বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে এন-৯৫ মাস্ক পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন DC-র অশ্বিন
আর অশ্বিন।
আর অশ্বিন।

দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে এন-৯৫ মাস্ক পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন DC-র অশ্বিন

  • রবিচন্দ্রন অশ্বিনের পরিবারের লোকজন এবং আত্মীয়রা একের পর এক করোনায় আক্রান্ত হওয়ায়, আইপিএলের মাঝপথেই বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের তারকা স্পিনার। যদিও পরে টিমের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই আইপিএল বাতিল করে দেওয়া হয়।

মাস্ক ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে এ বার দেশের মানুষকে সতর্ক করলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের তারকা স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। পাশাপাশি তিনি নিজে এন ৯৫ মাস্ক যাঁদের কেনার ক্ষমতা নেই, তাঁদের বিতরণ করতে শুরু করেছেন। 

এরই সঙ্গে ভ্যাকসিন নিতে গিয়ে প্রত্যেকে যাতে সামজিক দূরত্বটুকু বজায় রাখেন, তা নিয়েও সকলকে সতর্ক করেছেন আর অশ্বিন।

তাঁর পরিবারের লোকজনের পাশাপাশি আত্মীয়াদের একের পর এক করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে, আইপিএলের মাঝপথেই বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন আর অশ্বিন। যদিও পরে টিমের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই আইপিএল বাতিল করে দেওয়া হয়।

নিজের পরিবারের অভিজ্ঞতা থেকেই অশ্বিন দেশের সকলকে সতর্ক করতে টুইটে লিখেছেন, ‘আমি সবাইকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে ভ্যাকসিনের লাইনে সবাইকে সামজিক দূরত্ব বিধি বজার রাখার জন্যও অনুরোধ করছি। এবং প্রত্যেকে দু'টি করে মাস্ক পরুন (কাপড়ের মাস্ক নয়)। এই ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করার জন্য ভ্যাকসিন নেওয়াটা জরুরি।’

এ ছাড়াও এন-৯৫ মাস্ক পরার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে বার্তা দিয়েছেন। এবং যাঁরা এন-৯৫ মাস্ক কিনতে পাচ্ছেন না, তাঁদের কাছে এই মাস্ক পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন অশ্বিন। পাশাপাশি তিনি সকলের কাছে জানতে চেয়েছেন, আর কোথায় কোথায় এন-৯৫ মাস্ক পৌঁছে দেওয়া যায়।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতে আছড়ে পড়ার পর হুহু করে সংক্রমণের মাত্রা যেমন বাড়ছে, তেমনই বাড়ছে মৃত্যুর হার। এই পরিস্থিতিতে ভারতের বহু ক্রিকেটারই দেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে কোভিড-যুদ্ধে সামিল হয়েছেন। তবে এই যুদ্ধ জিততে হলে, সকলকে আরও সতর্ক এবং দায়িত্ববান হতে হবে।

বন্ধ করুন