বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > করোনা পজিটিভ CSK-র বোলিং কোচ বালাজি, অনিশ্চয়তায় দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা বাকি IPL ম্যাচগুলি
লক্ষ্মীপতি বালাজি। ছবি- টুইটার।
লক্ষ্মীপতি বালাজি। ছবি- টুইটার।

করোনা পজিটিভ CSK-র বোলিং কোচ বালাজি, অনিশ্চয়তায় দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা বাকি IPL ম্যাচগুলি

  • স্থগিত রাখা হতে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ম্যাচও।

দুই কেকেআর তারকা করোনা পজিটিভ চিহ্নিত হওয়ায় থমকে গিয়েছে আইপিএলের গতি। স্থগিত হয়ে গিয়েছে সোমবারের কেকেআর বনাম আরসিবি ম্যাচ। তবে এখানেই শেষ নয়, চলতি আইপিএলে করোনার বাধায় আরও দীর্ঘ হতে পারে সাময়িক এই বিরতি। তেমনটাই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কলকাতার বরুণ চক্রবর্তী ও সন্দীপ ওয়ারিয়র করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সোমবার আইপিএলের কোনও ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়নি। আমদাবাদে কোহলিদের সঙ্গে কেকেআরের ম্যাচ পরবর্তী সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। তবে বিপদ দেখা দিয়েছে অন্যদিকে।

চেন্নাই সুপার কিংসের বোলিং কোচ লক্ষ্মীপতি বালাজি করোনা আক্রান্ত হওয়ায় দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা বাকি আইপিএল ম্যাচগুলি নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। বালাজি যেহেতু সিএসকে শিবিরের সক্রিয় সদস্য এবং সাপোর্ট স্টাফ থেকে ক্রিকেটার, সকলের সঙ্গেই অবাধ মেলামেশা তাঁর, তাই চেন্নাই দলের বাকি সদস্যরা আপাতত নেগেটিভ হলেও পরবর্তী সময়ে কোভিড পজিটিভ চিহ্নিত হবেন না, এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই। তাই বিসিসিআই অন্তত পক্ষে দিল্লির পরবর্তী দু'টি ম্যাচ স্থগিত করার কথা ভাবছে।

এক সিনিয়র বিসিসিআই কর্তা সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘সিএসকের ক্রিকেটাররা নেগেটিভ হলেও বালাজির করোনা পজিটিভ হওয়া চিন্তার বিষয়। সাধারণত বহু আক্রান্তের ক্ষেত্রে পঞ্চম ও ষষ্ঠ দিনে উপসর্গ দেখা দিতে দেখা গিয়েছে। দিল্লিতে পরের ২টি ম্যাচ আয়োজন করা নিরাপদ হবে কিনা, সেবিষয়ে আলোচনা চলছে।’

সংশ্লিষ্ট বোর্ড কর্তা আরও বলেন, ‘বালাজি মুম্বই ম্যাচের সময় চেন্নাইয়ের ডাগ-আউটে ছিলেন এবং ম্যাচের আগে ও পরে স্বাভাবিকভাবেই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ক্রিকেটারদের সান্নিধ্যেও এসেছেন। এখন আপনি প্রত্যহিক করোনা টেস্টের রাস্তায় হাঁটতে পারেন। তবে ঠিক যেমন কেকেআর বনাম আরসিবি ম্যাচ স্থগিত রাখা হয়েছে, তেমনই মঙ্গলবারের সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে মুম্বইয়ের ম্যাচ এবং বুধবারের চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে রাজস্থানের ম্যাচও পরবর্তী সময় আয়োজন করা হতে পারে।’

তেমন হলে কেকেআরের মতো চেন্নাই দলকেও ৬ দিনের কোয়ারান্টাইনে পাঠানো হতে পারে। যদিও দিল্লি লেগের ম্যাচগুলি যেহেতু ৮ মে'র মধ্যে শেষ করতে হবে, তাই পরবর্তী সময়ে এই ম্যাচগুলি আয়োজন করা সমস্যার হয়ে দেখা দিতে পারে। বিসিসিআইয়ের তরফে অবশ্য এখনও কোনও সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি।

বন্ধ করুন