বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘রিমুভ এটিকে’, মোহনবাগান তাঁবু-ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বিক্ষোভ সমর্থকদের
ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বিক্ষোভ মোহনবাগান সমর্থকদের। (ছবি সৌজন্য, ফেসবুক @ultadangamariners)
ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বিক্ষোভ মোহনবাগান সমর্থকদের। (ছবি সৌজন্য, ফেসবুক @ultadangamariners)

‘রিমুভ এটিকে’, মোহনবাগান তাঁবু-ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বিক্ষোভ সমর্থকদের

  • এক প্রবীণ মোহনবাগান সমর্থক বলেন, 'এটা মোহনবাগান। ১৩০ বছরের পুরনো ক্লাব এটা।’

এতদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছিল প্রতিবাদ। এবার এটিকে মোহনবাগানের তৃতীয় কিটের প্রতিবাদে মোহনবাগান ক্লাব তাঁবুর সামনে বিক্ষোভ দেখালেন সবুজ-মেরুন সমর্থকরা। ক্লাবে সাঁটিয়ে দেওয়া হল ‘রিমুভ এটিকে’ পোস্টার। পরে ধর্মতলায় সিইএসসির সদর দফতর ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনেও দেখানো হল বিক্ষোভ। বাগান সমর্থকদের দাবি, সংযুক্তিকরণ নয়, আগামী মরশুম থেকে শুধুমাত্র মোহনবাগান নামে আইএসএল খেলতে হবে।সেখানে বিনিয়োগকারী হিসেবে থাকতে পারেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কারা।

এমনিতেই এটিকে মোহনবাগানের যাত্রাপথের সূচনা থেকেই একগুচ্ছ বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। আইএসএলের বিজ্ঞাপন, অনুশীলনের জার্সিতে আইএসএল চ্যাম্পিয়নের ‘তারা’ থাকায় বাগান সমর্থকদের একাংশ রীতিমতো উষ্মা প্রকাশ করছিলেন। তবে ক্লাবের সবুজ-মেরুন জার্সি, লোগোতে মোহনবাগানকে প্রাধান্য দেওয়ার পর সেই ক্ষোভ কিছুটা প্রশমিত হয়েছিল। তারইমধ্যে আইএসএলে ভালো শুরুর পর এটিকে মোহনবাগানকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন বাগান সমর্থকরা। কিন্তু তৃতীয় কিট পরে এটিকে মোহনবাগান খেলতে নামার পরই তাল কাটে। 

সমর্থকরা দাবি করেন, সেই জার্সিতে সবুজ-মেরুন রাখা হয়নি। পাশাপাশি যে কালো জার্সি পরে খেলতে নেমেছিলেন রয় কৃষ্ণারা, তা গত মরশুমে এটিকের অ্যাওয়ে জার্সি ছিল। তাঁদের অভিযোগ, বাগান সমর্থকদের চোখে ধুলো দিতে প্রথমে দুটি জার্সি আত্মপ্রকাশ করা হয়েছিল। সমর্থকদের ক্ষোভ প্রশমিত হয়েছে ভেবে নিজেদের ‘জোর’ দেখিয়ে কালো জার্সি ব্যবহার করেছেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কারা। সেজন্যই আগেভাগে আত্মপ্রকাশ না করে সরাসরি ম্যাচে কালো জার্সি পরে খেলতে নামানো হয়েছে। তখন থেকেই জার্সি পরিবর্তনের দাবি উঠতে থাকে। সঙ্গে এটিকে মোহনবাগানের নামের সামনে থেকে এটিকে তুলে দেওয়ার দাবি জোরালো হয়।

 মোহনবাগান ক্লাব তাঁবুর সামনে বিক্ষোভ। (ছবি সৌজন্য, ফেসবুক @ultadangamariners)
 মোহনবাগান ক্লাব তাঁবুর সামনে বিক্ষোভ। (ছবি সৌজন্য, ফেসবুক @ultadangamariners)

মূলত সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন পেজে সেই দাবি জানাচ্ছিলেন বাগান সমর্থকরা। রবিবার তাঁরা পথে নামেন। ‘রিমুভ এটিকে’ পোস্টার ব্যানার নিয়ে গঙ্গাপারের ক্লাবের তাঁবুর সামনে জড়ো হন একদল সমর্থক। স্লোগান দিতে থাকেন তাঁরা। ক্লাবের মেন গেট, সদর দরজায় ‘রিমুভ এটিকে’ পোস্টার সাঁটিয়ে দেওয়া হয়। সেই সমর্থকদের মধ্যে ছিলেন এক প্রবীণ মোহনবাগানিও। তিনি বলেন, ‘রিমুভ এটিকে। নো ব্ল্যাক জার্সি। সবুজ-মেরুন হল আমাদের জার্সি এবং সেটাই থাকবে। কালো আর কখনও নয়। এটা মোহনবাগান। ১৩০ বছরের পুরনো ক্লাব এটা।’ 

অপর এক সমর্থক জানান, সংযুক্তিকরণের মাধ্যমে আইএসএল খেলা যাবে না। সঞ্জীব গোয়েঙ্কা বিনিয়োগকারী হিসেবে মোহনবাগানের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারেন। কিন্তু মোহনবাগানের নামের আগে এটিকে কোনওভাবে বরদাস্ত করা হবে না। তারইমধ্যে ধর্মতলায় গোয়েঙ্কা গোষ্ঠীর সিইএসসির সদর দফতর ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে হাজির হন একদল বাগান সমর্থক। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে তাঁরা ‘রিমুভ এটিকে’ স্লোগান তোলেন। বিক্ষোভ দেখান। পোস্টারও সাঁটিয়ে দেওয়া হয়। একইসঙ্গে দাবি পূরণ না হলে আরও বড় আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন বাগান সমর্থকরা।

তবে বিষয়টি নিয়ে এটিকে মোহনবাগান বা মোহনবাগানের তরফে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। ময়দানের একটি অংশের অবশ্য ধারণা, যেভাবে বাগান সমর্থকরা রাস্তায় নেমেছেন, তাতে এটিকে মোহনবাগানের অন্দরে ভালোমতো চাপ তৈরি হচ্ছে।

বন্ধ করুন