বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2023 > LSG vs GT, IPL 2023: ইনিংসের দ্বিতীয় ভাগে আমরা পথ হারাই, শেষের দিকে রানও বেশি দিয়েছি- হাহুতাশ রোহিতের

LSG vs GT, IPL 2023: ইনিংসের দ্বিতীয় ভাগে আমরা পথ হারাই, শেষের দিকে রানও বেশি দিয়েছি- হাহুতাশ রোহিতের

রোহিত শর্মা।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে জিততে হলে শেষ ওভারে করতে হত ১১ রান। ক্রিজে ক্যামেরন গ্রিন, টিম ডেভিডের মতো আন্তর্জাতিক মানের তারকারা ছিলেন। ডেভিড তো আগের ওভারেই নবীন-উল-হককে পিটিয়ে ১৯ রান নিয়েছিলেন। সেই পরিস্থিতিতে বল করতে এসেও মাথা একেবারে ঠাণ্ডা রাখলেন মহসিন খান। মাত্র ৫ রান হল শেষ ওভারে। ৫ রানে জিতল লখনউ।

শুভব্রত মুখার্জি: মঙ্গলবার রাতে লখনউয়ের একানা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল লখনউ সুপার জায়ান্টস‌‌‌ এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। দুই দলের মধ্যে এক রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের সাক্ষী থাকল দর্শকেরা। দিনের শেষে মাত্র পাঁচ রানের ব্যবধানে জয়ী হল লখনউ সুপার জায়ান্টস। শেষ ওভারে মহসিন খানের দুরন্ত ইয়র্কার বোলিংয়ের বিরুদ্ধে ১১ রান করতেও অপারগ হলেন মু্ম্বইয়ের দুই ব্যাটার ক্যামেরন গ্রীন এবং টিম ডেভিড। ইশান কিষাণের ঝোড়ো ইনিংসে ম্যাচে একটা সময় আ্যাডভান্টজ অবস্থায় থাকা মুম্বইকে শেষ পর্যন্ত হারের সম্মুখীন হতে হয়। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা এতটা ক্লোজ ম্যাচ হেরে স্বাভাবিক ভাবেই ছিলেন হতাশ।

আরও পড়ুন: শেষ ওভারে অসাধ্যসাধন, ICU থেকে ফেরা বাবার কথা মনে করে আবেগপ্লুত মহসিন

ম্যাচ শেষে রোহিত শর্মা বলেছেন, ‘আমরা ভালো খেলতে পারিনি। যতটা ভালো খেললে, একটা ম্যাচ জেতা যায় সেটা আমরা করতে পারিনি। ম্যাচে ছোট ছোট মুহুর্ত ছিল। দুর্ভাগ্যজনক ভাবে সেই সব মুহূর্ত আমরা জিততে পারিনি। আমরা পিচের চরিত্রটা খুব ভালো ভাবে বুঝতে পেরেছিলাম। এই পিচটা ব্যাটিং সহায়ক উইকেট ছিল। লখনউয়ের অন্যান্য ম্যাচের থেকে যথেষ্ট আলাদা ছিল এই উইকেট। এই উইকেটে এই রানটা ভালো ভাবেই তাড়া করা যেতে পারত। তবে আমাদের ইনিংসের দ্বিতীয় ভাগে আমরা যেন পথ হারাতে শুরু করি।’

আরও পড়ুন: স্কুপ খেলতে গিয়ে বল মারলেন উইকেটে, উড়ল স্টাম্প, ঠাকুরের দাপটে অস্তাচলে সূর্য- ভিডিয়ো

রোহিত আরও বলেছেন, ‘ইনিংসের শেষ দিকে (লখনউয়ের) আমরা অনেক বেশি রান দিয়ে ফেলি। শেষ তিন ওভারে অনেক বেশি রান উঠে যায়। তবে আমরা যে ভাবে রান তাড়া করতে নেমে ব্যাটিং শুরু করেছিলাম, তাতে আমরা একটা ভালো জায়গায় ছিলাম। তবে আমি যেটা আগেই বললাম, ইনিংসের দ্বিতীয় ভাগে আমরা কোথাও যেন পথ হারিয়ে ফেলি। স্টইনিস এ দিন‌ দারুণ ব্যাট করেছে। ও সব বলকে সোজা মারার চেষ্টা করেছে। এই ধরনের পিচে এই ভাবেই খেলাটা সঠিক। দুর্দান্ত একটা ইনিংস ছিল। নেট রানরেট,পয়েন্ট তালিকা এই সব নিয়ে সঠিক ধারণা নেই, আমি ভাবছিও না। আমাদের যেটা করতে হবে পরের ম্যাচে নেমে (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ) আমাদের খুব ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে।’

এ দিন প্রথমে ব্যাট করে ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার অপরাজিত ৪৯ এবং মার্কাস স্টইনিসের অপরাজিত ৮৯ রানে ভর করে তিন উইকেটে ১৭৭ রান করে লখনউ। জবাবে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানেই আটকে যায় মুম্বই। ইশান ঝোড়ো ৫৯ এবং রোহিত শর্মা ৩৭ রান করেন। শেষ দিকে ১৯ বলে ৩২ রানে অপরাজিত থেকে লড়াই চালান টিম ডেভিড। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। ফলে পাঁচ রানে ম্যাচ হারতে হয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে।

বন্ধ করুন