বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > নারিন-রানা-কামিন্স-বরুণ চতুর্ভুজে কুপোকাত দিল্লি, রাজকীয় প্রত্যাবর্তন KKR-এর
উচ্ছ্বাস কেকেআরের (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
উচ্ছ্বাস কেকেআরের (ছবি সৌজন্য আইপিএল)

নারিন-রানা-কামিন্স-বরুণ চতুর্ভুজে কুপোকাত দিল্লি, রাজকীয় প্রত্যাবর্তন KKR-এর

  • দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন কলকাতা নাইট রাইডার্সের।

প্রশ্নটা ছিল, ইতিহাস পালটাতে পারবে কলকাতা নাইট রাইডার্স? নাকি মরু শহরের চোরাবালিতে তলিয়ে যাবে? সেই ইতিহাস শুধু পালটানোই নয়, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে দুরমুশ হওয়ার পর রাজকীয়ভাবে প্রত্যাবর্তন করল কেকেআর। দাপটের সঙ্গে দিল্লি ক্যাপিটালসকে উড়িয়ে দিয়ে লিগ টেবিলে স্বস্তিতে থাকলেন নাইটরা। (আইপিএলের যাবতীয় আপডেট, লাইভ স্কোর দেখুন এখানে)

KKR vs DC আপডেটস:

  •  মর্গ্যানের আগে নারিনকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত কার ছিল, ফাঁস করলেন নাইট অধিনায়ক
  • ম্যাচের সেরা হলেন বরুণ চক্রবর্তী।
  • অষ্টমীতে দুর্ধর্ষ KKR, দিল্লির বিরুদ্ধে কী কী ইতিবাচক দিক পেলেন মর্গ্যানরা?
  • ১১ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় চতুর্থ স্থানেই থাকল কেকেআর। তবে এই বড় জয়ের ফলে আত্মবিশ্বাস তো বাড়লই। একইসঙ্গে নেট রানরেটেরও উন্নতি হল। অন্যদিকে ১১ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানেই থাকল দিল্লি।
  • রাজকীয় প্রত্যাবর্তন কলকাতা নাইট রাইডার্সের। দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৫৯ রানে উড়িয়ে দিল কেকেআর। নাইটদের ১৯৪ রানের জবাবে ২০ ওভারে ন'উইকেটে ১৩৫ রানের বেশি তুলতে পারল না দিল্লি। অনায়াসে জিতল কেকেআর।
  • তৃতীয় উইকেট পেলেন প্যাট কামিন্স। নিজের চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে রাবাডাকে আউট করলেন। বাউন্ডারিতে ক্যাচ ধরলেন রাহুল ত্রিপাঠী।
  • শেষপর্যন্ত ৪ ওভারে ২০ রান দিলেন বরুণ চক্রবর্তী। ১৮ ওভারে দিল্লির স্কোর সাত উইকেটে ১২৭ রান।
  • পাঁচ ম্যাচ পরে আবারও পাওয়ার প্লে'তে উইকেট KKR-এর, শেষ কবে পেয়েছিল, জানেন?
