বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL: শাহরুখ নিজে ফোন করেছিলেন! KKR এর প্রস্তাব নিয়ে পাক ক্রিকেটারের মজার গল্প
IPL ট্রফি হাতে শাহরুখ খান (ছবি;কেকেআর টুইটার)
IPL ট্রফি হাতে শাহরুখ খান (ছবি;কেকেআর টুইটার)

IPL: শাহরুখ নিজে ফোন করেছিলেন! KKR এর প্রস্তাব নিয়ে পাক ক্রিকেটারের মজার গল্প

  • পাকিস্তানের প্রাক্তন অলরাউন্ডার ইয়াসির আরাফাত জানিয়েছেন যে কীভাবে তিনি আইপিএল ২০০৯-এর আগে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) দলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। সেই বোলার তখন প্রথমে এই কথাটি বিশ্বাস করতে পারেননি। তিনি ভাবেতই পারেননি দলের মালিক শাহরুখ খান বিশেষভাবে তার জন্য একটি চুক্তিপত্র পাঠিয়েছিলেন।

পাকিস্তানের প্রাক্তন অলরাউন্ডার ইয়াসির আরাফাত জানিয়েছেন যে কীভাবে তিনি আইপিএল ২০০৯-এর আগে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) দলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। তবে সেই বোলার তখন প্রথমে এই কথাটি বিশ্বাস করতে পারেননি। তিনি ভাবেতই পারেননি দলের মালিক শাহরুখ খান বিশেষভাবে তার জন্য একটি চুক্তিপত্র পাঠিয়েছিলেন। আরাফাত যখন কলকাতা নাইট রাইডার্সে যোগ দেওয়ার কথা হয়, তখন তিনি উমর গুল, মহম্মদ হাফিজ, শোয়েব আখতার এবং সলমন বাটের সাথে ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যোগদানকারী পঞ্চম পাকিস্তানি খেলোয়াড় হয়েছিলেন। চল্লিশ বছর বয়সী ক্রিকেটার জানিয়েছেন কেন শাহরুখ খান নিজে তাঁকে কলকাতার ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যোগদান করাতে চেয়েছিলেন।

সম্প্রতি,ক্রিকেট ডেনের ইউটিউব চ্যানেলে একটি কথোপকথনের সময়ফাস্ট বোলার সেই ঘটনার কথা জিনিয়েছেন। ২০০৮ সালে কেন্টের হয়ে কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে গিয়ে কেকেকেআর-এর স্কাউট দলের সঙ্গে তার দেখা হয়েছিল। তবে ক্রিকেট পাকিস্তানের খবরে বলা হয়েছিল তখন তিনি এটিকে একটি রসিকতা বলে মনে করেন। তারা বলেছিল, ‘প্রথম সংস্করণের জন্য নামগুলি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) দ্বারা বাছাই করা হয়েছিল এবং দুর্ভাগ্যবশত তাতেআমার নাম ছিল না এবং আমি খেলতে পারিনি। আমি ২০০৮ সালে কেন্টের হয়ে কাউন্টি ক্রিকেট খেলছিলাম যেখানে কেকেআর-এর স্কাউটিং দল বিশেষভাবে ভারত থেকে এসেছিল এবং তারা একটি ম্যাচ চলাকালীন আমার সাথে দেখা করেছিল।’

তিনি জানিয়েছিলেন যে শাহরুখ খান চেয়েছিলেন যেন তিনি তার দলের হয়ে খেলেন। তিনি বলেন, ‘প্রথমদিকে, আমি ভেবেছিলাম এটি একটি রসিকতা ছিল কেন শাহরুখ চুক্তির বিষয়ে কথা বলতে কাউকে পাঠাবেন। তিনি আমাকে একটি কার্ডও দিয়েছিলেন এবং আমার যোগাযোগের বিবরণ নিয়েছিলেন। যাইহোক,ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে খারাপ সম্পর্কের কারণে চুক্তিটি চূড়ান্ত হয়নি এবং ২০০৮ মরশুম থেকে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের আইপিএলে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

আরাফাত আরও বলেন যে তিনি কেন কেকেআর-এর প্রস্তাব গ্রহণ করেননি তা জানতে চেয়ে একটি ইমেলও পেয়েছেন এবং শাহরুখ খানও তাকে এই বিষয়ে ফোন করেছিলেন। ফাস্ট বোলার বললেন,‘কয়েক সপ্তাহ পরে, আমি যোগাযোগ না করার অভিযোগে একটি ইমেল পেয়েছিলাম এবং আলোচনা স্থগিত করা হয়েছিল। তিনি আবার আমাকে তিন বছরের চুক্তির প্রস্তাব দেন যেখানে শাহরুখ নিজেই আমাকে ফোন করে স্বাগত জানান। তিনি যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় লন্ডনে একজনের মাধ্যমে আমার চুক্তিও নিয়েছিলেন। তারপরে মুম্বইয়ে একটি বিস্ফোরণ ঘটে এবং পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা আর কখনও প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারেনি।’ ইয়াসির আরাফাতের পাকিস্তানের হয়ে ছোট ক্যারিয়ার ছিল। তিনি তিনটি টেস্ট, ১১টি ওয়ানডে এবং ১৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

বন্ধ করুন