বাড়ি > ময়দান > IPL-এর জন্যই বাতিল হয়েছে T20 বিশ্বকাপ! ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন শোয়েব আখতার
বিসিসিআইয়ের দিকে আঙুল তুলছেন আখতার। ছবি- টুইটার।
বিসিসিআইয়ের দিকে আঙুল তুলছেন আখতার। ছবি- টুইটার।

IPL-এর জন্যই বাতিল হয়েছে T20 বিশ্বকাপ! ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন শোয়েব আখতার

  • ICC ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রতিও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস।

রাগে ফুঁসছেন শোয়েব আখতার। ঠিক যেমনটা ক্ষোভের আগুন জ্বলছে পাক ক্রিকেটমহলে। 

শুরু থেকে পিসিবি চেয়েছিল চলতি বছরে আইপিএল যেন কোনওভাবেই অনুষ্ঠিত না হয়। তাই একবার এশিয়া কাপকে হাতিয়ার করে বিসিসিআইকে আটকাতে চেয়েছিল পাক বোর্ড। পরে টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে জোরালো সওয়াল করে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগের রাস্তা বন্ধ করতে চেয়েছিল তারা। 

যদিও দিনের শেষে পাকিস্তানের কোনও প্রচেষ্টাই সফল হয়নি। প্রত্যাশা মতোই এশিয়া কাপ ও টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিল হয়ে যায় এবং অক্টোবর-নভেম্বরে আইপিএল আয়োজনের জন্য জায়গা পেয়ে যায় বিসিসিআই।

এই অবস্থায় বিশ্বকাপ বাতিলের পিছনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের হাত রয়েছে বলে ইঙ্গিত করে নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন আখতার। আইসিসি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দিকেও আঙুল তুলছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস।

আখতার দাবি করেন, বিসিসিআইকে আইপিএলের জন্য জায়গা ছেড়ে দিতেই টি-২০ বিশ্বকাপ বাতিল করেছে আইসিসি। এক্ষেত্রে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ভারতের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ বাঁচাতেই বিশ্বকাপ আয়োজনে পিছপা হয়েছে বলে মনে করছেন শোয়েব। পাক ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আখতারও একমত যে, এশিয়া কাপ ও টি-২০ বিশ্বকাপ, দু'টি টুর্নামেন্টেই নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আয়োজন করা যেত।

এশিয়া কাপ নিয়ে আখতার বলেন, ‘এশিয়া কাপ অনায়াসে আয়োজন করা যেত। সেখানে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখতে পাওয়ার দারুণ সুযোগ ছিল। সেটা হতে দিল না। আমি জানি এর পিছনে অনেক কারণ রয়েছে। সেগুলি আলোচনা করতে চাই না।’

পরে টি-২০ বিশ্বকাপ প্রসঙ্গে শোয়েব বলেন, ‘টি-২০ বিশ্বকাপও নির্ধারিত সূচি মেনে আয়োজন করা যেত। তবে আমি আগেই বলেছিলাম যে, ওরা (বিসিসিআই) টি-২০ বিশ্বকাপ হতে দেবে না। আইপিএলের ক্ষতি হতে দেওয়া যাবে না। এশিয়া কাপ ও টি-২০ বিশ্বকাপ চুলোয় যাক।’

শোয়েবের প্রশ্ন, বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়ার আগেই কীভাবে বিসিসিআই আইপিএল নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে? এর পিছনে একটাই যুক্তি হতে পারে যে, পর্দার আড়ালে আইসিসি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বিসিসিআইয়ের বোঝাপড়া হয়ে গিয়েছিল। 

এপ্রসঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নৈতিকতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন আখতার। মাঙ্কিগেট বিতর্কের প্রসঙ্গ টেনে শোয়েব বলেন, ‘কখনও ওরা (ভারত) মেলবোর্নে সহজ পিচ উপহার পাচ্ছে। কখনও কোনও ক্রিকেটারকে মাঙ্কি বলে পার পেয়ে যাচ্ছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছে জানতে চাইব, ওদের নৈতিকতা কোথায় হারিয়ে গিয়েছে? ক্রিকেট বলে আঁচড় কাটলে বাচ্চাদের তোমরা কাঁদিয়ে ছাড়ো। সেই তোমরাই কিনা সব মুখ বুজে মেনে নিচ্ছ!’

বন্ধ করুন