বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > KKR VS MI: জয় এসেছিল এই আবুধাবিতেই, মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে কবে কবে জিতেছে নাইট রাইডার্স?
২০১৯ সালের মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ইডেনে মারমুখী আন্দ্র রাসেল (ছবি সৌজন্য টুইটার @IPL)
২০১৯ সালের মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ইডেনে মারমুখী আন্দ্র রাসেল (ছবি সৌজন্য টুইটার @IPL)

KKR VS MI: জয় এসেছিল এই আবুধাবিতেই, মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে কবে কবে জিতেছে নাইট রাইডার্স?

  • একনজরে দেখে নিন কবে কবে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

এখনও পর্যন্ত আইপিএলের ইতিহাসে ২৫ বার মুখোমুখি হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। তার মধ্যে মাত্র ছ'টি ম্যাচে জিতেছে কেকেআর। একটি জয় এসেছিল এই আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামেই। যেখানে আজ (বুধবার) মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে নামছেন দীনেশ কার্তিকরা। একনজরে দেখে নিন কবে কবে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর সেই ম্যাচের যাবতীয় আপডেট, লাইভ স্কোর দেখতে এখানে ক্লিক করুন

1

তৃতীয় আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ইডেনে প্রথম ব্যাট করে আট উইকেটে ১৩৩ রান তুলেছিল মু্ম্বই। জবাবে ১৭.৩ ওভারে এক উইকেট হারিয়েই প্রয়োজনীয় রান তুলে নিয়েছিল কলকাতা। ৩৬ বলে ৪২ রান করেছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ৫৬ বলে ৫৭ রানে অপরাজিত ছিলেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম।চার ওভারে ২০ রান দিয়ে দু'উইকেট নিয়েছিলেন মুরলী কার্তিক। তিনি ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন।

2

২০১২ সালে ওয়াংখেড়েতে জিতেছিল কেকেআর। প্রথমে ব্যাট করে সাত উইকেটে ১৪০ রান তুলেছিল গৌতম গম্ভীরের দল। তারপর বল হাতে সুনীল নারিনের ভেল্কিতে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার ৩২ রান আগেই থেমে গিয়েছিল মুম্বই। ৩.১ ওভারে ১৫ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়েছিলেন নারিন। ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন তিনি।

3

২০১৪ সালের প্রথম পর্যায়ের আইপিএল হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে। উদ্বোধনী ম্যাচে আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল কলকাতা ও মুম্বই। জ্যাক কালিসের ৭২ রান (৪৬ বল) এবং মণীশ পান্ডের ৬৪ রানের সৌজন্যে প্রথমে ব্যাট করে পাঁচ উইকেটে ১৬৩ রান তুলেছিল কেকেআর। মরু শহরে সুনীল নারিনের জাদুতে আবারও পরাস্ত হয়েছিল মুম্বই। চার ওভারে ২০ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়েছিলেন। ৪১ রানে জিতেছিল কেকেআর। ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন কালিস। 

4

২০১৪ সালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচেও শেষ হাসি হেসেছিল কলকাতা। বোলাারদের সম্মিলিত চেষ্টায় মুম্বইকে ১৪১ রানে আটকে রেখেছিলেন নাইটরা। জবাবে রবিন উথাপ্পার ৮০ রানের সৌজন্যে আট বল বাকি থাকতেই ছ'উইকেটে ম্যাচ জিতেছিল কেকেআর। ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন উথাপ্পা। সেটাই আইপিএলের একমাত্র সংস্করণ, যে বার মুম্বইকে দু'বারই হারিয়েছে কলকাতা।

5

২০১৫ সালের নিজের পয়া ইডেনে ৯৮ রানে অপরাজিত থাকেন রোহিত শর্মা। শেষের দিকে কোরি অ্যান্ডারসনের ৫৫ রানের সৌজন্যে তিন উইকেটে ১৬৮ রান তুলেছিলেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। জবাবে টপ ও মিডল অর্ডারের দাপটে অনায়াসে ম্যাচ পকেটে পুরে নিয়েছিল কেকেআর। ৪৩ বলে ৫৭ রান করেছিলেন গৌতম গম্ভীর। মণীশ পান্ডের অবদান ছিল ২৪ বলে ৪০ রান। আর ২০ বলে ৪৬ রানে অপরাজিত থেকে কেকেআরের জয় নিশ্চিত করেছিলেন সূর্যকুমার যাদব। চার ওভারে ১৮ রানের বিনিময়ে দু'উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন মর্নি মর্কেল।

6

দ্বাদশ আইপিএলে ইডেনে প্রথমে ব্যাট করেছিল কেকেআর। দুর্দান্ত শুরু করেছিলেন শুভমন গিল (৪৫ বলে ৭৬ রান) এবং ক্রিস লিন (২৯ বলে ৫৪ রান)। শেষে বৈশাখের সন্ধ্যায় ইডেনে কালবৈশাখি নিয়ে এসেছিলেন আন্দ্রে রাসেল। মাত্র ৪০ বলে ৮০ রান করেছিলেন কলকাতার মাসলম্যান। সেই সৌজন্যে দু'উইকেটে ২৩২ রান তুলেছিল কেকেআর। প্রত্যুত্তরে হার্দিক পান্ডিয়ার ঝড় সামলে ৩৪ রানে জিতেছিলেন নাইটরা। ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন রাসেল।

বন্ধ করুন