বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > ভিডিয়ো: পুরানো ছন্দে ধোনি, আবেগ ধরে রাখতে না পেরে কেঁদেই ফেললেন সাক্ষী
গ্যালারিতে সাক্ষী ধোনি (ছবি:আইপিএল)
গ্যালারিতে সাক্ষী ধোনি (ছবি:আইপিএল)

ভিডিয়ো: পুরানো ছন্দে ধোনি, আবেগ ধরে রাখতে না পেরে কেঁদেই ফেললেন সাক্ষী

  • মাহির পুরানো ফর্ম দেখে খুশি আপামোর ক্রিকেট ভক্ত। এদিন ধোনি যখন দুবাইয়ের মাঠে একের পর এক বাউন্ডারি মারছেন তখন দর্শক স্ট্যান্ডে বসে থাকা ধোনির স্ত্রীর বাধ ভাঙা খুশির ছবি ধরা পরে ক্যামেরায়।

চলতি আইপিএল-এর প্রথম কোয়ালিফায়ারে ফায়ারিং মুডে ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ব্যাট হাত একেবারে পুরানো ছন্দে ছিলেন মাহি। ৬ বলে করলেন ১৮ রান। ধোনির এদিনের ইনিংস ছিল একটি ছক্কা আর চারটি বাউন্ডারি দিয়ে সাজানো। মাহি যে গ্রেট ফিনিশার তা আবার একবার প্রমাণ করলেন ৪০ বছরের মাহি। এদিনের ইনিংসের মাধ্যমে নিজের সমালোচকদের জবাব দিলেন মাহি।  

মাহির পুরানো ফর্ম দেখে খুশি আপামোর ক্রিকেট ভক্ত। এদিন ধোনি যখন দুবাইয়ের মাঠে একের পর এক বাউন্ডারি মারছেন তখন দর্শক স্ট্যান্ডে বসে থাকা ধোনির স্ত্রীর বাধ ভাঙা খুশির ছবি ধরা পরে ক্যামেরায়। কখনও তিনি মাহির জন্য প্রাথর্না করলেন, কখনও টেনশনে দুহাত চেপে বসে থাকলেন, আবার কখনও মেয়ে জিভাকে জড়িয়ে ধরলেন। আবার সাক্ষীকে কাঁদতেও দেখা গিয়েছে। এমনই ছবি দেখা গেল রবিবারের দুবাই-এ। এদিন নিজের আবেগকে ধরে রাখতে পারলেন না সাক্ষী।     

এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল চেন্নাই। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৭২ রান তোলে ঋষভ পন্তদের দিল্লি। একটা সময় মনে হয়েছিল দুবাইয়ের এই উইকেটে সহজেই জিতে যাবেন ঋষভরা। কিন্তু কোথায় কি। রুতুরাজ গায়কোয়াডের ৫০ বলে ৭০ রানের ইনিংস সকলকে ভুল প্রমাণ করেন। তবে রুতুরাজ ও মইন আলি আউট হয়ে যাওয়ার পরে একটা সময় চাপে পড়ে গিয়েছিল চেন্নাই।

সেই সময় ত্রাতার ভূমিকায় বাইশ গজে নাবেন মাহি। গ্রেট ফিনিশারের ভূমিকায় খেলা শেষ করলেন। বহু সমালোচকের জবাব যেন তিনি এদিন নিজের ব্যাট দিয়ে দিলেন। রুতুরাজ আউট হয়ে যেতে সাত নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমেছিলেন মাহি। সমালোচকরা নানা প্রশ্ন তুলছিলেন। কেন শার্দুল ঠাকুর আগে নামলেন? কেন ধোনি সাতে? কেন জাদেজাকে আগে নামান হল না। 

তবে সকলকে নিজের ব্যাট দিয়ে জবাব দিলেন মাহি। এদিন মাহির ব্যাটিং দেখে আবেগে ভেসে গেলেন মহেন্দ্র সিং ধোনির স্ত্রী সাক্ষী ধোনিও। চার মেরে যখন মাহি ম্যাচ জেতাচ্ছেন তখন গ্যালারিতে বসে থাকা সাক্ষী কেঁদেই ফেলেছিলেন। সেই ভিডিয়ো টিভির পর্দায় ভেসে ওঠে। সেখানে দেখা যায় সাক্ষী কাঁদতে কাঁদতে জিভাকে জড়িয়ে ধরেন। যেই ছবি মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়।

বন্ধ করুন