বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে নাও খেলতে পারে রিয়াল, ম্যান সিটি এবং চেলসি
চ্যাম্পিয়ন লিগে আর খেলতে পারা নাও হতে পারে ম্যান সিটি, চেলসি আর রিয়ালের।
চ্যাম্পিয়ন লিগে আর খেলতে পারা নাও হতে পারে ম্যান সিটি, চেলসি আর রিয়ালের।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে নাও খেলতে পারে রিয়াল, ম্যান সিটি এবং চেলসি

  • বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, আটলেটিকো মাদ্রিদ সহ ইউরোপের প্রথম সারির ১২টি ক্লাব রবিবারই উয়েফার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে দেয়। সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পরিবর্তে নতুন শুরু হতে চলা সুপার লিগে অংশ নেওয়ার কথাও তারা জানিয়ে দেয়।

প্রবল ঝড় উঠেছে ইউরোপিয়ান ফুটবলে। যার জেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আকাশে নিকষ কালো মেঘের ঘনঘটা। ২০২১ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ভবিষ্যৎ নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। এই টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ, চেলসি, ম্যাঞ্চেস্টার সিটি এবং পিএসজি। একমাত্র পিএসজি ছাড়া বাকি তিন ক্লাব বিদ্রোহী সুপার লিগে নাম লিখিয়েছে। যার জেরে এই তিন ক্লাবের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হতে পারে। 

বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, আটলেটিকো মাদ্রিদ সহ ইউরোপের প্রথম সারির ১২টি ক্লাব রবিবারই উয়েফার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে দেয়। সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পরিবর্তে নতুন শুরু হতে চলা সুপার লিগে অংশ নেওয়ার কথাও তারা জানিয়ে দেয়। উয়েফাও ইতিমধ্যে এই ১২টি  ক্লাবকে নিষিদ্ধ করার কথা ঘোষণা করেছে। স্বভাবতই এই তিনটি ক্লাবকে যদি খেলতে না দেয় উয়েফা, সে ক্ষেত্রে হয়তো পিএসজি-কে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হতে পারে। কিন্তু এতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের আকর্ষণটাই পুরো হারিয়ে যাবে।

সূত্রের খবর, ইউরোপের এই তিন প্রথম সারির ক্লাবকে চলতি মরশুমেই ব্যান করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে উয়েফা। সেক্ষেত্রে এই তিন ক্লাব সেমিফাইনালে উঠলেও টুর্নামেন্টের পরবর্তী পর্যায়ের খেলতে পারবে না।

২৮ এপ্রিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম লেগের ম্যাচ ছিল রিয়াল এবং চেলসির মধ্যে। আর ২৯ এপ্রিল পিএসজি-র সঙ্গে ম্যান সিটির প্রথম লেগের খেলা ছিল। ফিরতি লিগের ম্যাচ ৫ ও ৬ মে হওয়ার কথা ছিল। শোনা যাচ্ছে শুক্রবারের মধ্যেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে পারে উয়েফা। 

উয়েফার এক কার্যকরী কমিটির সদস্য, যিনি আবার ডেনমার্ক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান, জানিয়েছেন, ‘সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার পরেই কী ভাবে চলতি মরশুম শেষ হবে, সেটা নিয়ে আমরা আলোচনা করব।’  সব মিলিয়ে শুক্রবার উয়েফার কার্যকরী কমিটির বৈঠকে একটি ঐতিহাসিক সিদান্ত নেওয়া হতে চলেছে।

বন্ধ করুন