বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > MI vs KKR: KKR-এর উপর দাপট বজায় মুম্বইয়ের, ১৯ বাকি বল থাকতে উড়ে গেলেন নাইটরা
ম্যাচ জয়ের পর উচ্ছ্বাস ডি'কক ও হার্দিকের (ছবি সৌজন্য আইপিএল)
ম্যাচ জয়ের পর উচ্ছ্বাস ডি'কক ও হার্দিকের (ছবি সৌজন্য আইপিএল)

MI vs KKR: KKR-এর উপর দাপট বজায় মুম্বইয়ের, ১৯ বাকি বল থাকতে উড়ে গেলেন নাইটরা

  • শুরুতেই ধাক্কা ইয়ন মর্গ্যানের।

কলকাতা নাইট রাইডার্স সম্ভবত পরের বছর থেকে ১২ টি ম্যাচ খেলার আবেদন জানাতে পারে আইপিএল কর্তৃপক্ষের কাছে। এমনিতেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে শোচনীয় রেকর্ড কেকেআরের। আর এবার সেই কাটা ঘায়ে নুনের ছিটের মতো দু'লেগেই রোহিত শর্মাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতেই পারল না কলকাতা। গোটা ম্যাচে কখনও মনে হয়নি, কোনও প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে। মনে হচ্ছিল, কত নেট রানরেট বাড়ানো যায়, সেজন্য নেমেছে মুম্বই। তার নিটফল হিসেবে ১৯ বলে বাকি থাকতেই আট উইকেটে জিতে গেলেন রোহিতরা।(আইপিএলের যাবতীয় আপডেট, লাইভ স্কোর দেখুন এখানে)

MI vs KKR আপডেটস: 

