বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > ওয়েডের পাশে দাঁড়িয়ে টুর্নামেন্টের প্রযুক্তিকেই দুষলেন GT নেতা হার্দিক পান্ডিয়া
GT নেতা হার্দিক পান্ডিয়া (ছবি:পিটিআই)

ওয়েডের পাশে দাঁড়িয়ে টুর্নামেন্টের প্রযুক্তিকেই দুষলেন GT নেতা হার্দিক পান্ডিয়া

  • গুজরাট টাইটানসের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘আমার মনে হয় আল্ট্রাএজে একটু (স্পাইক) ছিল। বড় পর্দায় দেখা যায়নি। আপনি ভুল করতে পারেন না। যদি কৌশলটি সাহায্য না করে, আমি জানি না কে করবে।’

দলের সতীর্থের পাশে দাঁড়ালেন হার্দিক পান্ডিয়া। ম্যাথিউ ওয়েডের পাশে দাঁড়িয়ে টুর্নামেন্টের প্রযুক্তিকে দুষলেন গুজরাট টাইটানসের অধিনায়ক। ঘটনার সূত্রপাত ২০২২ আইপিএল-এর ৬৭তম ম্যাচে ওয়াংখেড়েতে। গুজরাটের ইনিংসের ৫.২ ওভারে ম্যাক্সওয়েলের বলে এলবিডব্লিউ হন ম্যাথিউ ওয়েড। ব্যাটসম্যানের মনে হয় যে বল তাঁর ব্যাটের কানায় লেগেছে। তিনি সঙ্গে সঙ্গে রিভিউ নেন। তবে টেলিভিশন রিপ্লেতে ব্যাটে বা গ্লাভসে বল লাগার কোনও প্রমাণ মেলেনি। আলট্রাএজ টেকনলজিতেও কোনও কিছু ধরা পড়েনি। বল ট্র্যাকিংয়ে স্টাম্পে লাগার ইঙ্গিত মেলায় স্বাভাবিকভাবেই সিদ্ধান্ত ওয়েডের বিরুদ্ধে যায়। ওয়েডকে আউট ঘোষণা করা হয়। তবে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে খুশি হতে পারেননি ওয়েড। তিনি ক্ষু্ব্ধ হয়ে মাঠ ছাড়েন। তাঁকে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায় বিরাট কোহলিকে।

সাজঘরে ঢোকার পরেই ম্যাথিউ ওয়েড প্রথমে হেলমেট ছুঁড়ে ফেলেন। পরে দু'বার নিজের ব্যাট আছড়ে ফেলেন। তাতেও রাগ কমেনি তাঁর। তাকে সাজঘরে ভাঙচুর করতে দেখা যায়। এই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়। ম্যাচের পরে গুজরাট টাইটানসের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘আমার মনে হয় আল্ট্রাএজে একটু (স্পাইক) ছিল। বড় পর্দায় দেখা যায়নি। আপনি ভুল করতে পারেন না। যদি কৌশলটি সাহায্য না করে, আমি জানি না কে করবে।’ ওয়েড এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন, কারণ তিনি নিশ্চিত ছিলেন যে ম্যাক্সওয়েলের বলটি তার ব্যাটে আঘাত করার পরে প্যাডে আঘাত করেছিল। তাই আউট দেওয়ার পরপরই সে ডিআরএস-এর সহায়তা নিয়েছিল।’

'আল্ট্রাএজে'-এ অবশ্য ম্যাথিউ ওয়েডের আউটের সিদ্ধান্ত পরিষ্কার ছিল না এবং তৃতীয় আম্পায়ার মাঠের আম্পায়ারের কলকে গ্রহণ করেন। হার্দিক বলেন, ‘অবশ্যই এটি কারও ব্যক্তিগত নয়, তবে প্রযুক্তি কখনও কখনও সাহায্য করে এবং কখনও কখনও নয়। এই সময় এটি সাহায্য করেনি। তবে বেশিরভাগ অনুষ্ঠানে এটি কাজ করেছে এবং ভুল সিদ্ধান্তগুলিকে উল্টে দিয়েছে।’ মহম্মদ শামি ও লকি ফার্গুসনকে কম ওভার দেওয়ার বিষয়ে হার্দিক বলেন, ‘আমরা লকিকে সুযোগ দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু বল কিছুটা আটকে যাচ্ছিল, তাই আমরা স্লো বোলারদের চেষ্টা করেছি।’ হার্দিক বলেছেন যে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা তার জন্য একটি ইতিবাচক দিক। তিনি বলেন, ‘আমরা যেভাবে পারফরম্যান্স করেছি, তাতে শীর্ষ দুটিতে থাকা গুরুত্বপূর্ণ কারণ এটি আপনাকে ফাইনালে পৌঁছানোর দুটি সুযোগ দেয়।’

বন্ধ করুন