বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > টিম ইন্ডিয়ার হয়ে টেস্ট খেলাই মূল লক্ষ্য দেবদূত পাডিক্কালের
বিরাট কোহলি ও দেবদূত পাডিক্কাল। ছবি- বিসিসিআই।
বিরাট কোহলি ও দেবদূত পাডিক্কাল। ছবি- বিসিসিআই।

টিম ইন্ডিয়ার হয়ে টেস্ট খেলাই মূল লক্ষ্য দেবদূত পাডিক্কালের

  • IPL-এর গত মরশুমে দুরন্ত ব্যাটিং করেন তরুণ ওপেনার।

শুভব্রত মুখার্জি

আমিরশাহিতে অনুষ্ঠিত আইপিএলের মঞ্চে বিরাট কোহলির আরসিবি দলের হয়ে অভিষেক ঘটে দেবদূত পাডিক্কালের। করোনা পরবর্তীতে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রথম আইপিএলে ব্যাট হাতে যথেষ্ট ভালো ফর্মে দেখা গিয়েছিল আরসিবির তরুণ তুর্তিকে। বাঁ-হাতি এই ওপেনারের ব্যাটিং, তাঁর শট খেলার ধরন দেখে অনেকেই তাকে ভারতের প্রাক্তন বাঁ-হাতি অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংয়ের সাথে তুলনা করেছিলেন।

যে দলে বিরাট কোহলি, এবি ডিভিলিয়ার্স রয়েছেন, সেই দলে একটা মরশুমে দুই কিংবদন্তিকে ছাপিয়ে সর্বাধিক রান করা মোটেও সহজ ব্যাপার নয়। ১৫টি ম্যাচে পাড্ডিকাল মোট ৪৭৩ রান করেন। ১২৪.৮০ গড়ে ৫টি অর্ধশতরান সহ তিনি এই রান করেছিলেন। বাঁ-হাতি এই ওপেনিং ব্যাটসম্যান নতুন মরশুম শুরুর আগে নয়া লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছেন। কি তাঁর পরিকল্পনা, সেই বিষয়ে বিশদে মুখ খুললেন তিনি।

হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, 'এটা অত্যন্ত স্পেশাল অভিজ্ঞতা ছিল আমার জন্য। ওদের থেকে আপনি অনেক কিছু শিখতে পারবেন। খেলার প্রতি তাদের যে প্যাশান রয়েছে, যেভাবে তারা খেলাটা খেলে, ব্যস্ততম শিডিউলের মধ্যেও তারা যেভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে, এতবড় টুর্নামেন্ট, এত চাপ তারা যেভাবে হ্যান্ডেল করে তা দেখার মতন। এটা আমি ওদের থেকে সবসময় শেখার চেষ্টা করি।'

কোহলির সঙ্গে একসাথে ড্রেসিংরুম শেয়ার করার ব্যাপারে দেবদূত জানান, 'ও এতবেশি উচ্চতায় নিজেকে নিয়ে গিয়ে ব্যাট করে যে আপনি যখন ওর সাথে ব্যাট করছেন তখন আপনাকেও নিজের খেলাটা সেই পর্যায়ে নিয়ে যেতে হয়। এটা আমার খেলার উন্নতিতে খুব সাহায্য করেছে। ওর সাথে ব্যাটিং করার সময়ে ব্যাটিংটা অনেক সহজ হয়। বিরাট খেলাটা খুব ভালো বোঝে। কখন ঝুঁকি নিতে হয়, কখন নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে হয় সেটা ওর কাছ থেকে শেখার মতন। আপনি যখন অপর প্রান্তে দাঁড়িয়ে এত একজন অভিজ্ঞতাসম্পন্ন, জ্ঞানী মানুষের সাথে খেলছেন তখন আপনার পক্ষে খেলাটা অনেক সহজ হয়ে যায়।'

সম্প্রতি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজে জাতীয় দলে তিনি ডাক পাননি। সেই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে পাড্ডিকাল জানান, 'শেষ ২-৩ বছরে একটা জিনিস শিখেছি যে, দলে নির্বাচন নিয়ে এতবেশি চিন্তাভাবনা করতে নেই। কারন দল নির্বাচনটা আমার হাতে নেই। প্রতিদিন আমি আমার খেলার উন্নতি ঘটানোর সবসময় চেষ্টা করি। আমি একটা সময় দল নির্বাচন নিয়ে ভাবতাম। কিন্তু শেষ কয়েক বছরে আমি নিজের খেলার প্রতি মনোযোগ বাড়িয়েছি। আমার এখন একটাই লক্ষ্য, যখন যে দলের হয়ে খেলছি, সবসময় যাতে রানটা করতে পারি। আমি জানি ভারতীয় দলে প্রত্যেকটি স্পটের জন্য প্রতিযোগিতা রয়েছে। আমি যদি ব্যাট হাতে নিজের সেরাটা দিতে পারি তাহলে একদিন না একদিন নির্বাচিত হব দলে। ভারতীয় টেস্ট দলের হয়ে খেলাটা আমার কাছে স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন পূরনের লক্ষ্যে আমি নিজেকে প্রস্তুত করি।'

বন্ধ করুন