বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > শেষ বলে কীভাবে আটকালেন স্যামসনকে? রহস্য ফাঁস তরুণ পঞ্জাব পেসারের
শেষ বলে স্যামসনকে আউট করার পর অর্শদীপের উচ্ছ্বাস। ছবি- আইপিএল।
শেষ বলে স্যামসনকে আউট করার পর অর্শদীপের উচ্ছ্বাস। ছবি- আইপিএল।

শেষ বলে কীভাবে আটকালেন স্যামসনকে? রহস্য ফাঁস তরুণ পঞ্জাব পেসারের

  • রাজস্থান রয়্যালস অধিনায়ককে ম্যাচের শেষ বলে আউট করে পঞ্জাব কিংসকে জয় এনে দেন তরুণ পেসার। 

জয়ের জন্য শেষ ওভারে রাজস্থান রয়্যালসের প্রয়োজন ছিল মাত্র ১৩ রান। ক্রিজে ছিলেন শতরানকারী সঞ্জু স্যানসন ও অভিজ্ঞ ক্রিস মরিস। পঞ্জাবকে জিততে হলে স্যামসনদের ১১ রানের মধ্যে আটকে রাখতে হতো। রাজস্থান ১২ রান তুললে ম্যাচ গড়াত সুপার ওভারে। 

টি-২০ ক্রিকেটে, বিশেষ করে আইপিএলে এমন পরিস্থিতি থেকে ব্যাটিং করা দলের অনায়াসে ম্যাচ জিতে যাওয়ার নজির রয়েছে বিস্তর। তাই বোলারের পক্ষে কাজটা মোটেও সহজ ছিল না। সেই কঠিন কাজটাই অবশ্য অনায়াসে করে দেখালেন পঞ্জাব কিংসের তরুণ পেসার অর্শদীপ সিং।

ঝাই রিচার্ডসন, মহম্মদ শামির মতো আন্তর্জাতিক তারকারা দলে থাকা সত্ত্বেও পঞ্জাব শেষ ওভারের জন্য বাঁচিয়ে রাখে অর্শদীপকে। ২২ বছর বয়সী ঘরোয়া ক্রিকেটার হতাশ করেননি ক্যাপ্টেনকে।

শেষ বলে রাজস্থানের দরকার ছিল ৫ রান। বাউন্ডারি মারলেই স্কোর লেভেল হয়ে যেত। স্যামসন ছক্কা হাঁকালে ম্যাচ হাতছাড়া হতো পঞ্জাবের। যদিও শেষ বলে রাজস্থান অধিনায়ককে আউট করেন অর্শদীপ। পঞ্জাব ৪ রানের উত্তেজক জয় ছিনিয়ে নেয়।

ইতিমধ্যেই ৭টি ছক্কা হাঁকানো সঞ্জুকে শেষ বলে কীভাবে আটকালেন, ম্যাচের শেষে সেটাই জানালেন অর্শদীপ। তিনি বলেন, ‘ফিল্ডিং সাজানো হয়েছিল পরিকল্পনা মতো। পরিকল্পনা ছিল স্যামসনকে বাইরে খেলানোর। ওয়াইড ইয়র্কার করতে পারলে স্যামসনের পক্ষে ছক্কা মারা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে জানতাম।’

বন্ধ করুন