বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > CSK vs RCB: ধোনির একটি চালেই আউট কোহলি, সেই ভিডিয়ো না দেখলে বড় মিস করবেন

CSK vs RCB: ধোনির একটি চালেই আউট কোহলি, সেই ভিডিয়ো না দেখলে বড় মিস করবেন

ধোনির চালেই কুপোকাত কোহলি।

রবীন্দ্র জাদেজা এ বার চেন্নাইয়ের অধিনায়ক হলেও, বকলমে কিন্তু দল চালাচ্ছেন ধোনিই। আর প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের বিচক্ষণতা নিয়ে কোনও প্রশ্নই ওঠে না। তিনি যে খেলাটা কতটা ভালো ভাবে রিড করতে পারেন, সেটা মঙ্গলবার আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল। মাহির এক চালেই সোজা সাজঘরে কোহলি।

মঙ্গলবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের ইনিংসের পঞ্চম ওভারে চেন্নাই সুপার কিংসের মুকেশ চৌধুরী বল করতে আসেন। স্ট্রাইকে ছিলের বিরাট কোহলি। ওভার শুরুর আগেই ধোনি হঠাৎ করেই ফাইন লেগে দাঁড়িয়ে থাকা শিবম দুবেকে ডিপ স্কোয়ার লেগে যেতে বলেন। মুকেশ ওভারের প্রথম বলটি কিছুটা শর্ট দেন। কোহলি সেই বলে হাওয়ায় শট খেলেন আর যা সোজা ডিপ স্কোয়ার লেগে দাঁড়িয়ে থাকা শিবমের কাছে ক্যাচ যায়। শিবম কোনও ভাবেই কোহলির সেই ক্যাচ মিস করেননি। মাত্র ৩ বল খেলে ১ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় কোহলিকে। আর বিরাট আউট হওয়ায় নিঃসন্দেহে বড় ধাক্কা খায় আরসিবি।

আরও পড়ুন: ‘মাহি ভাই আমাকে সাহায্য করেছে’, ৪৬ বলে ৯৫ করে দাবি শিবম দুবের

রবীন্দ্র জাদেজা এ বার চেন্নাইয়ের অধিনায়ক হলেও, বকলমে কিন্তু দল চালাচ্ছেন ধোনিই। আর প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের বিচক্ষণতা নিয়ে কোনও প্রশ্নই ওঠে না। তিনি যে খেলাটা কতটা ভালো ভাবে রিড করতে পারেন, সেটা মঙ্গলবার আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল। মাহির এক চালেই সোজা সাজঘরে কোহলি। আর ধোনির এই ফিল্ডিং পরিবর্তনের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো আলোড়ন ফেলে দিয়েছে।

মঙ্গলবার টসে জিতে চেন্নাইকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন আরসিবি অধিনায়ক ফ্যাফ ডু'প্লেসি। রবিন উত্থাপ্পা-শিবম দুবে তাণ্ডবে একেবারে ঝড়ের গতিতে রান তুলতে থাকে চেন্নাই। মাত্র ৭৩ বলে ১৬৫ রানের পার্টনারশিপ গড়ে এই জুটি। যা তৃতীয় উইকেটে বা তার নীচে সর্বোচ্চ রানের পার্টনারশিপ। ৫০ বলে ৮৮ রান করেন উত্থাপ্পা ৪৬ বলে ৯৫ করে অপরাজিত থাকেন শিবম দুবে। এই দুই ব্যাটারের তাণ্ডবেই চেন্নাই ৪ উইকেটে ২১৬ রানের বড় ইনিংস গড়ে। যা এ বার আইপিএলে কোনও দলের করা সর্বোচ্চ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমেই বড় ধাক্কা খায় ব্যাঙ্গালোর। ৫০ রানের মধ্যেই দলের চার মহারথী সাজঘরে ফিরে যান। মাত্র ৮ রান করে আউট হন ফ্যাফ। তিনে বিরাট কোহলি ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৩ বল খেলে ১ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এর পর অনুজ রাওয়াত ১২ রান করে আউট হন। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ঝড় তোলার চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি। ১১ বলে ২৬ করে রবীন্দ্র জাদেজার বলে বোল্ড হন তিনি।

৪ উইকেট হারিয়েও অবশ্য হাল ছাড়েনি ব্যাঙ্গালোর। শাহবাজ আহমেদ এবং সুয়াশ প্রভুদেশাই দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন। অভিষেক ম্যাচে দুরন্ত ফিল্ডিং করে আগেই নজর কেড়েছিলেন সুয়াশ। এর পর দলের খারাপ সময়ে ছয় নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ১৮ বলে ৩৪ করেন তিনি। তবে মহেশ থিকসানা তাঁকে বোল্ড করেন। এর পর দীনেশ কার্তিক নামলে শাহবাজ তাঁর সঙ্গে জুটি বাঁধেন। কিন্তু ২৭ বলে ৪১ করে থিকসানার বলে বোল্ড হন শাহবাজ। এর পর চেন্নাইয়ের জয় যেন সময়ের অপেক্ষা ছিল। তবে দীনেশ কার্তিক কিন্তু চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু পাশে কাউকে পাননি। ১৪ বলে ৩৪ করে ডোয়েন ব্র্যাভোর বলে জাদেজার হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন কার্তিক। সেই সঙ্গে আরসিবি-র ক্ষীণ আশাটুকুও শেষ হয়ে যায়। নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯৩ রানে শেষ হয়ে যায় ব্যাঙ্গালোরের ইনিংস। লড়াই করেও ২৩ রানে হারতে হল আরসিবি-কে।

বন্ধ করুন