বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > MI vs CSK: স্লিপ ফিল্ডার নেওয়া যাবে? সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং নিয়ে রসিকতা ধোনির
টসের সময় সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে নিরাপদ দূরত্বে দাঁড়িয়ে রোহিত-ধোনিরা। ছবি- আইপিএল।
টসের সময় সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে নিরাপদ দূরত্বে দাঁড়িয়ে রোহিত-ধোনিরা। ছবি- আইপিএল।

MI vs CSK: স্লিপ ফিল্ডার নেওয়া যাবে? সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং নিয়ে রসিকতা ধোনির

  • হোম টিমের অধিনায়ক নন, টস করেন ম্যাচ রেফারি।

আমিরশাহির করোনা প্রোটোকল এবং আইসিসি ও বিসিসিআইয়ের গাইডলাইন। সবমিলিয়ে করোনা সংক্রমণ থেকে দূরে থাকার চেষ্টায় রীতিমতো অতিষ্ঠ ক্রিকেটাররা। যদিও শেষমেশ মাঠে ফিরতে পারায় যারপরনাই খুশি মহেন্দ্র সিং ধোনিরা।

আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাভাকিবভাবেই সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের কড়া নির্দেশ মেনে চলতে হয় মুম্বই ও চেন্নাই, দু'দলের ক্রিকেটারদের। টসের সময় অত্যন্ত হালকা মেজাজে থাকা ধোনিকে এই নিয়ে রসিকতাও করতে শোনা যায়।

(আইপিএলের লাইভ আপডেট ও লাইভ স্কোর জানতে ক্লিক করুন এখানে)

টসের সময় প্রেজেন্টার হিসেবে মুরলি কার্তিক উপস্থিত থাকলেও ক্রিকেটারদের থেকে দূরত্ববিধি মেনে চলেন তিনি। ম্যাচ রেফারি এবং দুই অধিনায়কও পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখেন। সচরাচর হোম টিমের ক্যাপ্টেনকেই টস করতে দেখা যায়। এক্ষেত্রে টস করেন ম্যাচ রেফারি মনু নায়ার। দুই অধিনায়কের হাতেই ছিল মাইক্রোফোন।

টসের পর মুরলি কার্তিককে সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় স্বাভাবিকভাবেই সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের প্রসঙ্গে উত্থাপিত হয়। তখনই ধোনি মজাদার মন্তব্য করেন। ধোনি বলেন, ‘আমি ম্যাচ রেফারির কাছে জানতে চেয়েছিলাম যে, আমরা কি পার্স্ট স্লিপ রাখতে পারব? নাকি সেটা সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংবিধির আওতায় চলে আসবে।’ আসলে উইকেটকিপার ও স্লিপ ফিল্ডারদের পরস্পরের কাছাকাছি থাকতে হয় বলেই ধোনি এমন রসিকতা করেন।

বন্ধ করুন