  • ১৬ ওভারে দিল্লির স্কোর সাত উইকেটে ১১২ রান। ২৪ বলে চাউ ৮৩ রান। ক্রিজে আছেন কাগিসো রাবাডা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন।
  • দুর্ধর্ষ বোলিং। মাস্টারস্ট্রোক ইয়ন মর্গ্যানের। ৩ ওভারে ১২ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নিলেন বরুণ চক্রবর্তী। এটাই এবার আইপিএলের সেরা বোলিং পারফরম্যান্স। তাও এমন একটা পিচে, যেখানে সাহায্য পাচ্ছেন পেসাররা।
  • এতক্ষণ ফিল্ডারদের সাহায্যের প্রয়োজন হচ্ছিল। ভাবটা ছিল যেন অনেক হয়েছে - এবার একটা বোল্ড করতেই হবে। নিজের তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে অক্ষর প্যাটেলকে বোল্ড করলেন। দুরন্ত।
  • পরপর দু'বলে দু'উইকেট! প্রথম বলে ক্যাচ ফস্কেছিলেন বরুণ। এবার তাঁর বলেই লং-অনের বাউন্ডারির গোড়ায় দারুণ ক্যাচ নিলেন কমলেশ নাগারকোটি। ১৩.৩ ওভারে দিল্লির স্কোর ৫ উইকেটে ৯৬ রান।
  • নিজের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই শ্রেয়সের ক্যাচ ফস্কেছিলেন বরুণ চক্রবর্তী। পরের বলেই শিমরন হেটমায়ারকে আউট করলেন।
  • ১২ তম ওভারে বল করতে এলেন বরুণ চক্রবর্তী। দু'বল করেই ঋষভ পন্থের উইকেট নিলেন। দিল্লির স্কোর ১১.২ ওভারে তিন উইকেটে ৭৬ রান। শনিবার ঠিক ছন্দে ছিলেন না পন্থ। রানের চাপ ক্রমশ বাড়ছিল। স্লগ সুুইপ খেলতে গিয়ে লং লেগে শুভমন গিলের হাতে ধরা পড়লেন। পন্থ করলেন ৩৩ বলে ২৭ রান।
  • ১০ ওভারে দিল্লির স্কোর ২ উইকেটে ৬৮ রান। ক্রিজে আছেন শ্রেয়স আইয়ার (২৫ বলে ২৭ রান) এবং ঋষভ পন্থ (৩০ বলে ২৬ রান)।
  • নয়া অ্যাকশনে বল করছেন সুনীল নারিন। বহুদিন পর বল করছেন তিনি।
  • সপ্তম ওভারে বোলিংয়ে এলেন লকি ফার্গুসন।
  • দীর্ঘদিন পর পাওয়ার প্লে'তে ভালো বল করল কেকেআর। ৬ ওভারে দিল্লির স্কোর ২ উইকেটে ৩৬ রান।
  • পঞ্চম ওভারে উঠল ১২ রান। জোড়া নো বল ও ওয়াইডের পর। পাঁচ ওভারে দিল্লির স্কোর ২ উইকেটে ৩৩ রান।
  • প্রসিধ কৃষ্ণ বল করছেন আবুধাবিতে। পা পড়ছে কর্নাটকে। পরপর দু'বল নো বল করলেন। যদিও দুটি ফ্রি হিটের বলই ভালো করলেন।
  • বড় ধাক্কা দিল্লির। ফিরলেন দিল্লির জোড়া শতরানকারী শিখর ধাওয়ান। এবারও উইকেট নিলেন প্যাট কামিন্স। ৬ বলে ৬ রান ধাওয়ান। ২.৩ ওভারে দিল্লির স্কোর ২ উইকেটে ১৩ রান। এবারের আইপিলের এই কোনও ম্যাচে একের বেশি উইকেট পেলেন কামিন্স।
  • পাঁচ ম্যাচ পরে পাওয়ার প্লে'তে উইকেট পেল কেকেআর। শেষবার চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে প্রথম ৬ ওভারের মধ্যে উইকেট পেয়েছিলেন নাইটরা।