  • কলকাতা নাইট রাইডার্স সম্ভবত পরের বছর থেকে ১২ টি ম্যাচ খেলার আবেদন জানাতে পারে আইপিএল কর্তৃপক্ষের কাছে। এমনিতেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে শোচনীয় রেকর্ড কেকেআরের। আর এবার সেই কাটা ঘায়ে নুনের ছিটের মতো দু'লেগেই রোহিত শর্মাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতেই পারল না কলকাতা। গোটা ম্যাচে কখনও মনে হয়নি, কোনও প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে। মনে হচ্ছিল, কত নেট রানরেট বাড়ানো যায়, সেজন্য নেমেছে মুম্বই। তার নিটফল হিসেবে ১৯ বলে বাকি থাকতেই আট উইকেটে জিতে গেলেন রোহিতরা।
  • একচ্ছত্র আধিপত্য আরও বাড়ল মুম্বইয়ের। ১৯ বল বাকি থাকতেই আট উইকেটে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে উড়িয়ে দিল মুম্বই।
  • প্রতি ম্যাচে সেই একই বিষয়। প্রথমে উইকেট তুলতে পারছেন কেকেআর। এমন সময় উইকেট মিলছে, যখন ম্যাচ প্রায় হাতছাড়া হয়ে গিয়েছে। ১৩.৩ ওভারে মুম্বইয়ের স্কোর ২ উইকেটে ১১১ রান। এবার আউট  হলেন সূর্।কু
  • এতক্ষণ হাতেগোনা কয়েকটি ছাড়া কেকেআরের বোলারদের হাত থেকে ভালো বেরোয়নি। অবশেষে সেই একটা ভালো বলে রোহিত শর্মাকে আউট করলেন শিবম মাভি। পিচে পরে ভিতরের দিকে ঢুকল। তাতে হার মানলেন রোহিত। ১০.৩ ওভারে মুম্বইয়ের স্কোর এক উইকেটে ৯৪ রান। রোহিত করলেন ৩৬ বলে ৩৫ রান। কিন্তু বড্ড দেরি হয়ে গেল?
  • ন'ওভারে মুম্বইয়ের স্কোর বিনা উইকেটে ৭১ রান। অধিনায়ক বদলালেও কেকেআর বোলারদের বাজে ফর্মে কোনও পরিবর্তন হল না।
  • রান তাড়া শুরু করল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ব্যাট হাতে নেমেছে রোহিত শর্মা এবং কুইন্টন ডি'কক। বল হাতে শুরু ক্রিস গ্রিনের। আইপিএলের প্রথম বলেই চার খেলেন।
  • রাহুল চাহার : বল কিছুটা নীচু থাকছে। ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজ নয়। রাহুলের কথায় কি ভরসা পাবেন কেকেআর দুই স্পিনার?
  • কামিন্সের হাফ-সেঞ্চুরিতে মান বাঁচল নাইট রাইডার্সের -  এখানে পড়ুন
  • শেষ তিন ওভারে কেকেআর তুলল ৪০ রান।
  • শেষপর্যন্ত ৩৬ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন কামিন্স। পাঁচটি চার মারেন। সঙ্গে ছিল ছক্কা। মর্গ্যান প্রথমে একেবারে ধীরে খেলছিলেন। শেষ ওভারে দুই ছক্কায় নিজের স্ট্রাইক রেট কিছুটা ভালো করেন। তিনি ২৯ বলে ৩৯ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ বলেও ছক্কা মারেন তিনি।
  • একটা সময় পাঁচ উইকেটে ৬১ রান ছিল। সেখান থেকে দলকে টানলেন প্যাট কামিন্স এবং ইয়ন মর্গ্যান। মূলত আক্রমণের দায়িত্ব নিয়েছিলেন কামিন্স। ধরে খেলছিলেন মর্গ্যান। শেষপর্যন্ত ৫৭ বলে ৮৭ রানের অপরাজিত পার্টনারশিপ করলেন ইংরেজ-অজি তারকা।
  • শেষ ওভারে উঠল ২১ রান। নির্ধারিত ২০ ওভারে কেকেআরের স্কোর পাঁচ উইকেটে ১৪৮ রান।
  • ২০ তম ওভারের প্রথম বলেই চার মারলেন প্যাট কামিন্স। তার ফলে অর্ধশতরান পূরণ করলেন অজি তারকা। টি-টোয়েন্টিতে তাঁর প্রথম অর্ধশতরান। ৩৫ বলে পূরণ করলেন ৫০।
  • বড় ৬ টি বল কেকেআরের জন্য। যত বেশি রান উঠবে, তত পুঁজি বাড়বে বোলারদের। শুক্রবারের পিচ কিন্তু তেমন খারাপ নয়। দ্বিতীয় ব্যাটিংয়ের সময়ও বল ব্যাটে আসবে।
  • কলকাতার মুখ বাঁচালেন প্যাট কামিন্স।  ১৯ তম ওভারে উঠল ১৪ রান।
  • ১৫ ওভার শেষে নাইটদের স্কোর পাঁচ উইকেটে ৯৫ রান। ক্রিজে আছেন প্যাট কামিন্স (১৮ বলে ২৮ রান) এবং ইয়ন মর্গ্যান (১৭ বলে ১১ রান)।
  • কলকাতা নাইট রাইডার্সের টপ-অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা সম্ভবত প্যাট কামিন্সের থেকে ব্যাটিং দেখতে পারেন। তাঁর জোড়া চার ও এক ছক্কার সৌজন্য ১৩ ওভারে উটল ১৬ রান। কেকেআরের স্কোর পাঁচ উইকেটে ৮২।
