পয়েন্ট হবে ১৪। একই পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় থাকতে পারে কিংস ইলেভন পঞ্জাব, কলকাতা নাইট রাইডার্স বা রাজস্থান রয়্যালস এবং সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। 

আপাতত নেট রানরেটের বিচারে সবথেকে এগিয়ে সানরাইজার্স (+০.৩৯৬)। ফলে চারটি দল ১৪ পয়েন্টে থাকলে তাদের প্লে-অফে যাওয়া নিশ্চিত। তারপরও পড়ে থাকবে আরও একটি জায়গা। সেজন্য লড়বে দিল্লি (-০.১৫৯), কলকাতা (-০.৪৬৭), রাজস্থান (-০.৩৭৭) এবং পঞ্জাব (-০.১৩৩)। 

২) শেষ ম্যাচে রাজস্থানকে হারিয়ে দিলে কেকেআরের পয়েন্ট হবে ১৪। রাজস্থানের পয়েন্ট হবে ১২। আর চেন্নাই সুপার কিংস যদি পঞ্জাবকে হারিয়ে দেয়, তাহলে কেকেআরের সামনে বাধা হবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং দিল্লি ক্যাপিটালস (শেষ ম্যাচে দিল্লি হেরে যাবে ধরে নিয়ে)। 

ডেভিড ওয়ার্নাররা দুটি ম্যাচ জিতলে ১৪ পয়েন্টে পৌঁছে যাবেন। নেট রানরেট (+০.৩৯৬) ভালো হওয়ায় তৃতীয় দল হিসেবে প্লে-অফে উঠে যাবে সানরাইজার্স। চতুর্থ দল হিসেবে প্লে-অফে উঠতে পারে কেকেআর। সেক্ষেত্রে দিল্লি ও কলকাতার নেট রানরেটের বিচার্য হয়ে দাঁড়াবে। তবে সানরাইজার্স একটি ম্যাচে হারলেও প্লে-অফে উঠে যাবে দিল্লি ও কলকাতা।

৩) বিরাটরা যদি সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে হেরে যান, তাঁদের পয়েন্ট থাকবে ১৪। আর দিল্লি যদি শেষ ম্যাচ জিতে যায়, তাহলে শ্রেয়সদের পয়েন্ট হবে ১৬। সেক্ষেত্রে দ্বিতীয় দল হিসেবে প্লে-অফে উঠে যাবে দিল্লি। তখন আবার বাকি দুই স্থানের জন্য লড়াইটা হবে কলকাতা, পঞ্জাব, ব্যাঙ্গালোর (+০.৪৮), রাজস্থান ও হায়দরাবাদের। হায়দরাবাদ যদি মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জিতে যায় তৃতীয় হিসেবে প্লে-অফে উঠে যাবে। চেন্নাই সুপার কিংস যদি পঞ্জাবকে হারিয়ে দেয়, তাহলে চতুর্থ স্থানের জন্য লড়বে কেকেআর (রাজস্থানের বিরুদ্ধে জিতবে ধরে) ও আরসিবি। 

৪) ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে জিতল হায়দরাবাদ। কিন্তু মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে হেরে গেলে ডেভিড ওয়ার্নারদের পয়েন্ট হবে ১২। সেক্ষেত্রে প্লে-অফে উঠতে পারবেন না তাঁরা। তখন শেষ ম্যাচে পঞ্জাব হেরে গেলে দিল্লি, ব্যাঙ্গালোর এবং কলকাতার (রাজস্থানের বিরুদ্ধে জিতবে ধরে) মধ্যে তিনটি দলই প্লে-অফে উঠে যাবে। দিল্লি এবং ব্যাঙ্গালোর ম্যাচে যে জিতবে, তারা দ্বিতীয় হয়ে প্লে-অফে যাবে। তৃতীয় ও চতুর্থ হিসেবে উঠবে কেকেআর এবং দিল্লি বা ব্যাঙ্গালোর (যে দল ম্যাচ হারবে)।

বন্ধ করুন