  • বুম! প্রথম বলেই আউট অজিঙ্কা রাহানে। এতদিন পর চেনা প্যাট কামিন্সের দেখা মিলল। ০.১ ওভারে দিল্লির স্কোর এক উইকেটে ০ রান। এবারের আইপিএলে কামিন্সের চতুর্থ উইকেট। দীর্ঘদিন পর প্রথম পাওয়ার প্লে'তে উইকেট পেল কেকেআর।
  • রান তাড়া করতে নামল দিল্লি। ব্যাট হাতে শিখর ধাওয়ান এবং অজিঙ্কা রাহানে। বল হাতে প্যাট কামিন্স।
  •  অর্ধশতরান পূরণের পর কার নামের জার্সি দেখালেন নীতিশ রানা? সেই বিশেষ কারণ জেনে নিন
  • শেষ ১২ ওভারে উঠল ১৫০ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৯৪ রান তুলল কেকেআর। এখনও পর্যন্ত এবারের আইপিএলে প্রথমে ব্যাট করে কেকেআরের সর্বোচ্চ রান।
  • শেষ বলে আউট হলেন ইয়ন মর্গ্যান। ছক্কা মেরে ২০০ টপকাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তা হল না। ৯ বলে ১৭ রান করলেন।
  • আউট হলেন নীতিশ রানা। ৫৩ বলে করলেন ৮১ রান। শর্ট বলে বড় শট মারতে গিয়ে মিসটাইম করে ফেললেন। তা উপরে উঠে যায়। ধরা পড়লেন তুষার দেশপান্ডের হাতে। তবে নিজের কাজ করে গিয়েছেন রানা।
  • ১৯ তম ওভারে উঠল ১৪ রান। প্রথম চারটি বল দারুণ করেছিলেন রাবাডা। শেষ দু'বলে ছক্কা ও চার মারলেন ইয়ন মর্গ্যান। ১৯ ওভারে কেকেআরের স্কোর চার উইকেটে ১৮৪ রান। স্ট্রাইকে
  • অবশেষে নীতিশ রানা ও সুনীল নারিনের জুটি ভাঙল দিল্লি। চতুর্থ উইকেটে ৫৬ বলে ১১৫ রান যোগ করলেন তাঁরা। ১৬.৪ ওভারে কেকেআরের স্কোর চার উইকেটে ১৫৭ রান। কাগিসো বারাডার শর্ট বলে পুল মারলেন নারিন। খুব একটা খারাপ মারেননি। কিন্তু মাঠের বড় দিকে ছিল। ফলে বাউন্ডারি পেরোনোর আগে অজিঙ্কা রাহানে ক্যাচ ধরলেন। ৩২ বলে ৬৪ রান করলেন।
  • ১৬ তম ওভারে উঠল ৯ রান।
  • ১৫ ওভারে কেকেআরের স্কোর তিন উইকেটে ১৪২ রান। সেই ওভারে উঠল ১৫ রান।
  • সুযোগ এসেছিল। তবে কঠিন সুযোগ ছিল। তার সঙ্গেই ৫০ পূরণ করলেন। মাত্র ২৪ বলেই ৫০ করলেন নারিন। দুর্ধর্ষ ইনিংস। এতদিন ম্যাচে না থেকে যেন আগের ম্যাচের হিসাব পূরণ করছেন।
  • ১৩ ওভারে কেকেআরের স্কোর তিন উইকেটে ১১৩ রান।
  • দিল্লির বিরুদ্ধেই শেষবার ৫০ করেছিলেন। আবারও দিল্লির বিরুদ্ধে অর্ধশতরান পূরণ করলেন নীতিশ রানা। শেষপর্যন্ত কিছুটা ফর্মে ফিরলেন দিল্লির ছেলে। ১৩ তম ওভারে শেষ বলে চার মেরে সেই মাইলস্টোন পার করলেন। তবে  নিলেন ৩৫ রান। তাঁর ফর্মে ফেরা অত্যন্ত জরুরি ছিল।
  • ১২ তম ওভারে উঠল ১৭ রান। কেকেআরের স্কোর তিন উইকেটে ১০৩ রান।
  • ২৬ বলে ৫০ রানের পার্টনারশিপ করলেন সুনীল নারিন এবং নীতিশ রানা।
  • কেকেআরের আজব কৌশলকে সফল করতে সাহায্য করলেন শ্রেয়স আইয়ার। নারিন আসার পরের ওভারে বল দিলে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও তুষার দেশপান্ডেকে দিলেন। সেই উপহার গ্রহণ করলেন নারিন। নবম ওভারে উঠল ১৩ রান। দশম ওভারে উঠল ১৮ রান। ১০ ওভারে কেকেআরের স্কোর তিন উইকেটে ৭৫ রান। ১২ বলে ২৪ রান করেছেন নারিন। রানার অবদান ২২ বলে ২৪ রান।
