বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > রগচটা হার্দিক থেকে বেশ কিছু ফ্যাক্টর IPL 2023-এ চ্যাম্পিয়ন GT-কে চিন্তায় রাখবে
আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়ে গুজরাট টাইটানসের শোভাযাত্রা। ছবি: পিটিআই

রগচটা হার্দিক থেকে বেশ কিছু ফ্যাক্টর IPL 2023-এ চ্যাম্পিয়ন GT-কে চিন্তায় রাখবে

  • হার্দিকের মাথা গরম করার স্বভাব কিন্তু টাইটানসের বড় প্রতিবন্ধকতা হতে পারে। ফাইনালের দিন আউট হওয়ার পর যে ভাবে তিনি শুভমন গিলের উপর মাথা গরম করেছেন, তাতে তাঁর রগচটা স্বভাবের নির্দশন ফের পাওয়া গিয়েছে। ধোনির সঙ্গে তুলনা হলেও, তাঁর মতো ক্যাপ্টেন কুল কিন্তু হার্দিক নন। বরং তিনি অনেক বেশি রগচটা।

এ বার আইপিএলের মেগা নিলামের পর ক্রিকেট পণ্ডিতরা গুজরাট টাইটানসকে ধারেভারে কিছুটা পিছিয়েই রেখেছিল। কিন্তু সেই টিমই সকলকে টেক্কা দিয়ে ২০২২ আইপিএল চ্যাম্পিয়ন। টিম গেম আর ধারাবাহিক পারফরম্যান্স ধরে রেখেই এই সাফল্য। লিগ পর্ব থেকেই ধারাবাহিক ভাবে ভালো খেলেছে টাইটানস। তারা কিন্তু ফ্লুকে ট্রফি জেতেনি।

টাইটানস ১৪ ম্যাচের মধ্যে ১০টিতে জিতে ২০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে। সেই সঙ্গে লিগ শীর্ষে থেকে প্লে-অফে পৌঁছায়। ফার্স্টবয়ের মতোই কিন্তু প্লে-অফে খেলে তারা। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে আইপিএল ২০২২-এর প্রথম কোয়ালিফায়ারে রাজস্থান রয়্যালসকে দাপটের সঙ্গে ৭ উইকেটে পরাজিত করে ফাইনালে ওঠে গুজরাট টাইটান।

মজার বিষয় হল, ফাইনালেও কোয়ালিফায়ার ওয়ানেরই যেন পুনরাবৃত্তি ঘটে। সেই রাজস্থান আর টাইটানস মুখোমুখি হয়। সেই ম্যাচে রাজস্থানকে সেই ৭ উইকেটেই হারায় গুজট টাইটানস। আইপিএলের অভিষেকেই তারা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পায়।

তবে এই মরশুমে দাপটের সঙ্গে টাইটানস জিতলেও কিছু বিষয় কিন্তু বেশ চিন্তায় রাখবে জিটি কর্তৃপক্ষকে:

১) রগচটা হার্দিক- হার্দিক পাণ্ডিয়ার মাথা গরম করার স্বভাব কিন্তু গুজরাট টাইটানসের বড় প্রতিবন্ধকতা হতে পারে। ফাইনালের দিন আউট হওয়ার পর যে ভাবে তিনি শুভমন গিলের উপর মাথা গরম করেছেন, তাতে তাঁর রগচটা স্বভাবের নির্দশন ফের পাওয়া গিয়েছে। মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে তুলনা হলেও, তাঁর মতো ক্যাপ্টেন কুল কিন্তু হার্দিক নন। বরং তিনি অনেক বেশি রগচটা।

২) লাক ফ্যাক্টর- ধারাবাহিক ভাবে পারফরম্যান্স করে চ্যাম্পিয়ন হলেও কিন্তু কিছুটা লাক ফ্যাক্টর রাজস্থানের সঙ্গে কাজ করেছে বলে মনে হয়। আইপিএলের প্রথম বছর অর্থাৎ ২০০৮ সালে যেমন রাজস্থান রয়্যালস প্রয়াত কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নের নেতৃত্ব দাপটের সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। কিন্তু তার পর থেকে ১৪ বছরের খরা। অবশেষে ২০২২ সালে রাজস্থানে ফাইনালে উঠলেও, শেষ রক্ষা হয়নি। এ রকমটা টাইটানসের সঙ্গেও ঘটতে পারে বলে অনেকের ধারণা। 

৩) ওপেনিং জুটি- ওপেনিং জুটি নিয়ে শুরু থেকে সমস্যা ছিল। পরে অবশ্য শুভমন গিল এবং ঋদ্ধিমান সাহা খুব খারাপ খেলেননি। তবে দুই ডানহাতি ব্যাটার হওয়াটা কিছুটা হলেও চাপের। ওপেনিংয়ে ডান হাতি-বাঁ হাতি কম্বিনেশন নিঃসন্দেহে সবচেয়ে ভালো।

৪) পেসার নিয়ে প্রশ্ন- মহম্মদ শামি নিঃসন্দেহে ভালো বোলিং করেছে। যশ দয়াল কিছুটা সাপো

 

What are the things that may go against GT next year ( Tania)

 

হার্দিকের মাথা গরম

লাক ফ্যাক্টর- হার্দিক নিজেই বলেছেন

ওপেনিং জুটি- ঋদ্ধিমান সাহা, শুভমন গিল-- ডান হাতি

শামি, দয়াল, রশিদ খান 

লকি ফার্গুসনকে 

বন্ধ করুন