বাংলা নিউজ > ময়দান > কৃষক আন্দোলন নিয়ে মন্তব্যের পর সব সতীর্থকে পাশে পেলেন না সচিন
সচিন তেন্ডুলকর। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
সচিন তেন্ডুলকর। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

কৃষক আন্দোলন নিয়ে মন্তব্যের পর সব সতীর্থকে পাশে পেলেন না সচিন

  • সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সন্দীপ শর্মাও টুইট করেছিলেন। পরে সেই টুইট ডিলিট করে দিয়েছেন।

শুভব্রত মুখার্জি

ভারতের কৃষক বিদ্রোহকে ঘিরে যেন আড়াআড়িভাবে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে ভারতের ক্রীড়ামহল। সেই আন্দোলনের উপর চাপ ক্রমশ বেড়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের উপরে।

পপ গায়িকা রিহানা, মিয়া খলিফা, গ্রেটা থানবার্গের মতো সেলিব্রিটিরা কৃষক আন্দোলন নিয়ে মুখ খুলেছেন। তা নিয়ে পালটা মুখ খুলেছে বলিউড এবং ক্রিকেট মহলের একটি অংশ।ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে অন্য কাউকে নাক না গলানোর পরামর্শ দিয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর, অনিল কুম্বলেরা।

তবে কৃষক আন্দোলনের সমর্থনেও মুখ খুলেছেন কয়েকজন ক্রিকেটার। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ সন্দীপ শর্মা টুইটারে লেখেন, ভারতের বিদেশমন্ত্রক রিহানার বক্তব্যে সমালোচনা করেছেন। অনেকেই সেই সমালোচনা করেছেন। যাতে বলা হয়েছে, 'এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। সেই যুক্তি যদি দিই, তাহলে বলতে হয় জার্মানির বাইরের কারও ইহুদি হত্যা নিয়ে নিন্দা করার অধিকার নেই। পাকিস্তানের বাইরের কারও পাকিস্তানে শিখ, হিন্দু, আমেদিয়া, খ্রিস্টানদের হত্যার নিন্দা করার অধিকার নেই। চিনের বাইরের কারও চিনে উইঘুর মুসলিমদের উপর নির্যাতনের অধিকার নেই।' যদিও পরে সেই টুইট ডিলিট করে দিয়েছেন।

একইসুরে সচিনের প্রাক্তন সতীর্খ ইরফান খান বলেন, 'জর্জ ফ্লয়েডকে যখন আমেরিকায় নৃশংসভাবে পুলিশ হত্যা করেছিল, তখন কিন্তু আমাদের দেশও সঠিকভাবে নিজেদের দুঃখপ্রকাশ করেছিল।' এরপর হ্যাশট্যাগে ‘জাস্ট সেয়িং’ লেখেন তিনি।

বন্ধ করুন