বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL 2022: MI-র হতাশাজনক মরশুমেও তারুণ্যের উচ্ছ্বাস নতুন ভোরের ইঙ্গিতবাহী
মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের দুই তরুণ প্রতিভা তিলক বর্মা ও ডেওয়াল্ড ব্রেভিস। ছবি- এএনআই। (ANI)

IPL 2022: MI-র হতাশাজনক মরশুমেও তারুণ্যের উচ্ছ্বাস নতুন ভোরের ইঙ্গিতবাহী

  • এ মরশুম মুম্বইয়ের হয়ে তরুণ তিলক বর্মাই সর্বোচ্চ ৩৯৭ রান করেছেন।

আইপিএলের রেকর্ড চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জন্য এ মরশুমটা কার্যত দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে। পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন দল সবার প্রথমে প্লে-অফের দৌড় থেকে ছিটকে যায়। মাত্র চারটি ম্যাচ জিতে লিগ তালিকারও লাস্টবয় মুম্বই। তবে এই চূড়ান্ত হতাশাজনক মরশুমে মুম্বইকে আশার আলো দেখাচ্ছে তরুণ প্রজন্ম।

রোহিত শর্মা, কায়রন পোলার্ড, মুম্বইয়ের দুই হেভিওয়েট এ বারের মরশুমে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। মুম্বইয়ের খারাপ মরশুমের পিছনে এটি বড় একটি কারণ। তবে পোলার্ড বা রোহিতের দুইজনেরই বয়স হয়েছে। তাদের খুব বেশিদিন আর আইপিএলে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা কম। এমন পরিস্থিতিতে ভবিষ্যতের তারকাদের খোঁজ করতেই হত মুম্বইকে। ঠিক এমনই এক হীরের সন্ধান পেয়ে গিয়েছে মুম্বই। তাঁর নাম তিলক বর্মা।

এ মরশুম মুম্বইয়ের হয়ে তরুণ তিলক বর্মাই সর্বোচ্চ ৩৯৭ রান করেছেন। নিজের প্রথম আইপিএল মরশুমে তিলকের স্ট্রাইক রেট ১৩১.০২, গড় ৩৬.০৯। মরশুম শুরুর আগে থেকেই ২০ বছর বয়সি তিলকের বিষয়ে বেশ আশাবাদী ছিল মুম্বই ম্যানেজমেন্ট। তিলক কিন্তু কাউকেই হতাশ করেননি। তিলকের পাশাপাশি নজর কেড়েছেন ডেওয়াল্ড ব্রেভিস। অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ভাঙা ব্রেভিসের প্রতিভা নিয়ে কোনও সময়ই সন্দেহ ছিল না। তিনি সাত ম্যাচে ১৬১ রান করলেও, ভবিষ্যতে তিনি যে আইপিএলের মঞ্চ মাতাবেন তাঁর হালকা পূর্বাভাস তার মধ্যে দিয়ে দিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান তরুণ।

তিলক বা ব্রেভিসের থেকে বয়সে একটু বড়, ২৬ বছরের টিম ডেভিডও সীমিত সুযোগে নজর কেড়েছেন। প্রথম দিকে দল থেকে বাদ পড়লেও, মরশুমের শেষের দিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুলে ডেভিড দেখিয়েছেন তিনি কী করতে সক্ষম। আট ম্যাচে ৩৭.২০-র গড় ও ২১৬.২৮-র স্ট্রাইক রেটে ডেভিড মোট ১৮৬ রান করেছেন। এর আগে আইপিএলের ইতিহাসে এত স্ট্রাইক রেট নিয়ে এত রান করার নজির আর কোনও ব্যাটারের নেই। একাধিক ম্যাচ একা হাতেই ঘুরিয়ে দিয়েছেন ডেভিড। পোলার্ড পরবর্তী যুগে তিনি কিন্তু মুম্বইয়ের ফিনিশার হওয়ার বড় দাবিদার। 

এবারে তুলনামূলক বোলিং বিভাগই ঝুলিয়েছে পল্টনদের। তবে শেষের দিকে ড্যানিয়েল স্যামস কিন্তু মরশুমের শুরুর দিকের হতাশা ঝেড়ে ফেলে বেশ ভালই পারফর্ম করেছেন। ১১ ম্যাচে নিয়েছেন ১৩ উইকেট। পরের মরশুমে জসপ্রীত বুমরাহ যে এবারের থেকে ভাল বোলিং করবেন, তা আশা করাই যায়। উপরন্তু, জোফ্রা আর্চার দলে যোগ দিলে, তাদের সঙ্গে সুইং বোলার স্যামসের জুটি কিন্তু বেশ জমবে। এবারের হতাশাজনক মরশুমেও এই কয়েকটি ইতিবাচক দিক মুম্বইকে ভবিষ্যত মরশুমগুলির জন্য উৎসাহ জোগাতে বাধ্য।

বন্ধ করুন