বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL 2022: পাকিস্তানে হলে ভারতেও হবে- উমরান নিয়ে পূর্বাভাস PSL দলের মালিকের
হরিশ রাউফ এবং উমরান মালিক।
হরিশ রাউফ এবং উমরান মালিক।

IPL 2022: পাকিস্তানে হলে ভারতেও হবে- উমরান নিয়ে পূর্বাভাস PSL দলের মালিকের

  • রউফকে ২০১৮ সালে লাহোর দল কোনও প্রথম-শ্রেণীর অভিজ্ঞতা ছাড়াই দলে নিয়েছিল। এবং এক বছর পরে তিনি প্রথম ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছিল। আর ২০২০ সালে পাকিস্তানের জার্সি পরেছিল। আর রউফের এই গল্পের সঙ্গে উমরানের মিল খুঁজে পেয়েছেন লাহোর কালান্দার্সের মালিক সামিন রানা।

উমরান মালিক তাঁর দুর্দান্ত গতি এবং উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা দিয়ে ২০২২ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) নতুন তারকা হয়ে উঠেছেন। তিনি এখনও পর্যন্ত ৮.২৩ ​​ইকোনমি রেটে ৭ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে ফেলেছেন। এবং ২০২২ আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের প্রত্যাবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।

নতুন মরশুমে হায়দরাবাদের চিত্তাকর্ষক সূচনার মধ্যে পাকিস্তান সুপার লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি লাহোর কালান্দার্সের মালিক সামিন রানা আবার ভারতীয় তরুণ উমরান এবং পাকিস্তানের বোলিং সেনসেশন হরিস রউফের মধ্যে একটি বিশাল মিল খুঁজে পেয়েছেন। পাশাপাশি দাবি করেছেন, হায়দারাবাদ তাদের থেকে অনুপ্রেরণা নিয়েই উমরানকে দলে নিয়েছে।

রউফকে ২০১৮ সালে লাহোর দল কোনও প্রথম-শ্রেণীর অভিজ্ঞতা ছাড়াই দলে নিয়েছিল। এবং এক বছর পরে তিনি প্রথম ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছিল। আর ২০২০ সালে পাকিস্তানের জার্সি পরেছিল।

আরও পড়ুন: RCB ম্যাচে ৭২ করে SRH, রানরেট ৯, ৭২ বল বাকি থাকতে জয় ৯ উইকেটে, ঠিক যেন নয়ের নামতা

আরও পড়ুন: বড় ভুল না করলে প্লে-অফে ওঠার রাস্তা মসৃণ, আর কোন ম্যাচ বাকি SRH-এর?

paktv.tv-তে কথা বলার সময়, রানা দাবি করেছেন যে, আইপিএল ২০২২-এ উমরানের খ্যাতির উত্থান সম্পূর্ণ ভাবে হরিশের মতোই। তিনি বলেছেন, ‘আমি খুব খুশি যে লাহোর কালান্দার্স শুধু পাকিস্তান ক্রিকেট নয়, ভারতীয় ক্রিকেটকেও প্রভাবিত করেছে। আপনি যদি উমরান মালিকের গল্পটি দেখেন, তবে আপনি দেখবেন, হরিস রউফ ওদের অনুপ্রাণিত করেছে। হয়তো তারা হরিসের গল্প অনুসরণ করেছিল এবং অবশ্যই ভেবেছিল যে এটি পাকিস্তান করতে পারলে, তবে ভারতে কেন পারবে না। কারণ দুই ক্রিকেটারের মধ্যে অনেক মিল আছে। দু'জনেই সাদা বলের ক্রিকেট থেকে শুরু করেছিল, জম্মু ও কাশ্মীর থেকে এসেছে, প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে কোনও ব্যাকগ্রাউন্ড নেই।’

এর সঙ্গেই কালান্দার্সের মালিক যোগ করেছেন, ‘আমি আগে কখনও আইপিএলে এমনটা দেখিনি। এবং হারিস প্রথম সফল হয়েছিল এবং অন্যদের একটি নতুন পথ দেখিয়েছিল। কিন্তু হারিস যখন আমাদের দলে ছিল তখন আমরা প্রচুর সমালোচিত হয়েছিলাম, কেন আমরা ঘরোয়া ক্রিকেটকে হত্যা করেছি এবং খেলাটিকে প্রভাবিত করেছি। কিন্তু আজ ও পাকিস্তানের অহংকার। ও যখন বিদেশে যায় এবং ইয়র্কশায়ারের মতো দলের হয়ে খেলে, তখন ওরা ওকে 'পাকিস্তানি সুপারস্টার' বলে ডাকে। তাই আমরা ক্রিকেটারদের একটি নতুন পথ দেখিয়েছি এবং আমি এর জন্য কৃতিত্ব নিতে চাই।’

বন্ধ করুন