বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > ১১৭ কেজির ওয়াটার বয় থেকে CSK-তে সুযোগ পাওয়া! জানুন থিকসানার লড়াইয়ের গল্প
জানুন মাহিশ থিকসানার কঠিন লড়াইয়ের গল্প (ছবি-আইপিএল)
জানুন মাহিশ থিকসানার কঠিন লড়াইয়ের গল্প (ছবি-আইপিএল)

১১৭ কেজির ওয়াটার বয় থেকে CSK-তে সুযোগ পাওয়া! জানুন থিকসানার লড়াইয়ের গল্প

  • চেন্নাই সুপার কিংস একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছে সেখানে থিকসানা আরও বলেন, ‘২০১৭-১৮ সালে, আমি অনূর্ধ্ব-১৯ স্কোয়াডে ছিলাম। কিন্তু আমি খেলার সুযোগ পাইনি কারণ আমি কয়েকবার ফিটনেস পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছিলাম। ২০১৯ সালে, আমাকে তিন দিনের ম্যাচে ১০টি খেলার জন্য জল বয় করা হয়েছিল।’

আইপিএল-এর চলতি মরশুমের প্রথম তিন ম্যাচ হেরে ভীষণ চাপে চেন্নাই সুপার কিংস। মরশুমের প্রথম জয়ের খোঁজে সানরাইজার্স হায়দারবাদের বিরুদ্ধে ম্যাচে নেমেছে সিএসকে। সেই ম্যাচেই হলুদ ব্রিগেডের হয়ে নিজের অভিষেক করেছিলেন মাহিশ থিকসানা। ডোয়েন প্রিটোরিয়াসের বদলে সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে সুযোগ পেয়েছিলেন ২১ বছর বয়সি শ্রীলঙ্কান তারকা। থিকশানা এই ম্যাচে সিএসকের হয়ে মাঠে নামে এক দশকের দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটাচ্ছেন। ২০১২ সালে শেষবার সিএসকে জার্সিতে এক শ্রীলঙ্কান তারকাকে খেলতে দেখা গিয়েছিল। সেই মরশুমে সিএসকের হয়ে লঙ্কান তারকা পেসার নুয়ান কুলশেখরা খেলেছিলেন। তারপর দীর্ঘ ১০ বছরের অপেক্ষা। ১০ বছর পর সিএসকের জার্সিতে এবার লঙ্কান তারকা থিকসানাকে খেলতে দেখা গিয়েছিল।

কিন্তু সেটা ছিল শুরু। কারণ তারপর থেকে মাহিশ থিকসানা পারফরমেন্স দিয়ে দলে নিজের জায়গা পাকা করতে থাকেন। চলতি মরশুমে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে এখনও পর্যন্ত আটটি ম্যাচে খেলে শিকার করেচেন ১২টি উইকেট। এই আট ম্যাচে তিনি এখনও পর্যন্ত ২৩৭ রান খরচ করেছেন। এই মরশুমে তাঁর সেরা পারফরমেন্স হল ৩৩ রানে চার উইকেট। রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে তিনি এই কৃতিত্ব অর্জন করেন। এবার নিজের কেরিয়ার নিয়ে মুখ খুললেন শ্রীলঙ্কার এই স্পিনার। 

মাহিশ থিকসানা জানিয়েছেন, ‘অনুর্ধ্ব ১৯ খেলার সময় তখন আমার ওজন ছিল ১১৭ কেজি, তাই yo-yo টেস্টে আমার ওজন এবং ত্বকের ভাঁজ কমাতে আমাকে আরও কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছিল। ২০২০ সালে, আমি আমার ফিটনেসকে প্রয়োজনীয় স্তরে নিয়ে চলে আসি। আমি আমার শরীর নিয়ে আরও কঠোর পরিশ্রম করতে শুরু করেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘২০২০ সালে আমি অজন্তা মেন্ডিসের সাথে কথা বলি এবং ২০২২ সালে আমি এমএস ধোনির সাথে কথা বলেছি। আমি গত বছর নেট বোলার হিসেবে সিএসকে-তে ছিলাম। তারা আমার জন্য বিড করবে বা এই বছর আমাকে সুযোগ দেবে সেটা কখনও ভাবিনি।’

চেন্নাই সুপার কিংস একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছে সেখানে থিকসানা আরও বলেন, ‘২০১৭-১৮ সালে, আমি অনূর্ধ্ব-১৯ স্কোয়াডে ছিলাম। কিন্তু আমি খেলার সুযোগ পাইনি কারণ আমি কয়েকবার ফিটনেস পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছিলাম। ২০১৯ সালে, আমাকে তিন দিনের ম্যাচে ১০টি খেলার জন্য জল বয় করা হয়েছিল। তাই আমি জানতাম যে আমি ব্যর্থ হলে, আমাকে আবার জলের বোতল বহন করতে হবে। কিন্তু আমি আমার নিজের উপর বিশ্বাস রেখেছিলাম এবং কখনও হার না মানা মনোভাবটা রেখেছিলাম। এই কারণেই আমি ২০২২ সালে এখানে এসেছি।’

মাহিশ থিকসানা চেন্নাই নিয়ে বলতে গিয়ে জানিয়েছেন, ‘আসলে, আমি সিএসকে পছন্দ করতাম কারণ আমি এমএস ধোনিকে খুব পছন্দ করি। এটা আসলে অবিশ্বাস্য, গতকাল আমি তার সাথে টেবিল টেনিস খেলেছি। এটা তার সাথে খেলা এবং তার অধীনে এখন খেলা একটি লক্ষ্য মত। ক্রিকেট, ফুটবল বা টেবিল টেনিস হোক তার অনেক দক্ষতা রয়েছে। আমার মনে হয় সে যে কোন কিছু করতে পারে। এখানে খেলা একটি স্বপ্ন পূরণের মতো।’

বন্ধ করুন