বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > KKR vs DC: শক্তিশালী দিল্লির বিরুদ্ধে নাইট রাইডার্সের জয়ের পাঁচটি কারণ

KKR vs DC: শক্তিশালী দিল্লির বিরুদ্ধে নাইট রাইডার্সের জয়ের পাঁচটি কারণ

  • কলকাতার নিয়ন্ত্রিত ব্যাটিং-বোলিং ও ক্যাপ্টেন হিসেবে পন্তের কিছু ভুল সিদ্ধান্ত কেকেআর বনাম দিল্লি ম্যাচের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করে দেয়। 
চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে শেষ বলে হার থেকে যথাযথ শিক্ষা নিয়েই দিল্লি ক্যাপিটালসকে পরাজিত করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। তরুণ ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের উপর আস্থা ছিল কলকাতার। তাই চোট পাওয়া রাসেলের পরিবর্তে অল-রাউন্ডার শাকিবকে দলে না নিয়ে বিশেষজ্ঞ পেসার সাউদিকে মাঠে নামায় কেকেআর। আমিরশাহির মাঠগুলিতে বেনজিরভাবে ঘাসের ছোঁয়া রয়েছে। তাই টিম কম্বিনেশনের ক্ষেত্রেও মুন্সিয়ানা দেখায় কলকাতা। নারিন ও বরুণই স্পিন বিভাগের দায়িত্ব যথাযথ সামলে দেন। সাউদি কার্যকরী বোলিং করে টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তকে যথাযথ প্রমাণ করেন।  
1/5চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে শেষ বলে হার থেকে যথাযথ শিক্ষা নিয়েই দিল্লি ক্যাপিটালসকে পরাজিত করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। তরুণ ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের উপর আস্থা ছিল কলকাতার। তাই চোট পাওয়া রাসেলের পরিবর্তে অল-রাউন্ডার শাকিবকে দলে না নিয়ে বিশেষজ্ঞ পেসার সাউদিকে মাঠে নামায় কেকেআর। আমিরশাহির মাঠগুলিতে বেনজিরভাবে ঘাসের ছোঁয়া রয়েছে। তাই টিম কম্বিনেশনের ক্ষেত্রেও মুন্সিয়ানা দেখায় কলকাতা। নারিন ও বরুণই স্পিন বিভাগের দায়িত্ব যথাযথ সামলে দেন। সাউদি কার্যকরী বোলিং করে টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তকে যথাযথ প্রমাণ করেন।  
নাইট রাইডার্স যেখানে কৌশলগত দিক দিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়, সেখানে অধিনায়ক হিসেবে পন্তের অনভিজ্ঞতা স্পষ্ট ধরা পড়ে ম্যাচে। বিশেষ করে অল্প রানের পুঁজি হাতে নিয়ে দলের বোলারদের যথাযথ ব্যবহার করতে পারেনি পন্ত। দিল্লির অবিবেচকের মতো বোলিং পরিবর্তনকে তাদের ম্যাচ হারের জন্য দায়ী করা যেতে পারে। না হলে একটা সময় পরপর উইকেট তুলে নিয়ে কলকাতাকে চাপে লিখেছিল দিল্লি। তাছাড়া দিল্লি মোটেও ভালো ব্যাটিং করতে পারেনি এই ম্যাচে।
2/5নাইট রাইডার্স যেখানে কৌশলগত দিক দিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়, সেখানে অধিনায়ক হিসেবে পন্তের অনভিজ্ঞতা স্পষ্ট ধরা পড়ে ম্যাচে। বিশেষ করে অল্প রানের পুঁজি হাতে নিয়ে দলের বোলারদের যথাযথ ব্যবহার করতে পারেনি পন্ত। দিল্লির অবিবেচকের মতো বোলিং পরিবর্তনকে তাদের ম্যাচ হারের জন্য দায়ী করা যেতে পারে। না হলে একটা সময় পরপর উইকেট তুলে নিয়ে কলকাতাকে চাপে লিখেছিল দিল্লি। তাছাড়া দিল্লি মোটেও ভালো ব্যাটিং করতে পারেনি এই ম্যাচে।
শুভমন গিল, নিতীশ রানার মতো ভারতীয় তরুণরা ফের একবার দলের হাল ধরেন। গিল ও রানা ব্যাট হাতে দলের জয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেন। ২টি উইকেট নিয়ে বোলিংয়ে নজর কাড়েন ভেঙ্কটেশ আইয়ার।
3/5শুভমন গিল, নিতীশ রানার মতো ভারতীয় তরুণরা ফের একবার দলের হাল ধরেন। গিল ও রানা ব্যাট হাতে দলের জয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেন। ২টি উইকেট নিয়ে বোলিংয়ে নজর কাড়েন ভেঙ্কটেশ আইয়ার।
চলতি আইপিএলে সুনীল নারিনকে পরিচিত ছন্দে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে। বল হাতে ধারাবাহিকতা দেখাচ্ছেন ক্যারিবিয়ান রহস্য স্পিনার। তবে দিল্লির বিরুদ্ধে ব্যাট হাতেও কার্যকরী ভূমিকা নেন নারিন। সুনীল নারিন ছন্দে থাকলে কলকাতার ম্যাচ জিততে অসুবিধা হয় না। এক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি।
4/5চলতি আইপিএলে সুনীল নারিনকে পরিচিত ছন্দে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে। বল হাতে ধারাবাহিকতা দেখাচ্ছেন ক্যারিবিয়ান রহস্য স্পিনার। তবে দিল্লির বিরুদ্ধে ব্যাট হাতেও কার্যকরী ভূমিকা নেন নারিন। সুনীল নারিন ছন্দে থাকলে কলকাতার ম্যাচ জিততে অসুবিধা হয় না। এক্ষেত্রেও তার অন্যথা হয়নি।
তবে লো স্কোরিং ম্যাচে রাবাদার এক ওভারে ২১ রান খরচ করাকেও দিল্লির হারের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। ১৬ তম ওভারে রাবাদার বলে নারিন ১৯ রান সংগ্রহ করেন। সেই ওভারে সাকুল্যে ২১ রান ওঠে। ম্যাচের ভবিতব্য ওখানেই নির্ধারিত হয়ে যায়।
5/5তবে লো স্কোরিং ম্যাচে রাবাদার এক ওভারে ২১ রান খরচ করাকেও দিল্লির হারের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। ১৬ তম ওভারে রাবাদার বলে নারিন ১৯ রান সংগ্রহ করেন। সেই ওভারে সাকুল্যে ২১ রান ওঠে। ম্যাচের ভবিতব্য ওখানেই নির্ধারিত হয়ে যায়।
অন্য গ্যালারিগুলি