বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2023 > IPL 2023: আমি জানি, কোন জায়গা থেকে এসেছি, আজ যারা মাথায় তুলবে, কাল তারাই গালি দেবে: রিঙ্কু

IPL 2023: আমি জানি, কোন জায়গা থেকে এসেছি, আজ যারা মাথায় তুলবে, কাল তারাই গালি দেবে: রিঙ্কু

রিঙ্কু সিং।

১৪ ম্যাচে ৪৭৪ রান, স্ট্রাইক রেট ১৫০ ছুঁইছুঁই। চলতি আইপিএলে কলকাতার ‘গ্রেট’ ফিনিশার তিনিই। যে ভাবে ঠান্ডা মাথায় প্রতিটি ম্যাচে খেলেছেন, তাতে ভারতীয় ক্রিকেট দলে জায়গা পাওয়ার অন্যতম দাবিদার হয়ে উঠেছেন রিঙ্কু সিং।

রিঙ্কু সিং এই বছর আইপিএলে সেনসেশন হয়ে উঠেছেন। গুজরাট টাইটান্সের বিরুদ্ধে পাঁচ বলে পাঁচটি ছক্কা মারা থেকে শুরু করে মধ্য ওভারে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মেরুদণ্ড হয়ে ওঠা পর্যন্ত- আলিগড়ের রিঙ্কু সিং বিশেষ ভাবে নজর কেড়েছেন এই মরশুমে। তাঁকে জাতীয় দলে নেওয়ার দাবিও উঠে গিয়েছে। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মনের কথা উজাড় করেছেন রিঙ্কু। কী বলেছেন রিঙ্কু?

লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিং করা:

আমি ইউপির হয়ে খেলি এবং সেখানেও আমি পাঁচ বা ছয় নম্বরে ব্যাট করি। আমি সেই জায়গায় অভ্যস্ত। নেটেও আমি শেষে নেমেই বহু বার অনুশীলন করেছি।

আরও পড়ুন: নিজে ভালো খেললেও ফের ব্যর্থ RCB, রুটিন সান্ত্বনা বার্তা দিয়ে কাজ সারলেন কোহলি

কঠোর পরিশ্রম:

কেউ আমার পরিশ্রম দেখেনি এবং সবাই শুধু আমার সাফল্য দেখেছে। আমি এমন একটি পটভূমি থেকে এসেছি, যেখানে আমার জীবনে কিছুই ছিল না। আমি একটি দরিদ্র পরিবার থেকে এসেছি। আমাদের কোনও টাকা ছিল না। আমার কোনও যোগ্যতা বা পড়াশোনা ছিল না।

আমার মা আমাকে ঝাড়ুদারের কাজ করতে বলেছিলেন, যাতে আমি আমার পরিবারের জন্য কিছু অর্থ উপার্জন করতে পারি। এই পরিস্থিতি থেকে একমাত্র যেটা আমাকে বের করে আনতে পারত তা হল ক্রিকেট এবং আমি এর জন্য যে কোনও পরিশ্রম করতে প্রস্তুত ছিলাম। অনেক লোক আমাকে সময়ে সময়ে সাহায্য করেছে এবং কেকেআর যে ভাবে আমার পিছনে দাঁড়িয়েছে, সেটাই আমার এখানে উঠে আসার একটা কারণ।

আরও পড়ুন: প্লে-অফের ম্যাচ বৃষ্টিতে ভাসলে সবচেয়ে বেশি সুবিধে পাবে কোন দল?

