বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > ‘বিপক্ষরা ভাববে,৪০০-ও কম’, বীরুর মতে, DC-র ২ তারকার হাত ধরে ভারত বিশ্ব শাসন করবে
পৃথ্বী শ' এবং ঋষভ পন্ত।

‘বিপক্ষরা ভাববে,৪০০-ও কম’, বীরুর মতে, DC-র ২ তারকার হাত ধরে ভারত বিশ্ব শাসন করবে

  • পৃথ্বী এবং ঋষভ উভয়েরই তাঁদের টেস্ট কেরিয়ার উজ্জ্বল ভাবে শুরু করেছিল। কিন্তু তার পর থেকে তাদের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার ভিন্ন দিকে চলে গেছে। যদিও পন্ত ইতিমধ্যে ম্যাচের রং পরিবর্তন করার ক্ষমতা নিয়ে দীর্ঘতম ফরম্যাটে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক ব্যাটারদের একজন হয়ে উঠেছেন।

প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেহওয়াগ দাবি করেছেন, ভারতের দুই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ঋষভ পান্ত এবং পৃথ্বী শ'-র হাত ধরে ভারত বিশ্ব ক্রিকেট শাসন করবে। এবং বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপও জিতবে। একটা সময়ে বিরোধীরা মনে করবে, ভারতীয় দলে পৃথ্বী ঈর পন্ত থাকলে, ৪০০ রানও যথেষ্ট নয়।

স্পোর্টস-১৮-তে শো হোম অফ হিরোসে বীরু বলেছেন, ‘ও(পৃথ্বী শ) এমন একজন খেলোয়াড়. যে টেস্ট ক্রিকেটে উত্তেজনা ফিরিয়ে আনতে পারে।’ তিনি এর সঙ্গেই যোগ করেছেন, ‘বিরোধীদের ভাবতে হবে যে, আমাদের দলে শ' এবং পন্তের মতো ক্রিকেটার রয়েছে। তারা থাকলে ৪০০রানও যথেষ্ট হবে কিনা। শ' এবং পন্ত এক সঙ্গে দলে থাকলে, টেস্ট ক্রিকেটে ভারত রাজত্ব করতে, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে সাহায্য করতে পারে।’

পৃথ্বী এবং ঋষভ উভয়েরই তাঁদের টেস্ট কেরিয়ার উজ্জ্বল ভাবে শুরু করেছিল। কিন্তু তার পর থেকে তাদের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার ভিন্ন দিকে চলে গেছে। যদিও পন্ত ইতিমধ্যে ম্যাচের রং পরিবর্তন করার ক্ষমতা নিয়ে দীর্ঘতম ফরম্যাটে বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক ব্যাটারদের একজন হয়ে উঠেছেন। ২০২০-২১ সালে নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া সফর এতটা অনুকূল না হওয়ায়, পৃথ্বী ভারতীয় টেস্ট দল থেকে দূরে ছিলেন।

আরও পড়ুন: ফ্যাক্টর যখন DC vs MI, IPL-এ প্রথম বার ১টি ম্যাচের উপর নির্ভর করছে ২ দলের ভাগ্য

তিনি যিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তাঁর অভিষেক টেস্টে ঝকঝকে সেঞ্চুরি করেছিলেন এবং পরবর্তীতে একটি অর্ধশতরান করেছিলেন। সর্বশেষ ২০২০ সালের ডিসেম্বরে অ্যাডিলেডে একটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। মুম্বইয়ের এই তরুণ ডানহাতি অবশ্য আইপিএল সহ ঘরোয়া সার্কিটে সাদা বলের ক্রিকেটের বিভিন্ন ফরম্যাটে প্রচুর রান করেছেন।

টেস্ট ক্রিকেটে পন্তের গড় ৪০। এবং ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় তাঁর নামে ইতিমধ্যেই সেঞ্চুরি রয়েছে। কিন্তু সীমিত ওভারের ক্রিকেটে তার প্রত্যাবর্তন সন্তোষজনক হয়নি।

ওডিআই এবং টি-টোয়েন্টিতে সে ভাবে সাফল্য পাচ্ছেন না পন্ত। তবে সেহওয়াগ দাবি করেছেন, সীমিত ওভারের ক্রিকেটে পন্ত ওপেন করলে আরও বেশি সফল হবেন।

তাঁর মতে, ‘আমরা ৫০ বা ১০০ রান করার জন্য সীমিত ওভার খেলি না কিন্তু দ্রুত গতিতে স্কোর করতে হয়। পরিস্থিতি বা প্রতিপক্ষ যাই হোক না কেন। তবে ৪ বা ৫-এ খেলে আরও বেশি দায়িত্ব নিতে হচ্ছে। তবে যদি ও ওপেন করে, তবে অনেক বেশি সফল হবে।’

বন্ধ করুন