  • একেবারে পরিকল্পনা মাফিক চলছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। আন্দ্রে রাসেল ক্রিজে জমাট হওয়ার আগেই আক্রমণে এলেন জসপ্রীত বুমরাহ। দুরন্ত শর্ট বলে বেসামাল হলেন রাসেল। বলের দিকে না তাকিয়ে নিজের ব্যাট উপরের দিকে তুলে ধরলেন। বুমরাহের একেবারে নিখুঁতভাবে রাসেলের ব্যাটে লেগে আকাশে উঠে গেল। ১০.৪ ওভারে মুম্বইয়ের স্কোর পাঁচ উইকেটে ৬১ রান।
  • অধিনায়কত্বের চাপ কমেও কিছু হল না। আউট হলেন দীনেশ কার্তিক। শুভমন গিল আউট হওয়ার পরের বলেই ফিরলেন প্যাভিলিয়নে। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে জঘন্য খেলার ঐতিহ্য বজায় রাখছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৭.৪ ওভারে কেকেআরের স্কোর চার উইকেটে ৪২ রান।
  • প্রথম থেকেই নাকানি-চোবানি খেতে শুরু করল কলকাতা নাইট রাইডার্স। অষ্টম ওভারেই পড়ল তৃতীয় উইকেট। এবার আউট হলেন শুভমন গিল। রাহুল চাহারের বল ছক্কা মারতে গিয়ে কায়রন পোলার্ডের হাতে জমা পড়লেন।
  • চারে নামলেন দীনেশ কার্তিক। দলের সেরা ব্যাটসম্যান নিজেকে চারে নামালেন না।
  • নীতিশ রানার দুর্বলতা যে শর্ট বল, তা বলার জন্য কেউ পুরস্কার পাবেন না। আর সেই বলেই রানাকে আউট করলেন নাথান কুল্টার-নাইল। ষষ্ঠ ওভারের তৃতীয় বলে লেগ সাইড ঘেঁষা শর্ট বলে উইকেটের পিছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন রানা। ৫.৩ ওভারে কেকেআরের স্কোর ২ উইকেটে ৩৩ রান।
  • দুর্ধর্ষ ক্যাচে তৃতীয় ওভারেই ফিরলেন রাহুল ত্রিপাঠী। বোল্টের শর্ট পিচ বলে ব্যাটের মাঝখান দিয়ে টাইমিং করেছিলেন। কিন্তু পয়েন্টে দুর্ধর্ষ ক্যাচ নিলেন সূর্যকুমার যাদব। রাহুলের মুখে হালকা হাসি। এই বলে উইকেট পেয়েছেন যে বিশ্বাস করতে পারছেন না খোদ বোল্টও। ৩ ওভারে কেকেআরের স্কোর এক উইকেটে ১৮ রান।
  • শুরু খেলা। ওপনিংয়ে নামলেন রাহুল ত্রিপাঠী এবং শুভমন গিল। বল হাতে ট্রেন্লট বোল্ট।
  • নেতৃত্ব হাতে পেয়েই টস জিতলেন মর্গ্যান, নাইটদের হয়ে IPL অভিষেক গ্রিনের - পড়ুন এখানে
  • মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে একটি মাত্র পরিবর্তন হয়েছে। দলে এসেছেন প্রাক্তন নাইট নাথান কুল্টার-নাইল। প্রথম একাদশ : রোহিত শর্মা, কুইন্টন ডি'কক, সূর্যকুমার যাদব, ইশান কিষাণ, হার্দিক পান্ডিয়া, কায়রন পোলার্ড, ক্রুণাল পান্ডিয়া, নাথান কুল্টার-নাইল, রাহুল চাহার, ট্রেন্ট বোল্ট এবং জসপ্রীত বুমরাহ।
  • ইয়ন মর্গ্যান : আমরা প্রথমে ব্যাট করব। উইকেট দেখে ভালো মনে হচ্ছে। আশা করছি, আমরা ভালো স্কোর তুলতে পারব। এটা (অধিনায়কত্ব পরিবর্তন) গতকাল (বৃহস্পতিবার) হয়েছে। ডিকে (দীনেশ কার্তিক) আমার কাছে এবং হেড কোচদের কাছে এসেছিলেন। দলের ভালো করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কার্তিক নিজের ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দিতে চাইছেন। এটা থেকেই বোঝা যাচ্ছে দলের মধ্যে কী সুন্দর সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে।
  • কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে অভিষেক হতে চলেছে ক্রিস গ্রিনের। এক ম্যাচ খেলেই বাদ পড়লেন টম ব্যান্টন। দলে ফিরলেন শিবম মাভি। কমলেশ নাগরকোটির পরিবর্তে তিনি খেলছেন। কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রথম একাদশ : রাহুল ত্রিপাঠী, শুভমন গিল, নীতিশ রানা, ইযন মর্গ্যান, দীনেশ কার্তিক, আন্দ্রে রাসেল, ক্রিস গ্রিন, প্যাট কামিন্স, শিবম মাভি, বরুণ চক্রবর্তী এবং প্রসিধ কৃষ্ণা।
  • টসে জিতে প্রথম ব্যাটিংয়ের  সিদ্ধান্ত নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

বন্ধ করুন