মানসিক শক্তি:

চোট-পরবর্তী পুরো সময়টা আমাকে মানসিক ভাবে শক্ত করে তুলেছিল। তিন বছর আগে আমার হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছিল, এবং তিন মাস আমি বিছানায় ছিলাম। আমি দুই মাসের বেশি সময়ে শয্যাশায়ী ছিলাম। মাটিতে পা-ই রাখতে পারিনি ওই সময়ে। এর পর খোঁড়াতে খোঁড়াতে চলতাম। আমার জন্য সবচেয়ে কঠিন কাজ হয়ে উঠেছিল বাথরুমে যাওয়া, যেটা প্রথম তলায় ছিল। আমাকে সিঁড়ি দিয়ে উঠতে হত। শুধু আমি জানি, কীসের মধ্যে দিয়ে গিয়েছি। এটাই আমাকে মানসিক ভাবে কঠিন করে তুলেছে। তখন মনে হত, এর পর কী হত। সাত মাসের ব্যবধান একটা লম্বা সময়। সবটা কি ভোলা যায়? তবে মানসিক ভাবে শক্তিশালী থাকার চেষ্টা করেছিলাম এবং আমি জানতাম, আমি ফিরে আসব।

পাঁচ ছক্কা জীবন বদলে দিয়েছে:

আমি একই রকম ভাবে ব্যাটিং করছিলাম। সেই পাঁচটি ছক্কা আমার জীবন বদলে দিয়েছে। আগে খুব কম লোকই আমাকে চিনত। কিন্তু এখন সেই পাঁচ ছক্কার পর সবাই আমাকে চেনে। সাধারণ মানুষও আমার নাম রিঙ্কু-রিঙ্কু বলে চিৎকার করে। রাতারাতি হঠাৎ করেই সব কিছু বদলে গেল। কিন্তু আমি জানি আমি কোথা থেকে এসেছি। এই দুই মিনিটের খ্যাতি। এই লোক যারা বাহবা দিচ্ছে, আমি ব্যর্থ হলে, তারাই কালকে গালি দেবে।

রোহিতদের প্রস্তুতির রোজনামচা, পাল্লা ভারি কোন দলের, ক্রিকেট বিশ্বকাপের বিস্তারিত কভারেজ, সঙ্গে প্রতিটি ম্যাচের লাইভ স্কোরকার্ড । দুই প্রধানের টাটকা খবর, ছেত্রীরা কী করল, মেসি থেকে মোরিনহো, ফুটবলের সব আপডেট পড়ুন এখানে।

ময়দান খবর
বন্ধ করুন

Latest News

কলিঙ্গ যুদ্ধে ওড়িশাকে হারিয়ে ISL পয়েন্ট টেবলের মগডালে উঠতে মরিয়া মোহনবাগান অচেনা নম্বর থেকে ফোন এলেই দেখাবে নাম! নয়া নিয়মের পথে সরকার, কবে থেকে? ঝুপড়ি ভেঙে বহুতল গড়ে তুলল কেএমডিএ, খাস কলকাতায় মাথা তুলে দাঁড়াল ‘‌সূর্যতোরণ’‌ ‘ব্যর্থতা শিখিয়ে গিয়েছে..’,‘লাল সিং চাড্ডা’র ফ্লপ নিয়ে চমকে যাওয়া মন্তব্য আমিরের মাঘ পূর্ণিমায় রাশি অনুসারে করুন এই মন্ত্র জপ, লক্ষ্মীর কৃপায় মিটবে অর্থ সমস্যা বশ্যতা বিরোধী লড়াই চলছে, নন্দীগ্রাম হবে সন্দেশখালি: শুভেন্দু অধিকারী Ranji Trophy: দাদা সরফরাজের উপদেশকে হাতিয়ার করেই রঞ্জিতে প্রথম শতরান মুশির খানের বাবা রিক্সাচালক,বন্যায় হারান ভিটে,WPL-র শেষ বলে ছক্কা মেরে জেতানো এই সাজানা কে? সম্পর্কে মরচে ধরেছে, এই পাঁচটি পরামর্শ মেনে চলুন! পুরনো সম্পর্কও নতুন হবে CCL ম্যাচের ফাঁকে ছুটে এসে মাকে চুম্বন সলমনের, ‘নজর যেন না লাগে’, বলছে নেটদুনিয়া

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.