বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > আসন্ন IPL 2022 মেগা নিলামে ক্রিস মরিস-কাইল জেমিসনদের ভাগ্যে কী লেখা আছে!
ক্রিস মরিস-কাইল জেমিসনদের ভাগ্য কী লেখা আছে (ছবি:আইপিএল)

আসন্ন IPL 2022 মেগা নিলামে ক্রিস মরিস-কাইল জেমিসনদের ভাগ্যে কী লেখা আছে!

  • তাদের অনেকেই ২০২১ আইপিএল-এ নিজেদের মূল্যের সঙ্গে নিজের মানের যোগ্যতা প্রমাণ করেত পারেনি। ফলস্বরূপ, IPL নিলাম ২০২২-এ তাদের মূল্য কমে যেতে পারে। চলুন দেখে নেওয়া যাক সেই তালিকার তিনজন খেলোয়াড়কে IPL নিলাম ২০২২-এ যাদের বেতন কমে যেতে পারে।

আইপিএল নিলাম ২০২২ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে চতুর্থ মেগা নিলাম হবে। আগের তিনটি মেগা নিলাম ২০১১, ২০১৪ এবং ২০১৮ সালে আয়োজিত হয়েছিল। মিনি নিলামের তুলনায় মেগা নিলামের নিয়ম ভিন্ন। প্রথম এবং সর্বাগ্রে, একটি মেগা নিলামের আগে দলগুলি সর্বোচ্চ তিন থেকে পাঁচজন খেলোয়াড়কে রিটেন করে। একটি মিনি নিলামের আগে ধরে রাখার জন্য সর্বোচ্চ সীমা নেই।

সাধারণত, দলগুলি একটি মিনি-নিলামে অতিরিক্ত ব্যয় করার প্রবণতা রাখে কারণ তাদের কাছে প্রচুর তহবিল থাকে তবে বেশিরভাগ শীর্ষ-মানের খেলোয়াড় নিলাম পুলে জায়গা পায় না। একটি মেগা-নিলামের ক্ষেত্রে বিপরীতটি হয়, যেখানে অনেক বড় নাম পাওয়া যায় তবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলিকে তাদের তহবিলগুলি বুদ্ধিমানের সঙ্গে ব্যবহার করতে হয়। আইপিএল ২০২১ মরশুমের আগে একটি মিনি-নিলাম হয়েছিল এবং বেশ কয়েকটি আশ্চর্যজনক নামের সঙ্গে ফ্র্যাঞ্চাইজি গুলো বড় চুক্তি করেছিল। যাইহোক, তাদের অনেকেই ২০২১ আইপিএল-এ নিজেদের মূল্যের সঙ্গে নিজের মানের যোগ্যতা প্রমাণ করেত পারেনি। ফলস্বরূপ, IPL নিলাম ২০২২-এ তাদের মূল্য কমে যেতে পারে। চলুন দেখে নেওয়া যাক সেই তালিকার তিনজন খেলোয়াড়কে IPL নিলাম ২০২২-এ যাদের বেতন কমে যেতে পারে।

প্রথমেই রয়েছেন ক্রিস মরিস IPL ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় যিনি নিলামে ১৬ কোটি টাকার বেশি মূল্য পেয়েছিলেন। আইপিএল ২০২১-এ মরিসের থেকে শুধুমাত্র বিরাট কোহলির বেতন বেশি ছিল। কোহলি পেতেন ১৭ কোটি টাকা। দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ক্রিকেটারকে আইপিএল ২০২১-এ রাজস্থান রয়্যালস নিয়েছিল। তিনি এই মরশুমে ৬৭ রান করেছেন এবং ১৫টি উইকেট নিয়েছেন। কিন্তু মনে করা হচ্ছে মরিস আইপিএল নিলাম ২০২২-এ এত বড় চুক্তি নাও পেতে পারে।

দুই নম্বরে রয়েছেন কাইল জেমিসন। আইপিএল ২০২১-এর আগে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের হাত ধরে প্রথম আইপিএল চুক্তি বদ্ধ হয়েছিলেন। ব্যাঙ্গালোর-ভিত্তিক ফ্র্যাঞ্চাইজি তাকে ১৫ কোটি টাকাতে স্বাক্ষর করেছিল। তবে এই তালিকার অন্যান্য খেলোয়াড়দের মতো জেমিসন খুব একটা মুগ্ধ করতে পারেননি। নিউজিল্যান্ড তারকা নয়টি ম্যাচ খেলেছেন, যেখানে তিনি ৯.৬১ ইকোনমি রেটে নয়টি উইকেট শিকার করেছেন। জেমিসন ১২০-এর কম স্ট্রাইক রেটে ৬৫ রান করেছেন। আইপিএল নিলাম ২০২২-এ একটি দল তার পরিষেবার জন্য ১৫ কোটি টাকা খরচ করে এমন ফল আশা করবে না নিশ্চিত।

তিন নম্বরে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান পেস বোলার ঝাই রিচার্ডসন। রিচার্ডসন আইপিএল নিলামে পঞ্জাব কিংস থেকে ১৪ কোটি টাকা অর্জন করেছেন। ডানহাতি পেসার কখনও আইপিএলে খেলেননি, কিন্তু কিংস তাকে সই করার জন্য ব্যাঙ্ক ভেঙেছিল। রিচার্ডসন তার প্রথম আইপিএল মরশুমে বড় প্রভাব ফেলতে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি মাত্র তিনটি ম্যাচ খেলেছেন, যেখানে তিনি ১০.৬৪ ইকোনমি রেটে তিনটি উইকেট নিয়েছেন। মনে করা হচ্ছে এবারের আইপিএল-এ তাঁর মূল্য অনেকটাই কমবে।

বন্ধ করুন