বাংলা নিউজ > ময়দান > ISL 2020-21: ‘স্ট্রিট ফুটবলার ছিলাম, প্রতিষ্ঠা দিয়েছেন বাইচুং’, অকপট সন্দেশ
অনুশীলনে সন্দেশ। ছবি- আইএসএল। 
অনুশীলনে সন্দেশ। ছবি- আইএসএল। 

ISL 2020-21: ‘স্ট্রিট ফুটবলার ছিলাম, প্রতিষ্ঠা দিয়েছেন বাইচুং’, অকপট সন্দেশ

  • নিজের পেশাদার কেরিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট নিয়ে বিস্তারিত জানালেন এটিকে-মোহনবাগানের তারকা ডিফেন্ডার।

৬টি মরশুম কেরালা ব্লাস্টার্সে কাটানোর পর সন্দেশ ঝিঙ্গান এবছর যোগ দিয়েছেন এটিকে-মোহনবাগানে। জাতীয় দলের তারকা ডিফেন্ডার এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে আইএসএলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাঠে নামার আগে ফুটবলার হিসেবে নিজের উত্থানের জন্য কৃতিত্ব দিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বাইচুং ভুটিয়াকে। বাগান তারকা স্পষ্ট জানালেন, তিনি স্ট্রিট ফুটবলার ছিলেন। তাঁকে বড় মঞ্চের জন্য পরিণত হয়ে উঠতে সাহায্য করেছেন বাইচুং।

আক্ষরিক অর্থেই কোনও অ্যাকাডেমি থেকে উঠে আসেননি সন্দেশ। ২০১১ সালে তাঁর পেশাদার ফুটবলে হাতেখড়ি হয় বাইচুংয়ের ইউনাইটেড সিকিমে। ভারতীয় ফুটবলের মুল স্রোতে মাথা গলানোর পর অবশ্য আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি সন্দেশকে। কাঁচা প্রতিভা যথাযথ পরিচর্যার পরেই দেশের অন্যতম সেরা তারকায় পরিণত হন।

হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাত্কারে পেশাদার ফুটবলে নিজের আত্মপ্রকাশ প্রসঙ্গে সন্দেশ বলেন, ‘সেই সময় আমি খুশি ছিলাম একটা কাজ মেলায়। কারণ, আমার মনে আছে, তিনজন কোচের কাছে আমি ট্রায়াল দিয়েছিলাম। আমি কলকাতা থেকে ওখানে (সিকিম) যাই যদিও কাজ হয়নি কিছু। ডুরান্ড কাপের সময় আমি দু’দিন ট্রায়াল দিয়েছিলাম, তবে ওরা না বলে। ওরা আমার দিকে যথাযথ নজর দেয়নি। আমি খুব রোগা ছিলাম এবং সেইসময় আমার খেলার স্টাইলও ছিল খানিকটা বেপরোয়া।'

পরক্ষণেই সন্দেশ বলেন, ‘তখন বাইচুং ভাই আমাকে ক্রমাগত ফোন করেন এবং বলেন যে ওঁরা আমাকে (সিকিমে) আরও কিছুদিন দেখতে চায়। ওটাই ছিল টার্নিং পয়েন্ট। দেড়-দু’মাস ট্রায়াল দিতে হয়েছিল। অবশেষে বাইচুং ভাই রাজি হয় (সিকিমে সই করাতে)। আমি সবসময় ওঁকে কৃতিত্ব দিই। বাইচুং ভাই আমাকে ফুটবলের প্রাথমিক বিষয় নিয়ে যে টিপসগুলো দিয়েছিলেন, সেটাই আমার কাছে অনেক ছিল। কারণ, আমার কোনও অ্যাকাডেমি কোচিং ছিল না। আমি স্ট্রিট ফুটবলার ছিলাম।'

বন্ধ করুন