বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL Auction: কেউ আন্তর্জাতিক T20-র সুপারস্টার, কেউ বিদেশি লিগের সেরা, নিলামে দল পেলেন না এমনই ১১ জন

IPL Auction: কেউ আন্তর্জাতিক T20-র সুপারস্টার, কেউ বিদেশি লিগের সেরা, নিলামে দল পেলেন না এমনই ১১ জন

আইপিএল নিলামে অবিক্রিত থাকেন বেশ কিছু তারকা। ছবি- টুইটার।

ICC ব়্যাঙ্কিংয়ের দুই, তিন ও চার নম্বরে থাকা বোলার অবিক্রিত থাকেন আইপিএলের মেগা নিলামে।

কেউ আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটের সেরা তারকা। কেউ আবার বিশ্বের প্রথম সারির টি-২০ লিগের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন। সকলকে অবাক করে আইপিএলের মেগা নিলামে অবিক্রিত থাকলেন এমনই বেশ কিছু বিদেশি তারকা। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটের দুই, তিন ও চার নম্বর বোলার অবিক্রিত থাকেন মেগা নিলামে। দেখে নেওয়া যাক মেগা নিলামে অবিক্রিত থাকা এমনই ১১ জন বিদেশি ক্রিকেটারের তালিকা।

শাকিব আল হাসান: আইপিএলে নিয়মিতভাবে মাঠে নামতে দেখা যেত বাংলাদেশের তারকা অল-রাউন্ডারকে। এই মুহূর্তে আইসিসির ২ নম্বর টি-২০ অল-রাউন্ডার শাকিব। ২ কোটি টাকা বেস প্রাইসের শাকিব এবার অবিক্রিত থাকেন আইপিএল নিলামে।

স্টিভ স্মিথ: স্টিভ স্মিথ আইপিএলে তেমনভাবে নজর কাড়তে পারেননি কখনই। তবে তাই বলে তিনি দল পাবেন না, এমনটাও ভাবা সম্ভব ছিল না। যদিও এবার ২ কোটি টাকা বেস প্রাইসের অজি তারকাকে নিলামে দলে নিতে রাজি হয়নি কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি। 

তাবরাইজ শামসি: দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটের এক নম্বর বোলার ছিলেন শামসি। আপাতত বিশ্বের ২ নম্বর টি-২০ বোলার তিনি। ভারতে খেলা হবে আইপিএল, তাই প্রোটিয়া স্পিনার অনায়াসে দল পেয়ে যেতে পারেন বলে মনে করা হয়েছিল। যদিও কেউই আগ্রহ দেখায়নি ১ কোটি টাকা বেস প্রাইসের শামসিকে দলে নিতে।

ইয়ন মর্গ্যান: ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও গতবার ক্যাপ্টেন হিসেবে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে আইপিএলের ফাইনালে তুলেছিলেন ইয়ন মর্গ্যান। বেশ কয়েকটি দলের নেতা না থাকায় ওয়ান ডে বিশ্বকাপজয়ী ক্যাপ্টেনকে এবার দলে নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হয়েছিল। যদিও ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা বেস প্রাইসের ব্রিটিশ তারকাকে কেউই দলে নেয়নি।

বেন ম্যাকডারমট: ক'দিন আগেই বিগ ব্যাশ লিগের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন ম্যাকডারমট। যদিও আইপিএলে কতটা সফল হতে পারেন বেন, তা নিয়ে সংশয়ে ছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা। ফলে মাত্র ৫০ লক্ষ টাকা বেস প্রাইস হওয়া সত্ত্বেও অবিক্রিত থাকেন তিনি।

ইমরান তাহির: আন্তর্জাতিক ক্রিকেট না খেললেও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টি-২০ লিগ খেলে বেড়ান ইমরান তাহির। ৪৩ বছর বয়স হলেও ফিটনেসে খামতি নেই। যেখানেই মাঠে নামেন, হতাশ করেন না। চেন্নাই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে থাকে না বলেই এবার ধরে নেওয়া হচ্ছিল যে তিনি দল পেতে পারেন। যদিও ২ কোটি টাকা বেস প্রাইসের তাহিরকে কেউই দলে নেয়নি।

মুজিব উর রহমান: সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে আফগান স্পিনার অত্যন্ত কার্যকরী। ফলে তিনি দল পাবেন না, এমনটাও ভাবা সম্ভব ছিল না। শেষমেশ ২ কোটি টাকা বেস প্রাইসের মুজিব অবিক্রিত থাকেন।

ডেভিড মালান: দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটের এক নম্বর ব্যাটসম্যান ছিলেন মালান। টি-২০ বিশেষজ্ঞ হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করা মালান এবার দল পেয়ে যেতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছিল। যদিও ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা বেস প্রাইসের মালানকে কেউই দলে নেয়নি।

আদিল রশিদ: কার্যকরী স্পিনার। সঙ্গে ব্যাটের হাতটাও মন্দ নয়। ভারতের পিচে সফল হওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনা ছিল আদিল রশিদের। যদিও ব্রিটিশ স্পিনারকে ২ কোটি টাকায় কেউই দলে নেয়নি। তিনি এই মুহূর্তে বিশ্বের তিন নম্বর টি-২০ বোলার।

পল স্টার্লিং: আইরিশ তারকা দারুণ ফর্মে রয়েছেন। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টি-২০ লিগ খেলে বেড়ান তিনি। অত্যন্ত আগ্রাসী মেজাজের স্টার্লিংকে এবার কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি দলে নিতে পারে বলে ধরে নেওয়া হচ্ছিল। তবে ৫০ লক্ষ টাকা বেস প্রাইসের পলকে দলে নেয়নি কেউ।

অ্যাডাম জাম্পা: অজি স্পিনারের এবার আইপিএল নিলামে উপেক্ষিত থাকা অবাক করেছে বিশেষজ্ঞদের। এই মুহূর্তে বিশ্বের চার নম্বর টি-২০ বোলার তিনি। জাম্পার বেস প্রাইস ছিল ২ কোটি টাকা।

এছাড়া অ্যারন ফিঞ্চ, ক্রিস লিন, মার্টিন গাপ্তিল, জেমস ভিন্স, কেন রিচার্ডসন, কলিন মুনরো, অ্যান্ড্রু টাইরা অবিক্রিত থাকেন নিলামে। ফিঞ্চ, গাপ্তিলদের আইপিএল নিলামে অবিক্রিত থাকা অবশ্য এই প্রথম নয়। এর আগেও তাঁরা আইপিএল নিলামে নাম দিয়েও দল পাননি।

বন্ধ করুন