বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > IPL 2021: ক্রুনালের জন্যই ক্রিকেট জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল PBKS-এর দীপক হুডার
আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম অর্ধশতরান করার পর দীপক হুডা। ছবি: পিটিআই
আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম অর্ধশতরান করার পর দীপক হুডা। ছবি: পিটিআই

IPL 2021: ক্রুনালের জন্যই ক্রিকেট জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল PBKS-এর দীপক হুডার

  • ২০২০ সালের অক্টোবরে আইপিএলে শেষ বার প্রতিযোগীতামূলক ম্যাচ খেলেছিলেন হুডা। তার পরে আর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে পারেননি।

ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার জন্যই নাকি দীপক হুডার ক্রিকেট জীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। এমনই অভিযোগ উঠেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অলরাউন্ডারের বিরুদ্ধে। 

সোমবার রাতে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে ২৮ বলে ৬৪ করেন পঞ্জাব কিংসের দীপক হুডা। আর ২০ বলে ৫০ করে নতুন রেকর্ড গড়েন। আইপিএলের ইতিহাসে এটাই দ্রুততম অর্ধশতরান।

অথচ কিছু দিন আগেও এই ক্রিকেটারের ভবিষ্যত একেবারে অন্ধকার চাদরে ঢাকা পড়েছিল। কারণ বরোদা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন তাঁকে সাসপেন্ড করেছিল। যে কারণে কোনও ঘরোয়া টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারেননি দীপক। বরোদার অধিনায়ক ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার বিরুদ্ধে খারাপ আচরণের অভিযোগ এনে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন বলেই তাঁকে সাসপেন্ড হতে হয় বলে অভিযোগ। 

রাজস্থানের বিরুদ্ধে দীপকের ইনিংস দেখার পর তাঁর সাসপেনশনের প্রসঙ্গ টেনে এনে ইরফান টুইটে লেখেন, ‘ভেঙে না পড়ে যাঁরা লড়াই করা শিখতে চান, তাঁরা শেষ কয়েক মাসের দীপক হুডার জীবনের গল্প পড়ুন, এবং ওর এই ব্যাটিং দেখুন। খুব ভাল খেলেছো বাডি!’

২০২০ সালের অক্টোবরে আইপিএলে শেষ বার প্রতিযোগীতামূলক ম্যাচ খেলেছিলেন হুডা। তার পরে আর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে পারেননি। কারণ বরোদা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন তাঁকে সাসপেন্ড করে। বিসিএ-কে একটি ই-মেল করে ক্রুনালের বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ এনেছিলেন দীপক হুডা। সেই মেইলে দীপক লিখেছিলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি খুবই হতাশ এবং মারাত্মক চাপের মধ্যে রয়েছি। গত কয়েক দিন ধরে , বিশেষত শেষ দু'দিন আমার দলের অধিনায়ক মিস্টার ক্রুনাল পাণ্ডিয়া আমার সতীর্থ এবং বাইরের রাজ্যের টিম, যাঁরা ভদোদরায় খেলতে এসেছে, তাঁদের সামনেই আপত্তিজন ভাষায় আমাকে আক্রমণ করছেন।’ এর পরই তাঁকে সাসপেন্ড হতে হয়।

ইরফান পাঠান মনে করেন, এই ধরনের ঘটনা যে কোনও ক্রিকেটারকে মানসিক ভাবে একেবারে ভেঙে দেয়। তবে এগুলোকে এড়িয়ে যাওয়াই ভাল। ১৭ বছর বরোদার হয়ে খেলা ইরফান বলেছেন, ‘এই অতিমারির সময়ে ক্রিকেটারদের মানসিক ভাবে স্বতঃস্ফূর্ত থাকাটা খুর জরুরি। বিশেষত যখন জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হচ্ছে। যেটা খুবই চাপের। এর মধ্যে আবার ম্যাচে ফোকাস করাটাও প্রয়োজন।’

আরপি সিং আবার টুইটে লিখেছেন, ‘দীপক হুডা ঘরোয়া ক্রিকেটে হ্যারিকেন হুডা বলে পরিচিত। তবে এটা তাঁর আইপিএল জীবনে সত্যি হ্যারিকেন ইনিংস ছিল। ’

সোমবার কেএল রাহুলের সঙ্গে দীপক হুডা যোগ্য সঙ্গত দেওয়ায় কিংস পঞ্জাবের স্কোর ২২১ পর্যন্ত পৌঁছেছিল। তাও মাত্র ৪ রানে রাজস্থান রয়্যালস হেরে যায়। তবে দু'দলই অসাধারণ লড়াই করেছে। নিঃসন্দেহে এ বার আইপিএলে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচ এটাই।

বন্ধ করুন