বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > KKR vs LSG: 'আমি একেবারেই দুঃখিত নই', IPL থেকে ছিটকে গিয়েও স্পষ্ট বললেন KKR অধিনায়ক শ্রেয়স
কেকেআর অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার। (ছবি সৌজন্যে আইপিএল)

KKR vs LSG: 'আমি একেবারেই দুঃখিত নই', IPL থেকে ছিটকে গিয়েও স্পষ্ট বললেন KKR অধিনায়ক শ্রেয়স

  • KKR vs LSG: আইপিএলে লখনউ সুপার জায়েন্টসের বিরুদ্ধে দু'রানে হেরে গিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে হেরে এবারের আইপিএল থেকে ছিটকে গিয়েছেন শ্রেয়স আইয়াররা। তারপরও কেন এরকম মন্তব্য করলেন নাইট অধিনায়ক?

‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে হেরে এবারের আইপিএল থেকে ছিটকে গিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। তারপরও মন খারাপ করছেন না নাইট অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার। বরং ২১১ রান তাড়া করতে নেমে যেভাবে তাঁর ছেলেরা নিজেদের উজাড় করে দিয়েছেন, তাতে অত্যন্ত গর্ববোধ করছেন নাইট অধিনায়ক। সঙ্গে জানালেন, এটা তাঁর জীবনের অন্যতম সেরা ম্যাচ।

লখনউ সুপার জায়েন্টসের বিরুদ্ধে দু'রানে হারের পর শ্রেয়স বলেন, আমি একেবারেই দুঃখিত নই। কারণ, সত্যি কথা বলতে আমার জীবনের এটা অন্যতম সেরা ম্যাচ। আমাদের পারফরম্যান্সের উত্থান-পতন হয়েছে। কিন্তু এই ম্যাচে আমরা যেভাবে নিজেদের চারিত্রিক দৃঢ়তা, মানসিকতা তুলে ধরেছি, সেটা সত্যিই দুর্দান্ত।'

আরও পড়ুন: KKR vs LSG: ব্যর্থ হল রিঙ্কুর অবিশ্বাস্য লড়াই, জিততে জিততে শেষ বলে হার কলকাতার

বুধবার নবি মুম্বইয়ে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২১০ রান তোলে লখনউ। কেকেআর বোলাররা একটাও উইকেট তুলতে পারেননি। মরণবাঁচন ম্যাচে (যদিও সেই ম্যাচ জিতলেও প্লে-অফ নিশ্চিত হত না) রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় কেকেআর। সেখান থেকে ম্যাচের হাল ধরেন নীতিশ রানা (২২ বলে ৪২ রান), শ্রেয়স (২৯ বলে ৫০ রান) এবং স্যাম বিলিংস (২৪ বলে ৩৬ রান)।

কিন্তু তাঁরা কেউ শেষপর্যন্ত থাকতে পারেননি। ১১ বলে মাত্র পাঁচ রান করে আউট হয়ে যান আন্দ্রে রাসেলও। সেই পরিস্থিতিতে কেকেআরের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছিলেন রিঙ্কু সিং এবং সুনীল নারিন (সাত বলে অপরাজিত ২১ রান)। মাত্র ১৫ বলে ৪০ রান করেন রিঙ্কু। কিন্তু দু'বলে তিন রান বাকি থাকা অবস্থায় আউট হয়ে যান। শেষ বলে আউট হয়ে যান উমেশ যাদবও। তাতে কিছুটা হতাশ হলেও রিঙ্কুর ভূয়সী প্রশংসা করেন নাইট অধিনায়ক।

আরও পড়ুন: IPL 2022 Playoffs Scenario: শেষ চারে লখনউ, কলকাতার বিদায়ে বদলে গেল প্লে-অফের অঙ্ক, স্বস্তি পেল কারা?

শ্রেয়স বলেন, 'রিঙ্কু যেভাবে শেষপর্যন্ত আমাদের টেনে নিয়ে এসেছিল, সেটা দারুণ লেগেছে। যখন দু'বল বাকি ছিল, তখন দুর্ভাগ্যজনকভাবে ঠিকমতো টাইমিং করতে পারেনি। ও অত্যন্ত ভেঙে পড়েছে। আমরা আশা করছিলাম যে ও ম্যাচটা শেষ করে আসবে। ও নায়ক হয়ে যেতে পারত। তা সত্ত্বেও ও দুর্দান্ত খেলেছে। আমি ওর জন্য সত্যিই খুশি।'

বন্ধ করুন