বাংলা নিউজ > ময়দান > ISL 2020-21: চারজনকে কাটিয়ে গোল ব্রাইটের, গোয়ার বিরুদ্ধে ড্র ১০ জনের এসসি ইস্টবেঙ্গলের
গোলের পর ব্রাইট এনোবাখারে। (ছবি সৌজন্য আইএসএল)
গোলের পর ব্রাইট এনোবাখারে। (ছবি সৌজন্য আইএসএল)

ISL 2020-21: চারজনকে কাটিয়ে গোল ব্রাইটের, গোয়ার বিরুদ্ধে ড্র ১০ জনের এসসি ইস্টবেঙ্গলের

  • দেখে নিন ব্রাইটের বিশ্বমানের গোলের ভিডিয়ো।

শুভব্রত মুখার্জি

নাইজেরিয়ায় ফুটবলার ব্রাইট এনোবাখারের অসাধারণ পারফরম্যান্সে পরপর দু'ম্যাচে এসসি ইস্টবেঙ্গল শিবিরে আলোকের ঘনঘটা। যে এসসি ইস্টবেঙ্গল ম্যাচের পর ম্যাচ জয়ের দেখা পাচ্ছিল না, তারাই নতুন বছরে একেবারে নতুন রুপে। নতুন বছরের প্রথম ম্যাচেই তারা চলতি আইএসএলের প্রথম জয় পেয়েছে। তাই এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে লাল-হলুদকে নিয়ে প্রত্যাশার পারদ চড়েছিল।

লাল কার্ড দেখে অধিনায়ক ফক্স বেরিয়ে না গেলে হয়ত ম্যাচের ফল এসসি ইস্টবেঙ্গলের পক্ষেও যেতে পারত। ওড়িশা ম্যাচে দুরন্ত ফর্মে থাকা ব্রাইট এনোবাখারে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধেও করলেন বিশ্বমানের গোল। তবে চিরাচরিত রোগের শিকার হলেন তাঁরা। সেই গোলের দু'মিনিটের মধ্যেই রক্ষণের ভুলে গোল হজম করল এসসি ইস্টবেঙ্গল।

বুধবার দশ জনে অসাধারণ লড়াই চালিয়েও এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল রবি ফাওলারের ছেলেদের। বুধবার ম্যাচের শুরুতে একাদশে ছিলেন না অ্যান্থনি পিলকিংটন। পরে ফাওলার জানান, পিলকিংটনের চোট আছে। এমনকী এদিন প্রথমে মাঘোমা, রফিকদেরও বেঞ্চে বসিয়ে রাখা হয়‌। 

বুধবার ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণের ঝড় তুলেছিল এফসি গোয়া। একের পর এক দুরন্ত সেভ করে ইস্টবেঙ্গলকে ম্যাচে রাখেন দেবজিৎ মজুমদার। ধীরে ধীরে খেলায় ফেরেন ফাওলারের ছেলেরা। প্রথমার্ধে দুটো সহজ হেডও মিস করেন ইস্টবেঙ্গলের দুই ফুটবলার অ্যারন এবং ফক্স। প্রথমার্ধে খেলার ফল ছিল ০-০।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ৫৬ মিনিটে এসসি ইস্টবেঙ্গলের অধিনায়ক ড্যানি ফক্সকে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়। এরপর ১০ জনের এসসি ইস্টবেঙ্গল অসাধারণ লড়াই চালিয়ে যায়। ম্যাচ শেষের কয়েক মূহূর্ত আগে নাইজেরিয়ায় ফুটবলার ব্রাইট তাঁর পারফরম্যান্সের মধ্যে দিয়ে 'আলো' ছড়ান। ব্রাইট একটি বিশ্বমানের গোল করেন। তিনি যে গোলটা করেছেন, তা নিঃসন্দেহে এবার আইএসএলের অন্যতম সেরা গোল হতে চলেছে। সেরাও হতে পারে। ৪০ গজের দৌড়ে গোয়ার খেলোয়াড়দের নিয়ে কার্যত ছেলেখেলা করে জালে বল জড়িয়ে দেন তিনি। চারজন গোয়ার খেলোয়াড়রা কাটিয়ে গোল করেন। তবে এই খুশি দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। মনোসংযোগের অভাবেই পরের মূহূর্তেই গোল হজম করেন লাল-হলুদ। শেষপর্যন্ত ১-১ ব্যবধানে শেষ হয় ম্যাচ।

বন্ধ করুন