বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > যেচে পড়ে শুরুতে স্ট্রাইক নিয়ে নিজেই বিপদ ডাকলেন ওয়ার্নার, আউট প্রথম বলে- ভিডিয়ো
ডেভিড ওয়ার্নার।

যেচে পড়ে শুরুতে স্ট্রাইক নিয়ে নিজেই বিপদ ডাকলেন ওয়ার্নার, আউট প্রথম বলে- ভিডিয়ো

  • প্রথমে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই ছন্দে থাকা ওয়ার্নারের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দিল্লি ক্যাপিটালস। স্বাভাবিক ভাবেই তাদের শুরুটা হয় খুবই খারাপ। এর পর অবশ্য সরফরাজ খান ও মিচেল মার্শ দলের হাল ধরেন। বিশেষ করে মার্শ শেষ পর্যন্ত টিকে থেকে ৬৩করে দলকে পৌঁছে দেন ১৫৯ রানে। ১৭ রানে ম্যাচটি জেতে দিল্লি।

শার্দুল ঠাকুরের ৪ উইকেট, তার আগে মিচেল মিচেল মার্শের দুরন্ত অর্ধশতরান, সব মিলিয়ে সোমবার পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে ১৭ রানে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। সেই সঙ্গে তারা প্লে অফের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। শেষ ম্য়াচ জিতলেই চোখ বন্ধ করে প্লে-অফে নিজেদের জায়গা পাকা করে ফেলবে দিল্লি। কারও উপর তাদের নির্ভর করতে হবে না।

যাইহোক সোমবার টসে হেরে দিল্লি ক্যাপিটালস প্রথমে ব্যাট করতে নামে। শুরুতে স্ট্রাইক নিতে গিয়েছিলেন সরফরাজ খান। নন স্ট্রাইকিং জোনে ছিলেন ওয়ার্নার। কিন্তু লিয়াম লিভিংস্টোন বল করতে আসার ঠিক আগে, কী মনে করে সিদ্ধান্ত বদলান ওয়ার্নার। সরফরাজকে ডেকে যেচে পড়ে নিজেই স্ট্রাইক নেন। আর ম্যাচের প্রথম বলেই আউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় তাঁকে। একেই বলে খাল কেটে কুমির আনা। নিজেই নিজের বিপদ ডেকে আনলেন ওয়ার্নার। প্রাপ্তি গোল্ডেন ডাক।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই ছন্দে থাকা ওয়ার্নারের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দিল্লি ক্যাপিটালস। স্বাভাবিক ভাবেই তাদের শুরুটা হয় খুবই খারাপ। এর পর অবশ্য সরফরাজ খান ও মিচেল মার্শ দলের হাল ধরেন। বিশেষ করে মার্শ শেষ পর্যন্ত টিকে থাকেন এবং ৬৩ করে দলকে পৌঁছে দেন ৭ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৯ রানে। আর সরফরাজ করেন ১৬ বলে ৩২ রান।

আরও পড়ুন: ‘এই রান তাড়া করা কঠিন ছিল না’, নিজে শূন্য করেও ব্যাটারদের দুষলেন PBKS অধিনায়ক

আরও পড়ুন: কেন কুলদীপকে ৪ ওভার বল করাননি? শুরু হয়েছে বিতর্ক, কারণ খোলসা করলেন DC অধিনায়ক

তবে এ দিন মূলত দিল্লির বোলারদের দাপটেই ৯ উইকেটে ১৪২ রানে শেষ হয়ে যায় পঞ্জাবের ইনিংস। ৪ উইকেট নেন শার্দুল ঠাকুর। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন অক্ষর প্যাটেল এবং কুলদীপ। ১টি উইকেট নেন এনরিখ নরকিয়া।

পঞ্জাবের জিতেশ শর্মার ৩৪ বলে ৪৪ ছাড়া সে ভাবে কেউ খেলতেই পারেননি। জনি বেয়ারস্টোর ২৮, শিখর ধাওয়ানের ১৯ আর রাহুল চাহারের অপরাজিত ২৫- এর বাইরে কেউ দুই অঙ্কের ঘরেই পৌঁছায়নি। অধিনায়ক মায়াঙ্ক আগরওয়াল তো ২ বল খেলে শূন্যতে আউট হয়ে যান। পঞ্জাবের লিয়াম লিভিংস্টোন এবং আর্শদীপ সিং-এর ৩টি করে উইকেট নিয়ে যে লড়াইটা জমিয়ে দিয়েছিল, ১৭ রানে ম্যাচ হেরে সবেতেই জল ঢেলে দেয় মায়াঙ্করা। বরং জিতে পয়েন্ট টেবলের চারে উঠে এসেছে দিল্লি। পঞ্জাবের প্লে-অফের আশা কার্যত তলানিতে।

বন্ধ করুন