  • পিচে বাউন্স আছে। আর পাঁচে এলেন সুনীল নারিন। বল করছেন রাবাডারা। আর কোন কৌশলে তাঁকে পাঠানো হল, সম্ভবত ইয়ন মর্গ্যান এবং ব্রেন্ডন ম্যাকাকালাম বলতে পারবেন।
  • লেগস্পিনারের কাছে আউট হননি। সেটাই সম্ভলত দীনেশ কার্তিকের কাছে সান্ত্বনা পুরস্কার হবে। শ্রেয়স স্লিপ রেখেছিলেন। গুড লেংথে বল করলেন কাগিসো রাবাডা। ভুল শট নির্বাচন করে প্যাভিলিয়নে ফিরলেন দীনেশ কার্তিক। ৭.২ ওভারে কেকেআরের স্কোর ৩ উইকেটে ৪২।
  • প্রথম ৬ ওভারে কেকেআরের উঠল ২ উইকেটে ২৬ রান। ক্রিজে আছেন নীতিশ রানা (১৪ বলে ১৩ রান) এবং দীনেশ কার্তিক (২ বলে ১ রান)।
  • কাগিসো রাবাডা, এনরিখ নোখিয়াকে আক্রমণের রাস্তা বছে নিয়েছিলেন রাহুল ত্রিপাঠী। কিন্তু নোখিয়ার দুর্ধর্ষ ইয়র্কারে তাঁর স্টাম্প ছিটকে গেল। দুর্দান্ত ইয়র্কার। ৫.৪ ওভারের স্কোর ২ উইকেটে ৩৫ রান। ১২ বলে ১৩ রান। নোখিয়ার গতি সামলাতে পারলেন না ত্রিপাঠী।
  • নীতিশ রানার বিরুদ্ধে শুরু থেকেই শর্ট বল কৌশল দিল্লির।
  • তিনে নামলেন রাহুল ত্রিপাঠী।
  • প্রথম ওভারে ভালো শুরু করেছিলেন। জোড়া বাউন্ডারি মেরেছিলেন। ভালো টাচে লাগছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারেই আউট হলেন শুভমন গিল। বল অবশ্য তেমন ভালো ছিল না। ভালো কাট মারেন। কিন্তু বল নীচে রাখতে পারেননি। ফলস্বরূপ পয়েন্টে অক্ষর প্যাটেলের হাতে জমা পড়লেন। গিল করলেন আট রান। কেকেআরের স্কোর ১.৫ ওভারে এক উইকেটে ১১ রান। অর্থাৎ ১১ ম্যাচেও অধরা কেকেআরের ওপেনিং জুটির কাছে অধরা ৫০ রান।
  • আবারও ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন করল কেকেআর। শুভমন গিলের সঙ্গী হলেন নীতিশ রানা।
  • ইতিহাসের চাকা ঘোরাতে পারবে KKR? নাকি লজ্জার ধাক্কায় বেজে গিয়েছে বিদায়ঘণ্টা?
  • জোড়া পরিবর্তন করল কেকেআর। দলে ফিরলেন সুনীল নারিন ও কমলেশ নাগারকোটি। বাদ পড়লেন কুলদীপ যাদব ও টম ব্যান্টন। কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রথম একাদশ : শুভমন গিল, সুনীল নারিন, রাহুল ত্রিপাঠী, নীতিশ রানা, ইয়ন মর্গ্যান, দীনেশ কার্তিক, প্যাট কামিন্স, লকি ফার্গুসন, কমলেশ নাগারকোটি, প্রসিধ কৃষ্ণা এবং বরুণ চক্রবর্তী।
  • জোড়া পরিবর্তন দিল্লি ক্যাপিটালস। দলে এলেন অজিঙ্কা রাহানে। বাদ পড়লেন পৃথ্বী শ। দলে এলেন এনরিখ নোখিয়া।
  • টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিল দিল্লি ক্যাপিটালস। শ্রেয়স আইয়ার বললেন, ‘উইকেটে কিছুটা ঘাস আছে। যা শুরুর দিকে আমাদের বোলারদের সাহায্য করবে।’

বন্ধ করুন