বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > IPL 2021: ‘মিস্ট্রি স্পিনার’-এর সাফল্যের রহস্য কী? কোহলিদের হারিয়ে মুখ খুললেন KKR –এর নায়ক
বরুণ চক্রবর্তী (ছবি:টুইটার)
বরুণ চক্রবর্তী (ছবি:টুইটার)

IPL 2021: ‘মিস্ট্রি স্পিনার’-এর সাফল্যের রহস্য কী? কোহলিদের হারিয়ে মুখ খুললেন KKR –এর নায়ক

  • বল হাতে কলকাতার হয়ে ব্যাঙ্গালোরকে চাপে রেখেছিলেন বরুণ চক্রবর্তী। এ বারের আইপিএল-এ আট ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে কেকেআর-এর বোলারদের মধ্যে যুগ্ম ভাবে শীর্ষে চলে এলেন বরুণ। আন্দ্রে রাসেলও আট ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন। বরুণ চক্রবর্তীর সাফল্যের রহস্য কী? কেকেআর-এর এই স্পিনার নিজেই তার উত্তর দিলেন।

সোমবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে চার ওভারে ১৩ রান দিয়ে তিন উইকেট নিলেন তিনি। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ম্যাচের সেরাও হলেন। নাইটদের অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান ম্যাচের আগেই তাঁকে বলেছিলেন ইনিংসের বোলিং শুরু করতে হবে তাঁকেই। তিনি হলেন কেকেআর-এর ‘মিস্ট্রি স্পিনার’ বরুণ চক্রবর্তী। চলতি আইপিএল-এর দ্বিতীয় পর্বে কলকাতার প্রথম ম্যাচের সাফল্যের অন্যতম সেরা কারিগর। এদিন চার ওভার বল করে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, সচিন বেবি ও হাসারাঙ্গাকে আউট করলেন। কেইল জেমিসনকে রান আউট করেন। 

বল হাতে কলকাতার হয়ে ব্যাঙ্গালোরকে চাপে রেখেছিলেন বরুণ চক্রবর্তী। ফলে ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন তিনি। এ বারের আইপিএল-এ আট ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে কেকেআর-এর বোলারদের মধ্যে যুগ্ম ভাবে শীর্ষে চলে এলেন বরুণ। আন্দ্রে রাসেলও আট ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়েছেন। বরুণ চক্রবর্তীর সাফল্যের রহস্য কী? কেকেআর-এর এই স্পিনার নিজেই তার উত্তর দিলেন।

এ দিনের ম্যাচে একটা সময় হ্যাটট্রিক নেওয়ার সুযোগ এসেছিল বরুণের কাছে। কিন্তু অল্পের জন্য সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যায়। ম্যাচের ১২তম ওভারে পরপর দুই বলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল এবং ওয়ানিন্দু হসরঙ্গর উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিকের সামনে চলে এসেছিলেন। তৃতীয় বলে কাইল জেমিসনের প্যাডে বল লাগে। মর্গ্যানকে ডিআরএস নেওয়ার জন্য বলেছিলেন বরুণ চক্রবর্তী। মর্গ্যান অবশ্য ডিআরএস নেননি। পরে রিপ্লেতে দেখা যায় বল জেমিসনের ব্যাটে লেগে প্যাডে লেগেছে। বরুণ বলেন, ‘আমি তো ভেবেছিলাম হ্যাটট্রিক করে ফেলেছি। পরে দেখলাম বল ব্যাটে লেগে প্যাডে লেগেছে।’

এদিনের সাফল্যের রহস্য ফাঁস করেন বরুণ চক্রবর্তী। ম্যাচের পরে বরুণ বলেন, ‘পিচ কীরকম, সেটা প্রথমে বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম। দেখলাম একেবারে পাটা উইকেট।’ সেই কারণেই শুধু নিজেকে নয়, দলের গোটা বোলিং বিভাগকেই কৃতিত্ব দিচ্ছেন তিনি। বরুণ আরও বলেন, ‘উইকেটে আমাদের জন্য কিছু ছিল না। আমাদের যে বোলাররা পাওয়ার প্লে-তে বল করেছে, তারা অত্যন্ত শৃঙ্খলাবদ্ধ বোলিং করেছে। এই জয়ের পিছনে তাদের সবার কৃতিত্ব রয়েছে।’ নিজের বোলিং নিয়ে বরুণ বলেন, ‘উইকেটে স্পিন ছিল না। তাই স্টাম্পে বল করছিলাম। এই উইকেটে সাফল্য পেয়ে বাড়তি আনন্দ হচ্ছে। সবার কাছে আমার একটা গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হয়েছে। ভারতের হয়ে খেলাটা অবশ্যই সাহায্য করেছে।’

বন্ধ করুন