বাংলা নিউজ > ময়দান > IPL 22: 'হায়দরাবাদের প্রাক্তন অধিনায়ক' বলে সম্বোধন ওয়াটসনের, দুরন্ত প্রত্যুত্তর ওয়ার্নারের
দুরন্ত প্রত্যুত্তর ওয়ার্নারের (Twitter/@IPL)
দুরন্ত প্রত্যুত্তর ওয়ার্নারের (Twitter/@IPL)

IPL 22: 'হায়দরাবাদের প্রাক্তন অধিনায়ক' বলে সম্বোধন ওয়াটসনের, দুরন্ত প্রত্যুত্তর ওয়ার্নারের

  • ২০১৬ এই ওয়ার্নারের নেতৃত্বেই নিজেদের ইতিহাসে একমাত্র আইপিএলের শিরোপা জিতেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। বৃহস্পতিবার রাতে ওয়ার্নারের ইনিংস সাজানো ছিল ১২ টি চার ও ৩ টি ছয়ে। দিল্লি ২০ ওভারে ২০৭ রান করতে সমর্থ হয়।

শুভব্রত মুখার্জি: ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের দীর্ঘদিনের সম্পর্কে ছেদ পড়েছে ২০২২ সালে এসে। ২০২১ সাল থেকেই তার পটভূমি যেন তৈরি হচ্ছিল। প্রথমে ফ্রাঞ্চাইজির তরফে ওয়ার্নারের অধিনায়কত্ব কারা হয়। পরবর্তীতে তাকে প্রথম একাদশ থেকেই বসিয়ে দেওয়া হয়। চলতি মরশুমে নিলামের আগেই তাকে রিলিজ করে দেয় হায়দরাবাদ দল। পরবর্তীতে ৬.২৫ কোটি টাকাতে তাকে দলে ভেড়ায় দিল্লি। বৃহস্পতিবার ওয়াংখেড়েতে সেই দিল্লি ক্যাপিটালস দলের কাছেই হারতে হয়েছে হায়দরাবাদ দলকে। ম্যাচে ৯২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দিল্লির জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন ওয়ার্নার। ম্যাচ শেষে এক আলাপচারিতায় দিল্লি দলের সহকারী কোচ শেন ওয়াটসন কথোপকথনের শুরুই করেন ওয়ার্নারকে হায়দরাবাদের প্রাক্তন অধিনায়ক বলে সম্বোধন করে। যার দুরন্ত প্রত্যুত্তর দেন এই মারকুটে স্বভাবের বাঁহাতি অজি ওপেনার।

প্রসঙ্গত ম্যাচে ৫৮ বলে ৯২ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন ওয়ার্নার। তার ইনিংসে ভর করেই জয়ের পথ প্রশস্ত হয় দিল্লির। উল্লেখ্য ২০১৬ এই ওয়ার্নারের নেতৃত্বেই নিজেদের ইতিহাসে একমাত্র আইপিএলের শিরোপা জিতেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। বৃহস্পতিবার রাতে ওয়ার্নারের ইনিংস সাজানো ছিল ১২ টি চার ও ৩ টি ছয়ে। দিল্লি ২০ ওভারে ২০৭ রান করতে সমর্থ হয়। ম্যাচের সেরার পুরস্কারও পান তিনি। ম্যাচ শেষে দিল্লির সহকারী কোচ মজার ছলে ওয়ার্নারের পরিচয় দেন 'হায়দরাবাদের প্রাক্তন অধিনায়ক' হিসেবে।

আইপিএলের নিজস্ব ওয়েবসাইটে এক সাক্ষাৎকারে ওয়াটসন বলেন 'আমি প্রথমেই যাব হায়দরাবাদের প্রাক্তন অধিনায়কের কাছে। আজকের ম্যাচের জন্য কি ভিতরে আগুন জ্বলছিল?' উত্তরে ওয়ার্নার জানান 'হ্যাঁ একদম সত্যি। এর থেকে অতিরিক্ত অনুপ্রেরণা আর কিসের দরকার?' যা শুনে হেসে ফেলেন ওয়াটসন।

পরবর্তীতে ওয়ার্নার আরও যোগ করেন 'টস হারার পরে আমাদের একমাত্র লক্ষ্য ছিল পাওয়ারপ্লেতে একটা খুব ভাল শুরু করা। সবসময় আমরা সেটাই বলি। একজন যদি ৮০ রান করতে পারে, তাহলে আমরা প্রায় সব ম্যাচ জিততে পারব। রভির (রভমান পাওয়েল) সঙ্গে খেলাটা দুর্দান্ত ছিল। আমি মনে করি যেভাবে ঋষি (ঋষভ) এসেই শ্রেয়স গোপালকে মারতে শুরু করে সেটাই ইনিংসে আমাদের হয়ে সব থেকে বড় টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাঁড়ায়।'

বন্ধ করুন