বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > RR vs KKR: যুব বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের তিন সতীর্থ এখন নাইটদের সম্পদ
উথাপ্পাকে আউট করার পর নাগারকোটিকে অভিনন্দন মর্গ্যানের। ছবি- আইপিএল।
উথাপ্পাকে আউট করার পর নাগারকোটিকে অভিনন্দন মর্গ্যানের। ছবি- আইপিএল।

RR vs KKR: যুব বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের তিন সতীর্থ এখন নাইটদের সম্পদ

  • রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে কলকাতার জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিলেন শুভমন, মাভি ও নাগারকোটি।

চোটের জন্য কমলেশ নাগারকোটিকে দীর্ঘ দু'টি মরশুম অপেক্ষা করতে হয়েছে আইপিএলে মাঠে নামার জন্য। শেষমেশ হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে কেকেআরের ম্যাচে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগে অভিষেক হয় তরুণ পেসারের। প্রথম ম্যাচে মাত্র ২ ওভার বল করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। উইকেট তুলতে না পারলেও মন্দ বোলিং করেননি। রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে নিজের দ্বিতীয় আইপিএল ম্যাচেই উইকেট তোলার কাজ শুরু করে দিলেন নাগারকোটি। আইপিএলে তাঁর প্রথম শিকার একদা নাইটদের ঘরের ছেলে হিসেবে পরিচিত রবিন উথাপ্পা।

(আইপিএলের লাইভ আপডেট ও লাইভ স্কোর জানতে ক্লিক করুন এখানে।)

দ্বিতীয় ম্যাচে নিজের প্রথম ওভারের প্রথম বলেই নাগারকোটি উথাপ্পাকে সাজঘরে ফেরান। পুরনো দলের বিরুদ্ধে রবিনের দিনটা মোটেও ভালো কাটেনি। ফিল্ডিং করার সময় সুনীল নারিনের সহজ ক্যাচ ছাড়েন তিনি। ব্যাট হাতে মাত্র ২ রান করে ক্রিজ ছাড়েন।

নাগারকোটি একই ওভারের চতুর্থ বলে আউট করেন রিয়ান পরাগকে। কাকতলীয়ভাবে রিয়ান ছিলেন যুব বিশ্বকাপের ভারতীয় দলে নাগারকোটির সতীর্থ। চার বলের ব্যবধানে দু'টি উইকেট নিয়ে কমলেশ বুঝিয়ে দেন, তাঁর উপর আস্থা রেখে কলকাতা নাইট রাইডার্স ভুল করেনি। শেষেমেশ এই ম্যাচেও ২ ওভার বল করেন তিনি। ১৩ রান খরচ করে নিয়েছেন দু'উইকেট।

একা নাগারকোটিই নন, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের আর এক সদস্য শিবম মাভি এই ম্যাচেও দুরন্ত বোলিং করেন। তিনি সঞ্জু স্যামসন ও জোস বাটলারের মূল্যবান উইকেট দু'টি তুলে নেন ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওভারে।

২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য শুভমন গিল ইতিমধ্যেই কেকেআরকে নির্ভরতা দিয়েছেন। গত ম্যাচে অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরি করেছিলেন গিল। এই ম্যাচে ৩৪ বলে ৪৭ রান করে আউট হন। সুতরাং, যুব বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের তিন সতীর্থ এবার কলকাতা নাইট রাইডার্সকে জেতানোর দায়িত্ব নিজেদের কাঁধে তুলে নেন।

বন্ধ করুন