বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > SRH vs DC: স্মার্ট ব্যাটিং, তেন্ডুলকরের প্রশংসা কুড়লেন ঋদ্ধিমান
ঋদ্ধিমান সাহা। ছবি- আইপিএল।
ঋদ্ধিমান সাহা। ছবি- আইপিএল।

SRH vs DC: স্মার্ট ব্যাটিং, তেন্ডুলকরের প্রশংসা কুড়লেন ঋদ্ধিমান

  • দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে ঝোড়ো হাফ-সেঞ্চুরি করেন বাংলার উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান।

অত্যন্ত স্মার্ট ব্যাটিং, উপভোগ্য ইনিংস। কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকর ঠিক এরকমই বাছা বাছা বিশেষণ ব্যবহার করলেন ঋদ্ধিমান সাহার ইনিংসকে বর্ণনা করতে গিয়ে। মাস্টার ব্লাস্টার স্পষ্ট জানালেন, কোনও স্লগ নয়। লাইন-লেনথ বুঝে শট নিয়েছেন বাংলার উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। সচিন এও বলেন যে, তিনি আগাগোড়া উপভোগ করেছেন ঋদ্ধিমানের তাণ্ডব।

মাত্র একটা ম্যাচের পারফর্ম্যান্সের নিরিখে ঋদ্ধিকে দল থেকে বাদ দিয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। শেষমেশ তাঁকে দলে ফেরায় ডু অর ডাই ম্যাচে। মাঠে ফিরেই ব্যাট হাতে উপেক্ষার জবাব দেন ঋদ্ধি। ১২টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৪৫ বলে ৮৭ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে দলকে বড় রানের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন টিম ইন্ডিয়ার টেস্ট উইকেটকিপার।

(আইপিএলের যাবতীয় আপডেট ও লাইভ স্কোর জানতে ক্লিক করুন এখানে।)

ঋদ্ধিমানের এমন ইনিংস দেখার পর সচিন টুইট করেন, ‘ঋদ্ধিমান সাহার অত্যন্ত স্মার্ট ব্যাটিং। বলের লাইন-লেনথ বুঝে শট নিয়েছে। এটাকে স্লগিং বলা যাবে না কখনই। অসাধারণ একটা ইনিংস খেলেছে, যেটা আমি অত্যন্ত উপভোগ করেছি।’

দিল্লির বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে চলতি আইপিএল মরশুমে কেকেআরের বিরুদ্ধে একটিমাত্র ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ পেয়েছিলেন ঋদ্ধিমান। সেই ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছিলেন, এমনটা বলা যাবে না কখনই। ৩১ বলে ৩০ রান করেছিলেন। টিম ম্যানেজমেন্টের মনে হয় স্লো ব্যাটিং করেছেন বাংলার উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। যদিও সেই ম্যাচে মণীশ পান্ডে ছাড়া আর কেউই আগ্রাসী ব্যাটিং করতে পারেননি।

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে প্রিয়ম গর্গের জায়গায় দলে ফেরন ঋদ্ধিমান। ২৭ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করে সমালোচকদের চুপ করিয়ে দেন তিনি। ৫০-এর গণ্ডি ছোঁয়ার পথে ঋদ্ধি ৮টি বাউন্ডারি মারেন।

শেষমেশ ৪৫ বলে ৮৭ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে আউট হন ঋদ্ধিমান। ১২টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন তিনি। যে রকম ব্যাট করছিলেন, তাতে নিশ্চিত শতরান মাঠে ফেলে এলেন বলা যায়।

বন্ধ করুন