বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL 2022: 'যত জোরেই বল কর, কোনও লাভ নেই', উমরান মালিককে সতর্ক করলেন রবি শাস্ত্রী
উমরান মালিক ও রবি শাস্ত্রী। ছবি- আইপিএল/টুইটার।
উমরান মালিক ও রবি শাস্ত্রী। ছবি- আইপিএল/টুইটার।

IPL 2022: 'যত জোরেই বল কর, কোনও লাভ নেই', উমরান মালিককে সতর্ক করলেন রবি শাস্ত্রী

  • চলতি IPL-এ উমরান মালিকের গতি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে বিস্তর। তবে টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন হেড কোচ মনে করছেন যে টি-২০ ক্রিকেটে জোরে বলেরও কোনও দাম নেই, যদি না…।

যত জোরে বল করবে, তার থেকে দ্বিগুন জোরে মার খেতে হবে। সঠিক জায়গায় বল না রাখলে টি-২০ ক্রিকেটে ১৫৭ কিলোমিটার গতির কোনও দাম নেই। কার্যত এভাবেই উমরান মালিককে সতর্ক করলেন রবি শাস্ত্রী। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন হেড কোচ আশা প্রকাশ করেন, ভবিষ্যতে জাতীয় দলের হয়ে মাঠ নামতে দেখা যাবে উমরানকে। তবে সেই সঙ্গে তিনি এও বুঝিয়ে দেন যে, এখনও অনেক উন্নতি করতে হবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের তরুণ পেসারকে।

ক'দিন আগেই টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন পেসার আরপি সিং উমরানের প্রসঙ্গে মন্তব্য করেন যে, শুধু গতি থাকলেই হয় না, নিয়ন্ত্রণ দরকার। মাথা খাটিয়ে বল করা দরকার। এবার শাস্ত্রীর গলাতেও কার্ষত একই সুর শোনা গেল।

স্টার স্পোর্টসে রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘ও (উমরান) খুব তাড়াতাড়ি ভারতের হয়ে খেলবে। তবে যদি তুমি সঠিক জায়গায় বল না রাখতে পারো, তবে ১৫৬ কিলোমিটারের বলে ব্যাট চলবে ২৫৬ কিলোমিটারে। ঠিক সেটাই ঘটছে আইপিএলে। গতি রয়েছে খুব ভালো কথা। তবে তোমাকে মাথায় রাখতে হবে যে, বল যেন সঠিক জায়গায় পড়ে।’

আরও পড়ুন:- 'শুধু গতি থাকলেই হয় না, মাথা খাটাতে হয়', RP-র মতে, কত ধানে কত চাল, দিল্লি ম্যাচেই বুঝে গিয়েছেন উমরান

 শাস্ত্রী আরও বলেন, 'যদি তুমি সঠিক জায়গায় বল না রাখতে পার, তবে মার খাবে। প্রচুর রান খরচ করবতে হবে। পিচ এখন তুলনায় স্লো হয়ে আসছে। এখন পিচ আরও ব্যাটিং সহায়ক হবে। আমি সংবাদমাধ্যমে ১৫৬-১৫৭ (কিলোমিটার) নিয়ে আলোচনা দেখছি। তবে এই ফর্ম্যাটে (টি-২০) এমন গতিতে কিচ্ছু যায় আসে না। যদি ও স্টাম্পে আক্রমণ করে, তাহলে হয়তো আরও ভালো ফল পেতে পারে। ১৫৬-১৫৭ কিলোমিটার গতি দারুণ বিষয়। তবে সেটাকে সঠিক জায়গায় বল রেখে ব্যবহার করতে হবে।'

আরও পড়ুন:- IPL 2022: কীভাবে সামলাতে হবে উমরানের আগুনে গতি? ব্যাটসম্যানদের সহজ উপায় বাতলে দিলেন গাভাসকর

বাস্তবিকই চলতি আইপিএলে উমরান মালিক আগুনে গতিতে ব্যাটসম্যানদের পরাস্ত করছেন বটে, তবে মারও খেতে হচ্ছে যছেষ্ট। দিল্লি ম্যাচে ডেভিড ওয়ার্নার যথেচ্ছ রান তোলেন উমরানের বলে। ৪ ওভারে ৫২ রান খরচ করতে হয় মালিককে। পরে আরসিবি ম্যাচে তো প্রথম ওভারেই ২০ রান খরচ করেন উমরান। তাঁকে ২ ওভারের বেশি বল করাতেই পারেনি হায়দরাবাদ।

বন্ধ করুন