বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > GT vs RCB: মিলার-তেওয়াটিয়া জাদু! আরসিবিকে মাত দিয়ে প্লে-অফ কার্যত নিশ্চিত গুজরাটের
তুখড় পঞ্চম উইকেটের পার্টনারশিপে গুজরাটকে জেতালেন মিলার-তেওয়াটিয়া। ছবি- আইপিএল।
তুখড় পঞ্চম উইকেটের পার্টনারশিপে গুজরাটকে জেতালেন মিলার-তেওয়াটিয়া। ছবি- আইপিএল।

GT vs RCB: মিলার-তেওয়াটিয়া জাদু! আরসিবিকে মাত দিয়ে প্লে-অফ কার্যত নিশ্চিত গুজরাটের

  • মিলার-তেওয়াটিয়া জুটি ৪০ বলে অপরাজিত ৭৯ রানের পার্টনারশিপ গড়ে গুজরাটকে ম্যাচ জেতান।

ব্রেবোর্নে গুজরাট টাইটানস এবং রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল। একদিকে নাগাড়ে দুই হারের পর জয়ের সরণীতে ফিরতে মরিয়া ছিল আরসিবি, তো গুজরাট এই ম্যাচ জিতে মোটামুটি নিজেদের প্লে-অফ পাকা করে ফেলতে পারত। সুতরাং, দুই দলেরই ক্ষেত্রেই এই ম্যাচ বাড়তি গুরুত্বের ছিল।

চলতি ধারার বিপরীতে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আরসিবি অধিনায়ক ফ্যাফ ডু'প্লেসি। তবে ব্যাট হাতে তিনি সফল হতে পারেননি। ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই প্রদীপ সাঙ্গওয়ানের বলে শূন্য রানে আউট হন ডু'প্লেসি। তবে দলের অধিনায়ক শূন্য রানে ফিরলেও, প্রাক্তন অধিনায়ক কিন্তু আজ সহজে আউট হওয়ার মুডে ছিলেন না। কিছু অবিরাটোচিত ভঙ্গিমায় হলেও, ক্রিজে টিকে থেকে এ মরশুমের প্রথম অর্ধশতরানটি করে ফেলেন বিরাট। অবশ্য অপরপক্ষ থেকে রজত পাতিদার দ্রুত গতিতে রান করার ফলেই বিরাট নিজের সময় নিয়ে খেলতে পারেন।

পাতিদার ৩২ বলে ৫২ রানের একটি দারুণ ইনিংস খেলেন। বিরাটের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে জুটি বেঁধে দলের হয়ে ৯৯ রান যোগ করেন তিনি। তবে পাতিদার আউট হওয়ার পর পরই মহম্মদ শামির নিখুঁত ইয়র্কারে ৫৩ বলে ৫৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন বিরাটও। পর পর দুই উইকেট হারিয়ে আরসিবির ইনিংস কিছুটা গতি হারালেও, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ৩৩ রান ও শেষে মহিপাল লোমরোরে ১৬ রানের ক্যামিও আরসিবিকে ছয় উইকেটের বিনিময়ে ১৭০ রান তুলতে সাহায্য করে। গুজরাটের হয়ে চার ওভারে ১৯ রানের বিনিময়ে দুই উইকেট নিয়ে সর্বসেরা বোলিং করেন সাঙ্গওয়ান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে গুজরাট ওপেনাররা অর্ধশতরানের পার্টনারশিপ গড়লেও, তা বেশ মন্থর গতিতেই আসে। ২২ বলে ২৯ রান করে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার বলে আউট হন ঋদ্ধিমান সাহা। ২৮ বলে ৩১ রান করেন শুভমন গিল। এ মরশুমে চরম ফর্মে থাকা গুজরাট অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়াকেও মাত্র তিন রানে সাজঘরে ফেরত পাঠান শাহবাজ আহমেদ। শাহবাজ আর হাসারাঙ্গার দাপটেই এক সময় বেশ চাপে পড়ে যায় গুজরাট। 

তবে এ মরশুমে বারংবার গুজরাটের হয়ে মিডল অর্ডার ম্যাচ ফিনিশ করে এসেছে। এক্ষেত্রেও এর অন্যথা হল না। রাহুল তেওয়াটিয়া-ডেভিড মিলারের ৪০ বলে অপরাজিত ৭৯ রানের পার্টনারশিপ তিন বল বাকি থাকতেই গুজরাটের হয়ে ছয় উইকেটে জয় সুনিশ্চিত করে। মিলার ২৪ বলে ৩৯ এবং তেওয়াটিয়া ২৫ বলে ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন। এই নিয়ে নয় ম্যাচে নিজেদের অষ্টম জয়ে প্লে-অফ কার্যত নিশ্চিত করে ফেলল হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বাধীন গুজরাট টাইটানস। লাগাতার তিন ম্যাচ হেরে বেশ চাপেই আরসিবি।

 

বন্ধ করুন