বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > MI vs DC- ট্রেন্ট বোল্টকে মুম্বইয়ের কাছে দিল্লির বিক্রির সিদ্ধান্তে অখুশি টম মুডি
ট্রেন্ট বোল্ট
ট্রেন্ট বোল্ট

MI vs DC- ট্রেন্ট বোল্টকে মুম্বইয়ের কাছে দিল্লির বিক্রির সিদ্ধান্তে অখুশি টম মুডি

  • শেষ পর্যন্ত ফাইনালে বুমরাহর সঙ্গে জুটিতে দিল্লির বিরুদ্ধে বোল্ট কতটা কার্যকরী হয়ে ওঠেন, সেটাই দেখার।

আইপিএলের ইতিহাসে অন্যতম 'নবীন' দল দিল্লি ক্যাপিটালস। পন্ত,শ্রেয়স,পৃথ্বীর মতন তরুন প্রজন্মের প্রতিভাদের নিয়ে তৈরি তাদের কোর দল। ২০১৯ মরসুমে তারা তৃতীয় স্থানে শেষ করে। এখন পর্যন্ত তারা আইপিএলের ট্রফি ঘরে তুলতে পারেনি। এবার যদিও ফাইনালে উঠেছে তারা। 

২০২০ মরসুমের নিলাম শুরুর আগেই তারা দলগঠনে নেমে পড়ে। কিংস ইলেভেন পঞ্জাব থেকে রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং রাজস্থান রয়্যালস দল থেকে আজিঙ্কা রাহানেকে দলে ভিড়িয়ে তাদের ভারতীয় ক্রিকেটারদের দিকটি শক্তিশালী করেছিল তারা। কিন্তু এই সময়েই তারা এক অদ্ভুত সিদ্ধান্ত নেয়‌ । নিউ জিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্টকে তারা মরসুম শুরুর আগেই বিক্রি করে দেয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের কাছে।

 এই সিদ্ধান্তে অবাক হন অনেক বিশেষজ্ঞই। দিল্লির এই সিদ্ধান্ত তাদের কাছে বুমেরাং হয়ে যায়।যেই মরসুমে এখন পর্যন্ত ২২ টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। প্রথম কোয়ালিফায়ারে এই বোল্টের বলেই বিপদে পড়ে দিল্লি। বোল্টের পরপর দুটি বলে দুটি উইকেট নেওয়ার ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেনি দিল্লি। এই ম্যাচে ৫৭ রানে হারেন তারা।

এরপরেই সমালোচনা তুঙ্গে উঠেছে। প্রাক্তন সানরাইজার্স কোচ টম মুডি বলেন, 'আমার কাছে এটা একটা একস্ট্রাঅর্ডিনারি মুভ। আমার মনে হয় দিল্লি যখন ট্রেন্টকে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছে বিক্রি করছিল, তখন তাদের নিশ্চয়ই জানা ছিল না যে এবারের টুর্নামেন্ট আমীরশাহিতে হবে। যে কোন পরিবেশে বলকে সুইং করানোর ক্ষমতা রাখেন বোল্ট। আইপিএল ইতিহাসে পাওয়ার প্লেতে বোল্ট অন্যতম সফলতম বোলার। তাকে এইভাবে বিক্রি করে দেওয়ার কোন যুক্তি নেই। তাকে বিক্রি যদি করতেই হয় তাহলে নিলামে সব দলকেই সুযোগ দেওয়া উচিত ছিল।'

তবে দিল্লি অবশ্য বলতেই পারে বোল্টের অভাব বোধ করতে দেননি দক্ষিণ আফ্রিকার দীর্ঘকায় পেসার নকিয়া। শেষ পর্যন্ত ফাইনালে বুমরাহর সঙ্গে জুটিতে দিল্লির বিরুদ্ধে বোল্ট কতটা কার্যকরী হয়ে ওঠেন, সেটাই দেখার। 

 

বন্ধ করুন